Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

ঘুষের বিনিময়ে হজযাত্রী কোটা বণ্টন বন্ধ করুন -প্রতিবাদ সভায় হজ এজেন্সি মালিকগণ

প্রকাশের সময় : ২০ জুলাই, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : ধর্ম মন্ত্রণালয় থেকে অব্যবহৃত হজযাত্রী কোটা মোটা অংকের ঘুষের বিনিময়ে বণ্টন বন্ধ করুন। সোমবার কোনো নিয়মনীতি তোয়াক্কা না করে গঠিত ৯ সদস্যবিশিষ্ট কমিটিকে পাশ কাটিয়ে ৭৮৬ জন হজযাত্রীর কোটা বণ্টনের চরম দুর্নীতির আশ্রয় নেয়া হয়েছে। কোনো সিরিয়াল না মেনে জনপ্রতি ৩০ হাজার থেকে ৪০ হাজার টাকার ঘুষের বিনিময়ে হজযাত্রী কোটা বণ্টন করা হচ্ছে বিভিন্ন হজ এজেন্সির মধ্যে। দুর্নীতির মাধ্যমে হজযাত্রী কোটা বণ্টনের প্রতিবাদে আগামীকাল সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হবে।
গতকাল সন্ধ্যায় রাজধানীর ২৯ টয়েনবি সার্কুলার রোডস্থ প্যান ব্রাইট ট্রাভেলস কার্যালয়ে কোটা বঞ্চিত হজ এজেন্সির মালিকদের এক প্রতিবাদ সভায় একথা বলা হয়। প্যান ব্রাইট ট্রাভেলসের স্বত্বাধিকারী আলহাজ রুহুল আমিন মিন্টুর সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভায় আরো বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ নেতা রেজাউল করীম উজ্জ্বল, মাওলানা যাকারিয়া, ক্বারী গোলাম মোস্তফা, ওলিউর রহমান, গোলাম মোহাম্মদ, মাওলানা নাজমুল, ও সিরাজী। সভায় নেতৃবৃন্দ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, অব্যবহৃত হজযাত্রী কোটা বণ্টনে কোনো সিরিয়াল মানা হয়নি। সরকার গঠিত ৯ সদস্য কমিটির আহ্বায়ক বিএইচ হারুন এমপিকে উপেক্ষা করেই কোটা বণ্টন হচ্ছে। নেতৃবৃন্দ বলেন, হজ নিয়ে বর্তমান সরকারের ভাবমর্যাদা ক্ষুণœ হোক এটা আমরা চাই না। আমরা দুর্নীতিমুক্ত হজ চাই। বেসরকারি হজযাত্রী কোটা থেকেও প্রায় ২ হাজার কোটা ডিজিটালভাবে বণ্টনের মাধ্যমে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের একটি মহল তাদের স্বার্থ হাসিল করেছে। সভায় ময়মনসিংহ ট্রাভেলসকে ১০৩ জনসহ অপর একটি এজেন্সিকে ১২৩ জন হজযাত্রীর কোটা বণ্টন করায় ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়। দুর্নীতির মাধ্যমে হজযাত্রী কোটা বণ্টন বন্ধের দাবিতে আগামীকাল ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সংবাদ সম্মেলনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। এদিকে, হজযাত্রী কোটা বণ্টনে চরম অনিয়মের দরুন হাবের সভাপতি আলহাজ মোহাম্মদ ইব্রাহিম বাহার গতকাল ধর্ম মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব (হজ) মো: জাকের হোছাইনকে টেলিফোনে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ৯ সদস্যবিশিষ্ট কমিটির হাবের তিনজন সদস্যকে অন্ধকারে রেখে ৭৮৬ জন হজযাত্রীর কোটা বণ্টন করা হয়েছে। উক্ত তালিকা হাবকে দেয়া হয়নি। যার দায়দায়িত্ব হাব নেবে না। হাব সভাপতি কোটা বণ্টনে অনিয়মের কথা উল্লেখ করে হাবের তিন সদস্যের নাম কেটে দেয়ার অনুরোধ জানিয়ে বলেন, আমরা কোটা বণ্টনের কোনো কমিটির মিটিংয়ের রেজুলেশনে স্বাক্ষর দেবো না।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ঘুষের বিনিময়ে হজযাত্রী কোটা বণ্টন বন্ধ করুন -প্রতিবাদ সভায় হজ এজেন্সি মালিকগণ
আরও পড়ুন