Inqilab Logo

সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৩ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

বিনা ওয়ারেন্টে গ্রেফতারের বিধান রেখে সেতু কর্তৃপক্ষ আইন পাস

প্রকাশের সময় : ২০ জুলাই, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : বিধি ভঙ্গের দায়ে জেল-জরিমানা ও বিনা ওয়ারেন্টে গ্রেফতারের বিধান রেখে জাতীয় সংসদে ‘বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ আইন-২০১৬’ নামের একটি বিল পাস করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে সংসদ অধিবেশনে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বিলটি পাসের প্রস্তাব উত্থাপন করলে তা কণ্ঠভোটে পাস হয়। এর আগে সংসদে যুব কল্যাণ তহবিল বিল পাস হয়েছে।
স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে শুরু হওয়া সংসদ অধিবেশনে বিলটি নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা হয়। বিলের উপর বিরোধী দল জাতীয় পার্টি ও স্বতন্ত্র সদস্যদের জনমত যাচাই ও বাছাই কমিটিতে পাঠানোর প্রস্তাব কণ্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়। গত ২৫ এপ্রিল জাতীয় সংসদে এই বিলটি আনা হয়। আদালতের নির্দেশে সামরিক শাসন আমলে জারি করা অধ্যাদেশগুলি বিলুপ্ত হওয়ায় নতুন আইন প্রণয়নের লক্ষ্যে আনা এই বিলটি অধিকতর পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য সংশ্লিষ্ট সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়।
বিলের উদ্দেশ্য ও কারণ সম্বলিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আদালতের রায়ে সংবিধানের চতুর্থ তফসিলের ১৯ অনুচ্ছেদ বিলুপ্ত হওয়ায় যমুনা বহুমুখী সেতু কর্তৃপক্ষ অধ্যাদেশ ১৯৮৫ এবং ২০০৯ সালে নাম যমুনা বহুমুখী সেতু কর্তৃপক্ষ ২০০৯-এর কার্যকারিতা লোপ পায়। আইনের ধারাবাহিকতা রক্ষা এবং সমন্বিত যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন সেতু, টানেল, এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণ ও রক্ষণাবেক্ষণের জন্য বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ নামে একটি কর্তৃপক্ষ প্রতিষ্ঠা ও বিধান প্রণয়নের জন্য বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ আইন ২০১৬ বিলটি সংসদে উত্থাপন করা হল।
এই বিলের ধারা ২৮-এ বলা হয়, কোন সেতু, টানেল টোল সড়ক বা কর্তৃপক্ষের আওতাধীন অন্য কোন স্থাপনায় যানবাহন চলাচলে বাধা সৃষ্টি করলে, প্রাচীর, বেড়া, চিহ্ন, প্রতীক বা সংকেত ধ্বংস বা ক্ষতি করলে অপরাধ হিসেবে গণ্য হবে। এই ধারার অধীনে অপরাধের জন্য বিনা ওয়ারেন্টে গ্রেফতার করা যাবে। অপরাধের জন্য ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও কারাদ-ের বিধান রাখা হয়েছে।
যুব কল্যাণ তহবিল বিল পাস
সামরিক শাসন আমলে জারি করা ‘ইয়ুথ ওয়েলফেয়ার ফান্ড’ অধ্যাদেশ বাতিল করে ‘যুব কল্যাণ তহবিল-২০১৬’ নামে আরও একটি বিল গতকাল সংসদে পাস হয়েছে। যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার বিলটি পাসের প্রস্তাব উত্থাপন করলে তা কণ্ঠভোটে পাস হয়। গত ২৩ ফেব্রুয়ারি প্রতিমন্ত্রী বিলটি সংসদে উত্থাপন করলে তা অধিকতর পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য সংশ্লিষ্ট স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়।
পাস হওয়া বিলে যুব কল্যাণ তহবিল গঠন, তহবিলের ব্যবহার, বোর্ড গঠন, বোর্ডের দায়িত্ব ও কার্যাবলী, বোর্ডের সভা, সিলেকশন কমিটি, অনুদান বা পুরস্কার প্রদানে বাধা নিষেধ, কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োগ, বাজেট, হিসাব রক্ষণ ও নিরীক্ষা এবং বিধি প্রণয়নের ক্ষমতাসহ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে সুনির্দিষ্ট বিধান রাখা হয়েছে। এছাড়া বিলে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে নিয়োজিত মন্ত্রী বা প্রতিমন্ত্রীকে চেয়ারম্যান করে ১৮ সদস্য বিশিষ্ট বোর্ড গঠনের বিধান রাখা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিনা ওয়ারেন্টে গ্রেফতারের বিধান রেখে সেতু কর্তৃপক্ষ আইন পাস
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ