Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১৩ কার্তিক ১৪২৭, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

শ্রীলঙ্কা মুসলিমদের কফিনও পুড়িয়ে ফেলছে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ মে, ২০২০, ১১:১১ এএম

শ্রীলঙ্কার মুসলিমরা করোনাভাইসের প্রকোপের মধ্যেও অন্যরকম এক ভয়াবহ সময় পার করছেন। গত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পর থেকে তাদের অবস্থা খারাপ হচ্ছে। দিন দিন কঠিন হয়ে পড়ছে সেখানে জীবনযাপন। মানতে পারছেন না ইসলামের বিধানসমূহ।
জানা গেছে, করোনাভাইরাসে মারা না গেলেও সংখ্যালঘু মুসলিমদের কফিন পুড়িয়ে ফেলতে বাধ্য করছে শ্রীলঙ্কা। এই অভিযোগ এনে ন্যায়বিচারের দাবি করেছেন দেশটির স্বজনহারা মুসলিমরা। যদিও করোনায় মৃতদের লাশ পুড়িয়ে ফেলা বা মাটিতে সমাধিস্থ করা যাবে বলে নির্দেশনা রয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও)। সোমবার কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরার এক প্রতিবেদনের এ তথ্য জানানো হয়েছে।

জানা গেছে, বায়োলজিক্যাল ঝুঁকির অজুহাতে নতুন এই নির্দেশনার গেজেট গত ১১ প্রকাশ করে শ্রীলঙ্কা সরকার। ফলে মুসলিমদের লাশ পুড়িয়ে ফেলছে দেশটি। এতে ওই দেশের সংখ্যালঘু মুসলিম সম্প্রদায়ের মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে।

শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বোর জুবাইর ফাতিমা রিনোসার শোকগ্রস্ত পরিবার ন্যায়বিচার এবং ব্যাখ্যা দাবি করেছেন; ৪৪ বছর বয়সী এই নারীর শবদাহ সম্পন্ন হওয়ার দু´দিন পর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। রিনোসার চার সন্তানের একজন মোহাম্মদ সাজিদ বলেছেন, দাফনের ইসলামিক ঐতিহ্য উপেক্ষা করে সব করোনা রোগীর লাশ পোড়ানোর বিষয়ে শ্রীলঙ্কার সরকারের বিতর্কিত বিধান অনুযায়ী তার মায়ের শবদাহ সম্পন্ন হয় গত ৫ মে।
কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশটিতে এ পর্যন্ত সাতজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে। তাদের মধ্যে তিনজন মুসলমানও রয়েছে। তবে তাদের আত্মীয়-স্বজনদের প্রচণ্ড বিরোধিতা সত্ত্বেও তাদের লাশ পুড়িয়ে ফেলা হয়।

ইসলাম ধর্মের রীতি অনুযায়ী, কোনো মুসলিম মারা গেলে তাকে গোসল ও জানাজা শেষে কবর দিতে হবে। এমনকি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও (ডব্লিউএইচও) বলেছে, করোনায় মৃতদের লাশ পুড়িয়ে ফেলা বা মাটিতে সমাধিস্থ করা যাবে।

তবে ডব্লিউএইচও´র এই নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে এককভাবে মুসলমানদের লাশ পুড়িয়ে ফেলছে শ্রীলঙ্কা সরকার। দেশটিতে এ পর্যন্ত দুইশোর অধিক করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা গেছে। এই অবস্থায় দেশজুড়ে অনির্দিষ্টকালের জন্য কারফিউ জারি করেছে সরকার।



 

Show all comments
  • jack ali ১২ মে, ২০২০, ১১:৪০ এএম says : 0
    May Allah´s curse on Srilanka´s government. How dare they are burning our muslim deadbody... reason behind we the muslim are not united under one banner of Islam, we are divided and fighting each other.
    Total Reply(0) Reply
  • Akbar Khan ১২ মে, ২০২০, ১২:৩১ পিএম says : 0
    Hey Allah Muslim Vai Bon Der Ek Baniya Ai Jalimder Dongso Korar Moton Tawfiq Daw.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ