Inqilab Logo

ঢাকা, রবিবার, ০৯ আগস্ট ২০২০, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৮ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষায় এনআরবিসি ব্যাংকের পিপিই বিতরণ অব্যাহত

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২০ এপ্রিল, ২০২০, ৯:১৮ পিএম | আপডেট : ৯:২৮ পিএম, ২০ এপ্রিল, ২০২০

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব থেকে রক্ষা পেতে সুরক্ষা সামগ্রী পার্সোনাল প্রটেকশন ইকুইপমেন্ট (পিপিই) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় এবং চট্টগ্রাম, সিলেট ও বরিশালে করোনা আক্রান্ত রোগীদের সেবায় নিয়োজিত চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের মধ্যে আগেই বিতরণ করেছে এনআরবিসি ব্যাংক লিমিটেড। এবার সেই ধারাবাহিকতা অব্যহত রাখল প্রতিষ্ঠানটি। ২০ এপ্রিল (সোমবার) প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক প্রফেসর ডা: এবিএম আবদুল্লাহ-এর হাতে ব্যাংকের পক্ষ থেকে সুরক্ষা সামগ্রী হস্তান্তর করা হয়।

একই দিনে ঢাকার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল, ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং নারায়নগঞ্জ জেলার খানপুরের ৩০০ শয্যা বিশিষ্ট সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য সুরক্ষা সামগ্রী সরবরাহ করা হয়। সুরক্ষা সামগ্রী হিসেবে প্রতিটি হাসপাতালের জন্য ৪৫০ টি পিপিই, ৫০০টি সার্জিক্যাল মাস্ক, ৭৫টি কেএন-৯৫ মাস্ক এবং উল্লেখযোগ্য সংখ্যক বিশেষ চশমা ও হেডশিল্ড সরবরাহ করা হয়।



 

Show all comments
  • Mohammed Shah Alam Khan ২০ এপ্রিল, ২০২০, ১০:৪২ পিএম says : 0
    প্রায়দিনই আমি পত্রিকায় সংবাদ পাঠ করি যে, চিকিৎসকদের করোনা প্রতিরোধ সরঞ্জাম বিশেষ করে পিপিই কিট সরবরাহ করা হচ্ছে। আর এটা যদি সত্য হয় তাহলে কেন ঢাকার হাসপাতালের ডাক্তাররা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন??? সংবাদে আমি আরো পড়ছি, সরকার ডাক্তারদের প্রতি নজর দিচ্ছেন না, সরকার হাসপাতালে নার্সদের খাবার ব্যাবস্থা করছেনা ইত্যাদি ইত্যাদি নানা অভিযোগ সরকারের বিরুদ্ধে। আমার মনে হয় আমাদের দেশের ডাক্তাররা খামখেয়ালী ধরনের তাই তারা সেভাবে সাবধানতা অবলম্বন করেন না। ডাক্তাররা মোটামুটি ভাবে প্রস্তুতি নিয়েই রুগী দেখেন এটাই সঠিক চিত্র, করোনাভাইরাস ভীষন খারাপ ধরনের ভাইরাস কাজেই যেকোন রুগীকে চিকিৎসা দিতে গেলেই করোনায় আক্রান্তদের জন্যে যে প্রস্তুতির প্রয়োজন সেভাবেই প্রস্তুত হতে হবে। কারন ইতিমধ্যে আমারা জেনেছি আগত রুগী তাঁর প্রকৃত ঘটনা লুকাতে চেষ্টা করে মানে রুগীযে করোনায় আক্রান্ত সেটা লিকাতে চায়। সেজন্যেই ডাক্তারদেরকে অবশ্যই সর্বসময়ে করোনাভাইরাস প্রতিরোধোক পরিধান করেই রুগী দেখতে হবে। অপারেশনের সময়ও একইভাবে অপারেশন থিয়েটার সাজাতে হবে এবং রুগীর অপারেশন করতে হবে যাতে করে অপারেশন থিয়েটার এবং ডাক্তার, নার্স সহ সংযুক্ত সবাই সুরক্ষিত থাকেন। এখন সরকারের পক্ষে প্রতিটি হাসপাতালে গিয়ে এসব নিয়ন্ত্রন করা কি সম্ভব??? এটা কি যারা অভিযোগকারি (বিরুধী দলের নেতারা) একবারও হাসপাতালে গিয়ে ডাক্তারদের কর্মকাণ্ড নজরে এনেছেন?? আমাদের দেশে আবার এসব বিষয়ে সরকারকে দায়ী করছে এটা কি ঠিক??? আল্লাহ্‌ আমাকে সহ সবাইকে সত্য কথা বলা, সঠিক বিষয় জানা এবং সেইভাবে কথা বলা ও চলার ক্ষমতা দান করুন। আমিন
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ