Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১১ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

এলাকাবাসীর বাধা, লকডাউন উপেক্ষা করে মধ্যপাড়া খনিতে পাথর পরিবহণ

পার্বতীপুর (দিনাজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২ মে, ২০২০, ৯:৫৪ পিএম

লকডাউন উপেক্ষা করে দিনাজপুরের পার্বতীপুরে মধ্যপাড়া কঠিন শিলা খনিতে পাথর নিতে আসা শতাধিক ট্রাককে তাড়িয়ে দিয়ে এলাকাবাসী। গতকাল শনিবার সকালে খনি গেটের সামনে মধ্যপাড়া-মিঠাপুকুর-ঢাকা সড়কে দেড়শতাধিক ট্রাক অবস্থান নেয়। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে খনির পাশর্^বর্তী কয়েকটি গ্রামের শতাধিক লোকজন লাঠিসোটা নিয়ে ট্রাক ও ট্রাক চালক-হেলপারদের এলোপাতাড়ি মারপিট শুরু করে। এলোপাতাড়ি মারপিটে ট্রাক থেকে নিচে নেমে থাকা করেকজন চালক ও হেলপার আহত হয় এবং কয়েকটি ট্রাক ক্ষতিগ্রস্থ হয়। এসময় প্রাণভয়ে চালকরা যে যেদিকে পারে ট্রাক নিয়ে পালিয়ে যান। পরে দুপুর ১২ টার দিকে মধ্যপাড়া তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও খনি কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়।
এলাকাবাসী জানায়- দিনাজপুর জেলায় কয়েক ব্যক্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় জেলা প্রশাসক দিনাজপুর জেলাকে লকডাউন ঘোষনা করেছে। কিন্তু মধ্যপাড়া খনি এলাকার একটি স্বার্থান্বেষী মহল খনি কর্তৃপক্ষকে ভুল বুঝিয়ে পাথর বিক্রি করতে সম্মত করে।
মধ্যশিলা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক কামরুজ্জামান, মুন্সিপাড়ার জাকিরুল ইসলাম, হরিরামপুর ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি নুর মোহাম্মদ, ৭ নং ওয়ার্ডের সভাপতি গোলজার রহমান, গুড়গুড়ি মধ্যপাড়ার রাশেদুর রহমান সহ অনেকে বলেন- ঢাকা, নারায়নগঞ্জ, যশোহর, কুষ্টিয়া, ভেড়ামারা, পাবনা, বগুড়া সহ দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে ট্রাক নিয়ে হঠাৎ করে মধ্যপাড়া খনিতে পাথর নিতে আসছে। ট্রাক চালক-হেলপাররা খনি গেটের পাশর্^বর্তী হোটেলে খাওয়াদাওয়া করছে। নুন্যতম সামাজিক দূরত্বও মানা হচ্ছে না। যেহেতু দেশের করোনাভাইরাসের হটস্পট এলাকাগুলো থেকে ট্রাকগুলো আসছে, সেহেতু ট্রাক চালক-হেলপারদের মাধ্যমে করোনাভাইরাস সংক্রমণ মধ্যপাড়া এলাকায় ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তাই দায়িত্ববোধ থেকে এলাকার লোকজন রুখে দাড়ায়।
মধ্যপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পরিদর্শক সিরাজুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান- এখন থেকে প্রতিদিন একশত ট্রাকে পাথর পরিবহন হবে। নির্দিষ্ট দূরত্ব অবজায় রেখে প্রতিদিন সকাল ৮টায় ৬০টি ট্রাক খনি গেটের সামনের পার্কিং এ অবস্থান নিবে। এগুলোর ডেলিভেরি হয়ে গেলে বেলা ১ টায় ৪০টি ট্রাক একই জায়গায় অবস্থান নিবে।
মধ্যপাড়া গ্রানাইট মাইনিং কোম্পানীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবিএম কামরুজ্জামান জানান- উপর মহলের পরামর্শে রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র এবং সড়ক ও জনপদ বিভাগে পাথর সরবরাহ করা হচ্ছে।
দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মাহমুদুল আলম জানান- করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে মানুষকে বাঁচানো যেমন জরুরী, তেমনি মানুষের জীবিকার পথও সচল রাখা জরুরী। পাথর বিক্রি না হলে খনি শ্রমিকদের বেতন হবে কীভাবে। তাই সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই পাথর বিক্রির উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ