Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ঈদের আগে মানুষ কেনাকাট করতে পারেন সেই ব্যবস্থা করা হবে : প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৪ মে, ২০২০, ১১:২৯ এএম | আপডেট : ৪:৪০ পিএম, ৪ মে, ২০২০

রোজার মাসে ধীরে ধীরে সকল প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া হবে। রোজার মাস বলে অনেক কিছু খুলে দেয়া হয়েছে। ঈদের আগে মানুষ কেনাকাটা শুরু করতে পারবেন সে ব্যবস্থা করে দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
আজ সোমবার চলমান করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে রংপুর বিভাগের আট জেলার প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি, চিকিৎসকসহ স্বাস্থ্যকর্মী, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী এবং সেনাবাহিনীর প্রতিনিধিদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে মতবিনিময় কালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ কথা বলেন।
তিনি বলেন, মানুষকে সুরক্ষিত করে অর্থনীতির চাকা সচল করা হবে। ব্যবস্থা সচল রাখতে ১ লাখ কোটি টাকা প্যাকেজ ঘোষণা দেয়া হয়েছে। ১৫ মে পর্যন্ত ছুটি বাড়ানো হবে। সকলকে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে হবে সকলকে। বিপাকে পড়েছে দুধ উৎপাদনকারী খামারীরা। যারা ত্রাণ দিচ্ছেন তারা দুধ কিনে দিতে পারেন।
তিনি বলেন, গণমাধ্যম কমিরা আক্রান্ত হচ্ছেন। তাদের সচেতন থেকে কাজ করতে হবে। কৃষি আমাদের বড় সম্পদ। কোন ভাবেই দুর্ভিক্ষ দেখা দিতে পারে। সে জন্য ধান কাটার পরপর জমিতে নতুন ফসল লাগাতে হবে।
তিনি বলেন, রংপুর এলাকায় এখন আর মঙ্গা নাই। যাতে নতুন করে মঙ্গা দেখা না দেয় সে জন্য প্রশাসনের কর্মকর্তাদের দৃষ্টি রাখতে হবে। দেশে খাদ্যের কোন অভাব নেই। অভাব থাকবে না। পণ্য পরিবহনের জন্য রেল সেবা চালু করা হয়েছে।
সকাল ১১টায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে এই ভিডিও কনফারেন্স শুরু হয়। এতে রংপুর বিভাগের আট জেলার মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি এবং সংশ্লিষ্ট সবাই যুক্ত রয়েছেন। এছাড়া আট জেলার দায়িত্ব থাকা সচিবরাও যুক্ত থাকবেন ।
জেলাগুলো হচ্ছে- পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও দিনাজপুর, নীলফামারী, লালমনিরহাট, কুড়িগ্রাম, রংপুর এবং গাইবান্ধা জেলা।
বাংলাদেশ টেলিভিশন, বাংলাদেশ বেতারসহ বেসরকারি টিভি চ্যানেল এবং রেডিও স্টেশনগুলো এই ভিডিও কনফারেন্স সরাসরি সম্প্রচার করছে।
এর আগে শেখ হাসিনা করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে তিন দফা পৃথক ভিডিও কনফারেন্সে রাজশাহী, ঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা, সিলেট এবং বরিশাল বিভাগের জেলার সঙ্গে মতবিনিময় করেছেন।
ভিডিও কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রী জনগণকে স্বাস্থ্যবিধিসমূহ মেনে চলার আহ্বান জানানোর পাশাপাশি সংকট উত্তরণের জন্য বিভিন্ন প্রণোদনা প্যাকেজেরও ঘোষণা দেন।



 

Show all comments
  • শওকত আকবর ৪ মে, ২০২০, ১২:০৬ পিএম says : 0
    করোনাক্রান্তের কোন উন্নতি দেখছিনা।করোনা আরো ভয়াবহ রুপ ধারন করে কিনা,সে বিষয়ও ভাবতে হবে।ঘোষিত প্রনোদনা যেন খতিগ্রস্থরাই সুফল ভূগি হয়।এ খেত্রে দেশের প্রত্যান্ত গ্রামের খুদ্রব্যাবসায়ীরা যেন বাদ না পড়ে।
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃ সুমন ৪ মে, ২০২০, ২:২০ পিএম says : 0
    টাকা কে দিবে?
    Total Reply(0) Reply
  • শওকত আকবর ৪ মে, ২০২০, ২:৩৫ পিএম says : 0
    বঙ্গপ সাগর তীরবর্তি থেকে অফিসের ফোন পেয়ে জীবন বাজী রেখে ছুটে যাচ্ছে।গ্রামের লোক যেতে হবেনা সরকার বললেও অফিস বলছে আসতেই হবে।এর পরে রয়েছে পথে বিরাম্বনা।জানিনা কেমনে দুর্গম পথ পাড়ী দিয়ে গাজীপুর পৌছাবে।লন্চ ষ্টিমার নাই। নাই গনপরি বহন।আল্লাহ তুমিই ভরসা।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন