Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

পর্যাপ্ত পণ্যের মজুদ, কারসাজি হলে কঠোর ব্যবস্থা- বাণিজ্যমন্ত্রী

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ এপ্রিল, ২০২০, ৮:০৬ পিএম

দেশে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য যেমনÑ চাল, ডাল, তেল, ছোলা, পেঁয়াজ, রসুন ও আদাসহ সব পণ্যের পর্যাপ্ত মজুত রয়েছে। এ মজুদের পরিমান চাহিদার তুলনায় বেশি। কোন পণ্যের ঘাটতি হবার সম্ভাবনা বা কারণ নেই বলে জানিয়েছেন বানিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশী। কৃত্রিম উপায়ে কোন পণ্যের সংকট সৃষ্টির চেষ্টা করা হলে সরকার তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার হুশিয়ারি দিয়ে মন্ত্রী বলেন, পবিত্র রমজান মাসের জন্য সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মজুদ আগে থেকেই বাড়ানো হয়েছে। তাই সংশ্লিষ্ট সবাইকে আন্তরিকতার সাথে দায়িত্বশীল হয়ে দেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করতে হবে। সব পণ্যের সরবরাহ ও ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করতে গঠিত টাস্কফোর্স এবং বিভিন্ন কমিটিকে আরও তৎপর হয়ে কাজ করতে হবে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় তথা সরকার প্রয়োজনীয় সব ধরনের সহযোগিতা দিবে।

বাংলাদেশ সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে বৃহস্পতিবার (২৩ এপ্রিল) আসন্ন পবিত্র রমজান উপলক্ষে এবং বর্তমান কোভডি-১৯ পরিস্থিতিতে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের উৎপাদন, মজুত, সরবরাহ ও মূল্য পরিস্থিতি পর্যালোচনা সভায় সভাপতিত্ব করে বানিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশী এসব কথা বলেন।

বাণিজ্যসচিব ড. মো. জাফর উদ্দীনের সঞ্চালনায় সভায় বাংলাদশে ট্রেড এন্ড ট্যারিফ কমিশনের চেয়াারম্যান তপন কান্তি ঘোষ, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরচিালক বাবলু কুমার সাহা, বানিজ্য মন্ত্রণালয়রে অতিরিক্ত সচিব (রপ্তানি) মো. ওবায়দুল আজম, ডিজিএফআই, এনএসআই, স্পেশাল ব্যাঞ্চ এর প্রতিনিধি, টিসিবির চেয়ারম্যান ব্রি. জে. মো. হাসান জাহাঙ্গীর, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রতিনিধি, জেলা প্রশাসক, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্রতিনিধিরা, এফবিসিসিআই এর প্রেসিডেন্ট শেখ ফজলে ফাহিম, মেঘনা গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. মোস্তফা কামাল, এস আলম গ্রুপের সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার সালাহ উদ্দিন, দেশবন্ধু গ্রুপের চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা, সিটি গ্রুপের পরিচালক বিশ^জিৎ, এসিআই গ্রুপের প্রতিনিধি, দোকান মালিক সমিতি ঢাকা ও মৌলভীবাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতিরা, নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের উৎপাদক, আমদানিকারক ও পাইকারী বিক্রেতারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় এ বছর পবিত্র রমজান উপলক্ষ্যে বানিজ্য মন্ত্রণালয় ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে উল্লেখ করে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় টিসিবির মাধ্যমে ঢাকা ও চট্টগ্রামসহ দেশের সব বিভাগ, জেলা, উপজেলা এমনকি ইউনিয়ন পর্যায়ে সয়াবিন তেল, মশুরডাল, চিনি, ছোলা ও খেজুর সাশ্রয়ী মূলে ট্রাক সেলের মাধ্যমে বিক্রয় করছে। টিসিবি’র মাধ্যমে বিগত যেকোন বছরের তুলনায় এবার বেশি পরিমানে পণ্য বিক্রয় করা হচ্ছে। টিসিবি’র নিয়োগ প্রাপ্ত প্রায় তিন হাজার ডিলার এসব পণ্য ট্রাকসেলে বিক্রয় করছে। ইতোমধ্যে পণ্য বিক্রয়ের ক্ষেত্রে কিছু অনিয়ম ধরা পড়েছে এবং অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইন মোতাবেক কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। বর্তমানে সারাদেশে ৯০টি বাজার মনিটরিং টিম নিয়মিত বাজার মনিটরিং কার্যক্রম পরিচালনা করছে। এছাড়া টিসিবি’র কার্যক্রম মনিটরিং করার জন্য ঢাকাতে ৮টি এবং ৬৪ জেলায় জেলা প্রশাসকে মাধ্যমে স্থানীয়ভাবে মনিটরিং কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।



 

Show all comments
  • Nadim ahmed ২৩ এপ্রিল, ২০২০, ৯:০৭ পিএম says : 0
    No action will be taken against Awami thieves when its ministers say that dialogue 'Strict action will be taken'. Fao kotha.
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Shah Alam Khan ২৩ এপ্রিল, ২০২০, ১০:৫৯ পিএম says : 0
    আমি আমার বুদ্ধি হবার পর থেকেই মানে পাকিদের আমল থেকে দেখে আসছি রমজানের সময় নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বৃদ্ধি পায় আবার ঈদের পর নিচে নেমে আসে। কিন্তু আমি দুবছর আগে কয়েক রোজা দেশে করেছিলাম তখন তোফায়েল ভাই বাণিজ্যমন্ত্রী। তখন ওনাদের ক্ষমতার শেষ বছরের রোজার মাসে এইভাবেই ঘোষনা দিয়ে পুরো রোজার মাসে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি হতে দেননি। এখন এবারের বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশী বলছেন, তিনিও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি হতে দিবেন না। এখন আমাদেরকে অপেক্ষা করতে হবে ওনার এই কথাটা উনি সঠিক রাখতে পারন কিনা। তোফায়েল ভাই ওনার মন্ত্রিত্বের শেষ বছরে প্রমাণ করে গেছেন যে, যদি মন্ত্রী চায় তাহলে তিনি অবশ্যই দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেন সেটা স্বাভাবিক সময়ই হউক বা রোজার মাসেই হউক না কেন। নিন্দুকেরা বলছেন দলীয় ব্যাবসায়িরা যদি এসব সুযোগ নেয় তাহলে মন্ত্রীরা নিশ্চুপ থাকেন। কথাটা অবশ্যই সমর্থন যোগ্য তবে আওয়ামী লীগের ব্যবসায়ীরা তাদের দল ১২ বছর একনাগারে ক্ষমতায় থাকার কারনে যথেষ্ট অর্থশালী এবং বড় ব্যাবসায়ী হয়েছেন এটাই জানা যায়। কাজেই এখন তাদের এসব ছোট খাটো ব্যবসা করে জনগণের সমর্থন হারাবার প্রয়োজন নেই। কাজেই আমি মনেকরি টিপু মুনশী চাইলেই এবারের বাজার দর তিনি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারবেন ইনশ’আল্লাহ। আল্লাহ্‌ আমাকে সহ সবাইকে সত্য বুঝা, সত্য বলা ও সততার সাথে চলার যোগ্যতা দান করুন। আমিন
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বাণিজ্যমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ