Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭, ১২ সফর ১৪৪২ হিজরী

ভারতই পারে দক্ষিণ আফ্রিকাকে বাঁচাতে!

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ এপ্রিল, ২০২০, ১২:০৩ এএম

সব ধরনের ক্রিকেটই আপাতত ঘরের উঠোন কিংবা টিভি পর্দায় জায়গা করে নিয়েছে। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ যে মাঠে খেলা ফিরতেই দিচ্ছেই না। ভারতের সিরিজ খেলতে গিয়েও মাঝপথে ফিরে আসতে হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকাকে।

ক্রিকেট এভাবে থমকে যাওয়ায় আর্থিকভাবে ক্ষতির মুখে পড়েছে সব দেশের ক্রিকেট বোর্ডই। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার মতো বড় বোর্ডও কর্মচারিদের ছাঁটাইয়ের মতো কঠিন সিদ্ধান্ত নিচ্ছে। এর মাঝে দক্ষিণ আফ্রিকা ক্ষতি কাটিয়ে ওঠার উপায় বের করছে। ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ আয়োজন করেই সব সমস্যার সমাধান করার ইচ্ছা তাদের।

ভারতের বিপক্ষে সিরিজ আয়োজন করে টিভি স্বত্ব ও বিজ্ঞাপন থেকে ১৯ কোটি ৫০ লাখ র‌্যান্ড (৭৩ কোটি টাকা) পাওয়ার আশা করছে দক্ষিণ আফ্রিকা। সেটাও শূন্য গ্যালারিতে খেলা আয়োজন করেই। কারণ ভারতের বিপক্ষে সিরিজের চাহিদা টিভি দর্শকের কাছে এতটাই বেশি যে টিকিট বিক্রির অর্থ থেকে ২০ গুণ আয় করা সম্ভব সেখান থেকেই। স্পোর্টস টুয়েন্টিফোরকে দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ডের ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী জ্যাক ফাউল বলেছেন, ‘আমাদের জন্য এটা অনেক বড় একটা সুযোগ। শ‚ন্য গ্যালারিতে চাইলে আমরা খেলতে পারি এবং আয় করতে পারি।’ আগামী আগস্টেই সিরিজটি আয়োজন করতে চায় দক্ষিণ আফ্রিকা। দরকার হলে দুই পক্ষের জন্য সুবিধাজনক ভেন্যু দুবাইয়েও সিরিজ আয়োজন করতে আপত্তি নেই তাদের।

এ সপ্তাহেই শ্রীলঙ্কা সফর স্থগিত হয়েছে প্রোটিয়াদের। জুনের এই সফরে তিনটি ওয়ানডে ও তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলার কথা ছিল দক্ষিণ আফ্রিকার। কিন্তু বৈশ্বিক মহামারির মুখে আগ থেকে সিরিজ স্থগিতের ঘোষণা দিয়েছে দুই বোর্ড। এ ব্যাপারে ফাউল বলেছেন, ‘এটা খুবই দুঃখজনক যে আমাদের এ সিদ্ধান্ত নিতে হলো। ক্রিকেটে স্বাভাবিকতা ফিরে এলেই এ সফর নতুন করে আয়োজন করা হবে। লকডাউন পরিস্থিতে আমরা ঠিকভাবে প্রশিক্ষণ নিতে পারছি না। এতা আমাদের মাথায় রাখতে হচ্ছে। তা ছাড়া খেলোয়াড়দের স্বাস্থ্যের কথাও খেয়াল রাখতে হবে। সেটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: দক্ষিণ-আফ্রিকা
আরও পড়ুন