Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ৭ কার্তিক ১৪২৭, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

কক্সবাজার কারাগারে দুই ইয়াবা গ্রুপে মারামারি, আহত-৫

কক্সবাজার থেকে বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৪ এপ্রিল, ২০২০, ৯:২৬ এএম

বড় অংকের ইয়াবার টাকা লেনদেন নিয়ে কক্সবাজার জেলা কারাগারে দুই গ্রুপে মারামারির ঘটনা ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার (২৩ এপ্রিল) বিকালে পরস্পর বিরোধী দুই ইয়াবা কারবারি দলের মধ্যে মারামারির এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে ।

এ সময় পাগলা ঘণ্টি বাজিয়ে কারারক্ষীরা এক যোগে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে। এতে কমপক্ষে ৫ জন আহত হয়েছে। আহতদের কারাগার চিকিৎসা কেন্দ্রে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

জানা গেছে, কক্সবাজার জেলা কারাগারে বর্তমানে কমপক্ষে তিন হাজারের বেশী ইয়াবা কারবারি আটক রয়েছেন। তাদের মধ্যে রয়েছেন গত বছরের ১৬ ফেব্রুয়ারি টেকনাফ সীমান্তে এক যোগে আত্মসমর্পণ করা ১০১ জন কারবারি।
আত্মসমর্পণ করা এসব কারবারিদের মধ্যে টেকনাফের সাবেক এমপি আবদুর রহমান বদির ৪ ভাই ও এক ভাগ্নে সহ একই পরিবারের ৭ জন কারবারিও রয়েছেন।
জেল সুপার মোস্তফা কামাল সূত্র মতে ৫৫০ জন বন্দির ধারণ ক্ষমতার কারাগারটিতে বর্তমানে ৪ হাজার ৩৭৫ জন বন্দি রয়েছেন। তিনি জানান, বন্দিদের মধ্যে চার ভাগের তিন ভাগই হচ্ছে ইয়াবা মামলার আসামি।

আত্মসমর্পণকরা কারবারিদের মধ্যে কক্সবাজার শহরের বাস টার্মিনালের বাসিন্দা শাহজাহান আনসারি এবং টেকনাফ সীমান্তের বাসিন্দা এনাম মেম্বারের মধ্যে মোটা অঙ্কের একটি লেনদেনের ঘটনা নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে কারাগারের অভ্যন্তরে উত্তেজনা বিরাজ করছিল।

কারবারিদের এক দল কক্সবাজার শহরের আনসারির অনুসারি এবং অন্য দল সীমান্তের এনাম মেম্বারের অনুসারি।

জানা গেছে, কারবারি এনাম মেম্বার এ ২৭ লাখ টাকা শাহজাহান আনসারিকে দিয়েছেন দাবি করেন। আর শাহজাহান আনসারির দাবি তিনি কোন টাকা পাননি।

কারা তত্বাবধায়কের মতে আত্মসমর্পণ করা ১০২ জন কারবারির বিরুদ্ধে যে মামলা রয়েছে সেই মামলা নিষ্পত্তির জন্যই কারবারিরা এ অংকের টাকা লেনদেন করছিলেন। তাঁর মতে দুই পক্ষে মারামারি হলেও কেউ আহত হননি। বর্তমানে পরিস্থিতি ভাল রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মারামারি


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ