Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ০৮ জুলাই ২০২০, ২৪ আষাঢ় ১৪২৭, ১৬ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

মাঠে থুতু ফেললেই হলুদ কার্ড!

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ মে, ২০২০, ৬:৪০ পিএম

খুব শিঘ্রই ফিফার নতুন নির্দেশনা আসছে। এই নির্দেশনায় থাকছে, মাঠে থুতু ফেললেই হলুদ কার্ড! বিশ্ব ব্যাপী প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস আতঙ্ক মানুষকে সচেতন হওয়ার শিক্ষা দিয়েছে। সেই শিক্ষা এবার ক াজে লাগাচ্ছে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা। খেলার সময় স্বাস্থ্য সচেতনতার অংশ হিসেবে তারা ফুটবলারদের থুতু কিংবা মুখের পানি ফেলা নিয়ে সুনির্দিষ্ট আইন করতে যাচ্ছে। করোনা দুর্যোগ কেটে যাওয়ার পর যখন ফের ফুটবল শুরু হবে তখন কোনো ফুটবলারকে যদি দেখা যায় যে, মাঠে সে থুতু ফেলেছে কিংবা পানি পান করতে গিয়ে সেই পানি বাতাসে ছুঁড়ে দিয়েছে, তাহলে সঙ্গে সঙ্গেই দেখানো হতে পারে হলুদ কার্ড। মাঠে থুতু ফেললে হলুদ কার্ডের ধারণাটি এসেছে ফিফার মেডিক্যাল কমিটির কর্মকর্তাদের মাথা থেকে। স্বাস্থ্যসম্মতভাবে ফুটবল চালানোর কথা ভাবছে ফিফা। তাই তো ফিফা মেডিক্যাল কমিটির চেয়ারম্যান মাইকেল ডি হুগি হুঁশিয়ার করে দিয়েছেন, মাঠের মধ্যে থুতু কিংবা মুখ থেকে পানি ছিটিয়ে ফেলার ফলে করোনাভাইরাস ছড়াতে পারে। যার ফলে নতুন নিয়ম করা হবে, মাঠে থুতু ফেললেই রেফারি ওই ফুটবলারকে হলুদ কার্ড দেখাবেন। মূল কথা হচ্ছে, যে কোনো অস্বাস্থ্যকর কাজের জন্য হলুদ কার্ড চালু করার কথা চিন্তা করছে ফিফা।

করোনাভাইরাস আতঙ্কে আপাতত সব দেশের নামী ক্রীড়া আসরগুলো বন্ধ। স্থগিত রয়েছে ফুটবলের বিভিন্ন লিগ। ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপ এবং কোপা আমেরিকা পিছিয়ে দেয়া হয়েছে এক বছর। ইউরোপিয়ান লিগগুলো শুরু করা হবে কি হবে না, তার সিদ্ধান্ত নিতে পারছেন না কর্মকর্তারা।

জর্মানি, ইতালি, স্পেন এবং ইংল্যান্ড চিন্তা-ভাবনা করছে খেলা মাঠে ফিরিয়ে আনতে। যদিও ফ্রান্স লিগ শেষ না করেই পিএসজিকে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করে দিয়েছে। বাকিগুলোতে লিগ শুরু করা যাবে কিনা, তা ঠিক করতে ২৫ মে পর্যন্ত সময় দিয়েছে উয়েফা। ২৭ মে ৫৫টি দেশের ফুটবল ফেডারেশনের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে এ নিয়ে আলোচনা করবে ইউরোপিয়ান ফুটবলের অভিভাবক সংস্থা। এই ভিডিও কনফারেন্সে উয়েফা জানতে চাইবে, আগস্টের মধ্যে লিগগুলো শেষ করা যাবে কিনা? তবে সংশ্লিষ্ট দেশের পরিস্থিতি যদি খুব খারাপ হয় এবং সে দেশের সরকারই ফুটবল শুরুর ব্যাপারে নিশ্চয়তা দিতে না পারেন, সে ক্ষেত্রে তাদের জন্য ২৭ মে’র পরেও জানানোর সুযোগ থাকবে।

যদিও ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ কর্তৃপক্ষ আগামী ৮ জুন লিগ শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তাদের লক্ষ্য জুলাইয়ের শেষে লিগ শেষ করার। ইপিএলের মোট ৯২টি ম্যাচ বাকি আছে এখনও। দ্রুত লিগ শেষ করতে নির্দিষ্ট কিছু মাঠে খেলাগুলো চলতে পারে। এমনকি প্রস্তাব এসেছে খেলা শুরুর পর সপ্তাহে দু’‌বার সব ফুটবলার ও স্টাফদের করোনাভাইরাস পরীক্ষা করতে হবে। যার জন্য প্রিমিয়ার লিগ কর্তৃপক্ষকে খরচ করতে হবে ৪০ লক্ষ পাউন্ড।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফিফা

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন