Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

আ.লীগ নেতার নির্দেশে নারী স্বাস্থ্যকর্মীকে নির্জন ঝুপড়িতে কোয়ারেন্টিন, নিন্দার ঝড়

আবদুল মোমিন | প্রকাশের সময় : ২৮ এপ্রিল, ২০২০, ২:০৮ পিএম

স্থানীয় এক আওয়ামী লীগ নেতার নির্দেশে পুকুরপাড়ে তালপাতার তৈরি নির্জন ঝুপড়িতে নিষ্ঠুর ও অমানবিক কোয়ারেন্টিনের শিকার হলেন এক নারী স্বাস্থ্যকর্মী (২১)। বিষয়টি সামাজিক যোগযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হতেই সমালোচনা ও প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। এঘটনায় অভিযুক্ত ওই নেতার কঠোর শাস্তির দাবি উঠেছে নেট দুনিয়ায়।
ঘটনাটি ঘটেছে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া। আওয়ামী লীগ নেতার নির্দেশে স্থানীয়রা তার বাড়ির প্রায় আধা কিলোমিটার দূরের একটি নির্জন পুকুর পাড়ে তালপাতার তৈরি ঘরে কোয়ারেন্টিনে রাখে ওই নারী স্বাস্থ্যকর্মীকে। সেখানে গত ১ সপ্তাহ ধরে তিনি রোদ-বৃষ্টিতে অবর্ণনীয় কষ্টের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রাজধানী ঢাকার ইমপালস হাসপাতালের চিকিৎসকের অ্যাটেনডেন্ট পদে চাকরি করেন ওই নারী। করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে হাসপাতাল বন্ধ হয়ে যায়। গত মঙ্গলবার (২১ এপ্রিল) ওই স্বাস্থ্যকর্মী কোটালীপাড়া উপজেলার লখন্ডা গ্রামের নিজ বাড়িতে আসেন। বাড়িতে আসার পর সাদুল্লাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রশান্ত বাড়ৈর নির্দেশে ওই নারী স্বাস্থ্যকর্মীকে এলাকাবাসী একটি নির্জনস্থানে পুকুরপাড়ে তালপাতা দিয়ে তৈরি ঝুপড়ি ঘরে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়।

ফেইসবুকে আপন বিশ্বাস লিখেছেন, ‘‘এটা চরম অন্যায়।এইসব নেতারাই চাল চুরি করে এদের গণধোলাই দেওয়া উচিত। জানিনা প্রশাসন কি করতেছে আশা করি। আমাদের কোন দলীয় নেতৃবৃন্দ এই ধরনের জানোয়ারদের সমর্থন দেবে না। যারা সমর্থন দিবেন তারাও সাবধান হয়ে যান, সময় কিন্তু সাবধান হওয়ার। যদি কারো করোনা হয় ও কারো সাথে কেউ অমানবিক আচরণ করতে পারবে না। করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির জন্য চিকিৎসা আছে সরকার ব্যবস্থা করবে। আপনি আপনার সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দিতে পারেন না, তাই এই ধরনের চিন্তাধারী ব্যক্তিকে অবশ্যই কঠোর শাস্তি দেওয়া উচিত যা দেখে সারা বাংলাদেশের মানুষ শিক্ষা নেবে।’’

মোহাম্মাদ শহীদুল ইসলাম লিখেছেন, ‘‘এইসব শয়তানকে দেখে ইবলিশ শয়তানও বলে কেন আমি শয়তান হয়লাম আমার থেকে বড় শয়তান বাংলাদেশ আছে...। কিছু বলার নেই। যারা নিজের জীবন বাজি রেখে কাজ করছে তাদের সাথে এমন কোন ভাবেই কাম্য নয়।এরা বুঝবে কি করে সাস্থ্যকর্মীরা কতটা ঝুঁকি নিয়ে কাজ করে। এরা তো চাল চুরিতে ব্যাস্ত থাকে। আমার মনে হয়, তদন্ত করলে এর বিরুদ্ধেও চাল চুরির প্রমান পাওয়া যাবে,।’’

ইয়াসিন মাহমুদ লিখেছেন, ‘‘এই মহামারী পরিস্থিতিতেও ভালো হয় না আর ভালো হবে কবে?? এইসব ভন্ডনেতাদের জন্য আসল নেতাদের বদনাম। ওই নেতারে বড় পাথর তার শরীরে বেঁধে পানির ভিতরে ছেড়ে দেয়া উচিত।’’

শাখাওয়াত প্রিন্স লিখেছেন, ‘‘কতটা অমানবিক আর পশু হলে এমন কাজ করতে পারে। সে তো একজন মানুষ তার সাথে মানুষের মতো আচরণ না করে জীব জানোয়ারের মতো আচরণ করেছে এক আ'লীগ নেতার নির্দেশে।’’

সাইফুল ইসলাম রবিন লিখেছেন, ‘‘যেই আওয়ামী লীগের নেতা এখানে রেখেছে, তাকেও এভাবে এই ঝুপড়ির মধ্যে ১৪ দু গুনে ২৮ দিন এখানে রাখা হোক, তাহলে বুঝবে এখানে থাকার কষ্ট কি।’’

জামাল খান লিখেছেন, ‘‘এইসব নেতাদের কারণে আওয়ামী লীগের বদনাম হয়। এদেরকে দ্রুত আইনের আওতায় আনা হোক, তা না হলে সর্বনাশ হয়ে যাবে এ দেশের।’’



 

Show all comments
  • সভ্যতার যুগে এমন অসভ্য এবং অমানবিক আচরন মেনে নেয়া যায় না। যেই নেতার নির্দেশে একজন মানব সেবিকা মহিলার সাথে এমন বর্বরোচিত আচরন করতে পারে, তাকে একজন নারীর সাথে অমানবিক আচরনের দায়ে নারী নির্যাতনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্হা করার জন্য সরকারের দৃষ্টি আকর্ষন করছি।
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃ সাইফুল আজম মজুমদার ২৯ এপ্রিল, ২০২০, ৩:৫৮ এএম says : 0
    আমি ও সরকারের সুদৃষ্টি আকর্ষণ করছি ।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সোশাল মিডিয়া


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ