Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১২ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

শিগগির ইসরাইলের সংযুক্তিকরণ পরিকল্পনা শান্তি স্বপ্নের অবসান ঘটাবে: ফিলিস্তিন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ মে, ২০২০, ১২:২৯ পিএম

ফিলিস্তিনের একজন শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তা বলেছেন, ইহুদিবাদী ইসরাইল যদি পশ্চিম তীরকে সংযুক্তিকরণের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করে তাহলে কথিত দুই রাষ্ট্রভিত্তিক সমাধানের প্রচেষ্টা চিরতরে বানচাল হয়ে যাবে। তিনি বলেন, ইসরাইল যে শান্তির স্বপ্ন দেখে শিগগির সেই স্বপ্নেরও অবসান হবে।

গতকাল (রোববার) ফিলিস্তিন তথ্যকেন্দ্রকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে প্যালেস্টাইন ন্যাশনাল ইনিশিয়েটিভের মহাসচিব মোস্তফা বারগুসি এসব কথা বলেছেন। তিনি বলেন, পশ্চিম তীরকে সংযুক্ত করার পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হলে দুটি স্বপ্নের অবসান হবে। প্রথমত ইসরাইল এবং ফিলিস্তিনের মধ্যস্থতাকারী হিসেবে আমেরিকা থাকতে পারবে না এবং ইহুদিবাদী ইসরাইলের সঙ্গে শান্তিতে পৌঁছানো অসম্ভব হয়ে পড়বে। ইসরাইলের এই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হলে তার অর্থ হবে এই যে, তারা পুরো ফিলিস্তিন এবং জর্দানকে কে গ্রাস করতে চাই।

ইহুদিবাদী ইসরাইলের যুদ্ধবাজ প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু আগামী পহেলা জুলাই থেকে ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীর যুক্ত করার ব্যাপারে ইসরাইলের মন্ত্রিপরিষদের আলোচনা শুরুর জন্য সময় নির্ধারণ করেছেন। এ প্রসঙ্গে মোস্তফা বারগুসি বলেন, যারা ইসরাইলের সঙ্গে শান্তি প্রক্রিয়া এগিয়ে নিতে চায় তাদের সবার জন্য এই পরিকল্পনা একটি বার্তা বহন করে। তিনি বলেন, “বাস্তবতা হচ্ছে ফিলিস্তিনিরা একটি চলমান সংগ্রাম এবং লড়াইয়ের ভেতরে রয়েছে। এ সময় ফিলিস্তিনিদেরকে অবশ্যই সমস্ত মতভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে কারণ ইসরাইল চেষ্টা করবে আমাদেরকে বিচ্ছিন্ন রাখতে যাতে আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে ইসরাইলের বিরুদ্ধে সংগ্রাম করতে না পারি।”
 
সূত্র: পার্সটুডে



 

Show all comments
  • jack ali ১১ মে, ২০২০, ১২:৪২ পিএম says : 0
    O´Allah wipe out cancerous Israel from Palestinian Land fore ever and Inflict corona virus to barbarian Trump. Ameen
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফিলিস্তিন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ