Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ৩১ মে ২০২০, ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৭ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

আরেকটি গুজরাট হতে দেয়া যায় না

অথচ ইসলামোফোবিয়ায় আক্রান্ত হয়েছে তারা : কুরেশি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ এপ্রিল, ২০২০, ১২:০৪ এএম

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি ২০০২ সালে ভারতে সংঘটিত গণহত্যার প্রসঙ্গ টেনে মঙ্গলবার বলেছেন যে, ইসলামিক সহযোগিতা সংস্থা (ওআইসি)সহ অন্যান্য সংস্থা চুপচাপ দাঁড়িয়ে থেকে আরেকটি গুজরাট সৃষ্টি হতে দিতে পারে না। তিনি নরেন্দ্র মোদি সরকারের আমলে ভারতে মুসলমানদের উপর হামলা বন্ধে এগিয়ে আসার জন্য সংস্থাগুলোর প্রতি আহবান জানিয়েছেন। টুইটার একাউন্টে শেয়ার করা এক ভিডিও বার্তায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন যে, তিনি এ ব্যাপারে ওআইসি’র মহাসচিবের কাছে চিঠি লিখেছেন এবং প্রাণঘাতি মহামারীর সময়ে ভারতে ইসলামোফোবিয়া প্রচারণার প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন। তিনি বলেন, বিশ্ব এখন করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছে। এখন যৌথ প্রচেষ্টা প্রয়োজন। দুঃখজনক হলো, আমরা দেখছি যে এই ভাইরাস সীমান্ত মানে না। এটা কোন জাতীয়তা বা ধর্ম মানে না। অথচ ভারতে তারা ইসলামোফোবিয়ায় আক্রান্ত হয়েছে। মহামারীর সময়ে ভারতে মুসলমানদের প্রতি ঘৃণা ছড়ানো সাধারণ ঘটনায় পরিণত হয়েছে। হাসপাতালে মুসলিম রোগিদের ভর্তি করা হচ্ছে না, প্রতিবেশিরা তাদের মহল্লায় মুসলমানদের প্রবেশে বাধা দিচ্ছে। মুসলমানদেরকে চাকরিচ্যুত করা হচ্ছে। ভিডিওতে কোরেশি বলেন, ভারতে ঘৃণা ছড়ানোর অনুশীলন চলছে। মুসলমানদের বিরুদ্ধে বৈষম্য করা হচ্ছে। তাদেরকে হাসপাতালে পর্যন্ত ঠিকভাবে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে না। মুসলমানদের দোকানে কেনাকাটা করতে নিষেধ করা হচ্ছে। তাদের বাড়িঘরে হামলা চালানো হচ্ছে। কুরেশি তাই ভারতের হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সরকারের এই বৈষম্যমূলক আচরণের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহবান জানান। ডন, এসএএম।



 

Show all comments
  • সুলতান গাজি সালাহউদ্দিন আইয়ুবি ৩০ এপ্রিল, ২০২০, ৯:২৫ পিএম says : 0
    চরমতম মূর্খ,বর্বর, গোমূত্রপানকারি এবং নরপিচাশ,কাফির ও মুশরিক হিন্দু ভারতের বিরুদ্ধে গোটা মুসলিম বিশ্বের সম্মিলিত মুজাহিদ বাহিনীর সর্বশক্তি দিয়ে সশস্ত্র সর্বাত্মক মরণপণ জিহাদে এখুনি ঝাপিয়ে পড়তে হবে
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ