Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৮ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

রাণীশংকৈলে ভুয়া ডিবির ৩ সদস‍্য আটক, পলাতক ২

রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২ মে, ২০২০, ৫:৪৬ পিএম

ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈলে ভুয়া ডিবির পরিচয়ে তিন ব‍্যাক্তিকে আটক করেছে পুলিশ।
আটককৃতদের বিরুদ্ধে প্রতারণাসহ চাঁদাবাজির অপরাধে তিন ব্যক্তিসহ পাঁচজনের নাম উল্লেখ করে আরো ২/৩ জনের নামে অজ্ঞাতনামা আসামী করে হিমেলের পিতা বাদশা মিয়া বাদী হয়ে রাণীশংকৈল থানায় মামলা দায় করেছে।
জানাগেছে, আটককৃতরা পৌর শহরের দক্ষিণ সন্ধ‍্যারই (ফায়ার সার্ভিস সংলগ্ন) গ্রামের তুলা ব‍্যবসায়ী বেলালের ছেলে নয়ন আলী (২৬), একই গ্রামের মৃত লাল মিয়ার ছেলে রফিক হোসেন (২৮) ও দক্ষিন সন্ধ‍্যারই (কলনী) গ্রামের কাঠ ব‍্যবসায়ী রফিকের ছেলে মিলন হোসেন (৩০)। এছাড়ারাও বাকী দুই পলাতক আসামীরা হলেন ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার সোহাগ হোসেন ও আতিকুল ইসলাম।
এপ্রসঙ্গে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা (এস আই) আহসান হাবীব বলেন, সম্প্রতি ভুয়া ডিবি পরিচয়ে পৌর শহরের মহলবাড়ী গ্রামের বাদশার ছেলে হিমেলের কাছে ৪ এপ্রিল রাতে মাদকের মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে বাধ্য করে রাতারাতি এক লাখ চল্লিশ হাজার টাকা নেয় এই চক্রটি। ঘটনাটি উপজেলার কুমরগঞ্জ এলাকায় বেলতলী বাসনাহার মোড়ে ঘটেছে। প্রতারনা ও চাঁদাবাজীর সাথে জড়িত থাকার অপরাধে তাদের বিরুদ্ধে (১ মে) মামলা রুজু করা হয়েছে এবং আটক করা হয়েছে ৩০ এপ্রিল। আসামীদের ইতো মধ‍্যে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। সেই সাথে পলাতক আসামীদেরও ধরার প্রক্রিয়া চলছে।
এ বিষয়ে হিমেলের বাবা বাঁদশা মুঠোফোনে সাংবাদিকদের জানান, আমার ছেলে পার্শ্ববতী হরিপুর উপজেলার যাদুরানী বাজারে ব্যবসায়ীক কাজে গেলে পথিমধ্যে আমার ছেলের সঙ্গ ধরে নয়ন আলী নামক এক ব‍্যক্তি। নয়য় আলী আমার ছেলেকে পরিকল্পিতভাবে ভুয়া ডিবির হাতে তুলে দিয়ে মাদকের মামলায় ফাঁসানোর হুমকি দিয়ে রাতারাতি বিকাসের মাধ‍্যমে আমার কাছে এক লাখ চল্লিশ হাজার টাকা নেয়। তবে ঘটনাটি সন্দেহজনক মনে হলে আমি থানার আশ্রয় নেই। এ বিষয়ে রানীশংকৈল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আঃ মান্নান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আসামীদের জবানবন্দীতে ঘটনার সত‍্যতা শিকার করেছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ