Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৫ মে ২০২০, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০১ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

মধ্যপ্রাচ্য থেকে গণপ্রত্যাবাসনের মুখে বিদেশি শ্রমিকরা

রয়টার্স | প্রকাশের সময় : ৯ মে, ২০২০, ১২:০৩ এএম


সউদী আরবের প্রবাসী নিয়ন্ত্রিত কর্মী বাহিনীর আধিপত্য ‘সত্যই বিপদ’ বলে সতর্ক করে দেশটির এক জনপ্রিয় টক শো উপস্থাপক এ সপ্তাহে বেসরকারি ব্যবসায়ীদের বলেছেন, স্থানীয় কর্মীদের চেয়ে বিদেশীদের ছেড়ে দেয়া তাদের জাতীয় কর্তব্য।
তার দৈনিক টিভি শোতে খালেদ-আল-ওকিলির মন্তব্য উপসাগরীয় অর্থনৈতিক মেরুদন্ড সাড়ে ৩ কোটি বিদেশির দ্বিধাদ্ব›েদ্ব থাকা মুখগুলোকে আরো সঙ্কুচিত করে ফেলেছে। করোনাভাইরাস মহামারী এবং তেলের মূল্যহ্রাসের কারণে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান তাদের কর্মীদের চাকরিচ‚্যত করছে এবং সরকার নাগরিকদের চাকরি ও মজুরি রক্ষায় পদক্ষেপ নিয়েছে।
আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা (আইএলও) কোনও পরিসংখ্যান না দিয়ে বলেছে, ২০০৮-২০০৯ আর্থিক সঙ্কট এবং ২০১৪-২০১৫ সালের পরে এই অঞ্চলের প্রধান রফতানি পণ্য তেলের দাম কমার পর যেমন দেখা গিয়েছিল এবার প্রবাসীদের তার চেয়েও বড় ধরনের প্রত্যাগমনের আশঙ্কা করা হচ্ছে।
সরকারি তথ্য অনুযায়ী একমাত্র ওমানেই ২০০৮-২০০৯ সঙ্কটের পরে ২০১০ সালে প্রবাসীর সংখ্যা কমেছে ৩ লাখ ৪০ হাজারেরও বেশি। বিশ্বব্যাংকের তথ্য মতে সে বছর ওমানের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হ্রাস পেয়েছে ১.৩ শতাংশ পয়েন্ট। এবার প্রায় বহু বিদেশী কর্মী সুরক্ষা ব্যবস্থা ছাড়াই আটকা পড়েছেন, তবে উপসাগরীয় দেশগুলি তাদের ঘরে ফেরার উপায় বের করার চেষ্টা করছে। এই অঞ্চলের দূতাবাস এবং কর্তৃপক্ষের পরিসংখ্যান অনুসারে কয়েক হাজার অভিবাসী প্রত্যাবাসনের জন্য নিবন্ধন করেছেন, যাদের বেশিরভাগ এশীয়। স্বল্প আয়ের বিদেশী কর্মীদের ভিড়ে ঠাঁসা বাসস্থলে কোভিড-১৯ ছড়িয়ে পড়ছে।
পাকিস্তান ও ভারত উপসাগর থেকে নাগরিকদের সরিয়ে নেয়া শুরু করেছে। মিসর কুয়েত থেকে প্রত্যাবাসন ফ্লাইট শুরু করেছে, যেখানে নিরাপত্তা বাহিনী চলতি সপ্তাহে মিসরীয়দের একটি আবাসন কেন্দ্রে আবাসন আইন লঙ্ঘনকারীদের দাঙ্গা থামিয়ে দিয়েছিল।
আরব রাষ্ট্রসমূহে আইএলও-র সিনিয়র মাইগ্রেশন বিশেষজ্ঞ রিসজার্ড চোলউইনস্কি বলেছেন, সংযুক্ত আরব আমিরাত, কুয়েত এবং কাতারে এই সংখ্যাটি ‘খুব উল্লেখযোগ্য হতে পারে’।
ভাইরাস সংক্রমণে শিক্ষা কেন্দ্রগুলো বন্ধ করার পরে সংযুক্ত আরব আমিরাত ত্যাগের জন্য নিবন্ধিত ৬০ হাজার পাকিস্তানির একজন ফরমান দুই মাস আগে তার স্কুল বাসচালকের চাকরি হারিয়েছেন। দুবাইয়ের আল-কোজ শিল্পাঞ্চলে আবাসের সামনে মøান আলোকিত রাস্তায় দাঁড়িয়ে তিনি বলছিলেন, ‘আমি বাড়ি যেতে চাই, কারণ কাজ না করে থাকার মানে কী?’
কেবল নীল-কলার (অদক্ষ) কর্মীরা নয় যাদের করোনাভাইরাস চেপে ধরেছে, বরং অনেক যোগ্য পেশাদারকেও রেহাই দেয়া হয়নি। মিসর-আমেরিকান স্থপতি নাদা করিম বলেন, ‘আপনি অনলাইনে যান, আপনি হাজার হাজার চাকরির জন্য আবেদন করেন, তবে তা সব শেষ হয়ে গেছে’। নাদা দুবাইতে নতুন চাকরি শুরু করতে যাবেন এমন সময় সংস্থা নিয়োগ বন্ধ করে দেয়। তিনি বলেন, ‘আমি বেতন ছাড়াই দুই বা তিন মাস এখানে বেঁচে থাকতে পারি, তারপরে আমাকে চলে যেতে হবে’।
সউদী আরবের একটি বিজ্ঞাপন সংস্থায় কর্মরত লেবানিজ-কানাডিয়ান সমেরকে ছয় মাসের জন্য বিনা বেতনে ছুটিতে পাঠানো হয়েছে এবং পরিস্থিতি উন্নতি না হলে কানাডায় চলে যাওয়ার কথা ভাবছেন। ‘যখন আপনি হঠাৎ আপনার ভবিষ্যতের পরিকল্পনা করতে না পারেন তখন এটি খুব বিভ্রান্তিকর এবং উদ্বেগজনক হয়’, -তিনি বলেছিলেন।
মন্দা
আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল বলেছে, মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলো ২০০৮ সাল এবং ২০১৪-১৫ সালের মন্দা কাটিয়ে উঠলেও করোনভাইরাসে বন্ধ হয়ে দ্বিগুণ আঘাতের শিকার হওয়ায় এবং তেলের দাম কমে যাওয়ায় এ বছর আবারো মন্দার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে।
নমুরা অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট মিডিল ইস্টের তারেক ফাদল্লাল্লাহ বলছেন, ‘খুব কম বিদেশ যাত্রা, পিজ্জা থেকে ভিলা পর্যন্ত সমস্ত কিছুর চাহিদা কমিয়ে দেবে এবং বিপদটি হ’ল এর ফলে মাধ্যমিক চাকরির ক্ষতি হ্রাসের ফলে মারাত্মক বিচ্ছিন্নতার প্রভাব পড়বে’।
সরকারি বেকারত্বের ডেটা পাওয়া যায় না, তবে বেশ কয়েকটি উপসাগরীয় এয়ারলাইনস এবং রাইড শেয়ারিং ফার্ম ক্যারিম জানিয়েছে যে, তারা কয়েকশ’ কর্মী ছাঁটাই করছে।
ব্যবসায় ও পর্যটন কেন্দ্র দুবাই এই বছর এক্সপো বিশ্ব মেলার আয়োজক থেকে অর্থনৈতিক উন্নয়নের প্রত্যাশা করছিল, তবে মহামারীজনিত কারণে এই ইভেন্টটি ২০২১ সালের অক্টোবর পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে। রয়টার্সের অভ্যন্তরীণ নথি অনুসারে, গত সপ্তাহে এক্সপো-২০২০ দুবাই ১৭৯ জন কর্মীকে অনাবশ্যক ঘোষণা করেছে। এক্সপো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।
ওয়াশিংটনের আরব গালফ স্টেটস ইনস্টিটিউটের আবাসিক পন্ডিত রবার্ট মোগিলেনিকি বলেছেন, ‘প্রবাসীরা কেবল মেশিনে কোগ নয় - তারা মূলধনের গার্হস্থ্য পুনর্ব্যবহারে একটি অবিচ্ছেদ্য ভ‚মিকা পালন করে’।
সংস্কার
বিশ্লেষকরা বলেছেন যে, বিদেশ যাত্রা ফি ও মূল্য সংযোজন কর এবং মজুরি ও ভর্তুকিতে রাষ্ট্রীয় ব্যয় হ্রাসসহ ধীর সংস্কার প্রচেষ্টা থেকে সরকারি আয়কে হ্রাস করতে পারে। কুয়েতে একাধিক সংসদ সদস্য সতর্ক করেছেন যে, তারা বেসরকারি সংস্থাগুলোকে নাগরিকদের বেতন কমিয়ে দেয়ার যে কোনও খসড়া আইন বাতিল করবেন। উপসাগরীয় রাজ্যগুলি সম্ভবত ‘জাতীয়করণ’ কর্মসূচি ত্বরান্বিত করবে। ওমান গত মাসে রাষ্ট্রীয় সংস্থাগুলোকে বিদেশি কর্মচারীদের পরিবর্তে স্থানীয় নাগরিগদের নিয়োগের আদেশ দিয়েছে। তবে এর ফলে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির ঊর্ধ্বগতি আরও জটিল হয়ে উঠতে পারে বলে বিশ্লেষকরা বলেছেন।
উপস্থাপক ওকাইলি রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন এসবিসি টিভিতে প্রচারিত একটি অনুষ্ঠানে সউদী ব্যবসায়ীদের প্রবাসীদের ধরে রাখার সমালোচনা করে বলেছিলেন, ‘দেশটির প্রতি আনুগত্যের বিষয়ে কোনও লজ্জা নেই এবং কিছুই জানে না’।
তিনি বলছিলেন, ‘আমাদের প্রতিটি সঙ্কটসহ সউদী কর্মচারীকে বলির ছাগল বানানো বন্ধ করতে হবে’।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সউদী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ