Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১৩ কার্তিক ১৪২৭, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

অর্ধকোটির ঘরে মুশফিকের ব্যাট

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৩ মে, ২০২০, ১২:০৩ এএম

নিলাম শেষ হতে বাকি এখনো দুই দিন। ঘণ্টা ও সেকেন্ডের হিসাব কষলে আরও বেশি। এর মধ্যেই সাকিব আল হাসানের ব্যাটকে টেক্কা দিল মুশফিকুর রহিমের ব্যাট।
করোনাভাইরাসে দুর্গতদের সাহায্যার্থে ২০১৯ বিশ্বকাপে খেলা ব্যাট নিলামে বিক্রি করেছেন সাকিব। ২০ লাখ টাকায় বিক্রি হয়েছিল সেই ব্যাট। এদিকে ২০১৩ সালে গল টেস্টে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দেশের হয়ে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরির ব্যাটটি নিলামে তুলেছিলেন মুশফিক। নিলাম শেষ হওয়ার দুই দিন বাকি থাকতেই এ ব্যাটের দাম উঠেছে ৪০ লাখ টাকা। মুশফিকের ইতিহাস গড়া এই ‘এস এস’ ব্যাট ছুঁতে পারবে অর্ধকোটির ঘর?
সময় হলেই তা দেখা যাবে। আপাতত করোনাভাইরাসের বিপক্ষে লড়াইয়ে দেশের ক্রিকেটাররা ব্যক্তিগত যা কিছু নিলামে তুলেছেন, সেসবের মধ্যে মুশফিকের এই ব্যাটের দামই উঠল সবচেয়ে বেশি। নিজের অফিশিয়াল ফেসবুক অ্যাকাউন্টে সরাসরি এ নিলামের লিংক দিয়েছেন মুশফিক। ব্যাটের দাম কত উঠছে, সেখানে তা দেখে নিচ্ছেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। এ পর্যন্ত ৫২ বার মুশফিকের ব্যাটের দাম হাঁকা হয়েছে। নিলামে ব্যাটের ভিত্তি ম‚ল্য ছিল ৬ লাখ টাকা। অনলাইনভিত্তিক বাণিজ্যিক ওয়েবসাইট পিকাবুতে মুশফিকের ব্যাটটি নিলামে তোলা হয়েছে।
২০১৬ সালে সিডনিতে স্থানীয় দোকানে একটি ক্রিকেট ব্যাটে সই করেছিলেন বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা। ১৫ জনের বেশি ক্রিকেটার সই করেছিলেন সেই ব্যাটে। সেই ব্যাট হাতবদল হয়ে কাল অকশন ফর অ্যাকশনে নিলাম করে বিক্রি হয়েছে তিন লাখ টাকায়। এই টাকা সাকিব আল হাসান ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে করোনা দুর্গতের সাহায্যে ব্যয় করা হবে। এ ছাড়া নিলামে উঠেছে অন‚র্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক আকবর আলীর জার্সি ও গøাভস, মোসাদ্দেক হোসেন, নাঈম শেখের ব্যাট, মাশরাফি বিন মুর্তজার সই করা ক্যাপ, ২০১১ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড়দের সই করা একটি ব্যাট।

 



 

Show all comments
  • তফসির আলম ১৩ মে, ২০২০, ২:৫৬ এএম says : 0
    খুব ভালো
    Total Reply(0) Reply
  • বাবুল ১৩ মে, ২০২০, ২:৫৬ এএম says : 0
    টাকাগুলো যেন যথাযথভাবে কাজে লাগানো হয়
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মুশফিক

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন