Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৩ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

শ্রীনগর থানায় চাঁদাবাজির মামলা করতে এসে ধরা পরল ধর্ষক

শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৪ মে, ২০২০, ৬:৪৯ পিএম

সিরাজ বেপারী (৬০) নামে এক ব্যক্তি স্থানীয় কয়েকজনের বিরুদ্ধে শ্রীনগর থানায় চাঁদাবাজির মামলা করতে এসে ধরা পরল এক ধর্ষক। বৃস্পতিবার দুপুরে এমনি ঘটনা ঘটেছে শ্রীনগর উপজেলার রাঢ়ীখাল এলাকার উত্তর বালাশুর গ্রামে। ধর্ষক সিরাজ বেপারী ওই গ্রামের আব্দুল মজিদ বেপারীর পুত্র ও স্থানীয় নতুন বাজারে একজন গুর ব্যবসায়ী।
এলাকাবাসী ও থানা সূত্রে জানা যায়, সিরাজ বেপারী নতুন বাজার এলাকার দিনমজুর একটি পরিবারের সাথে সুম্পর্ক গড়ে উঠে। এই সূত্রে ওই পরিবারের সাথে তার সক্ষতা। এই সুযোগে ওই পরিবারের দিনমজুরের ৭ বছরের কন্যা শিশুকে ফুসলিয়ে ফাসলিয়ে বাজারের একটি দোকানে ধর্ষণ করে সিরাজ বেপারী। বিষয়টি স্থানীয় কয়েকজন টের পেলে দুষ্ট সিরাজ তাদেরকে ধমন করতে থানায় চাঁদাবাজির মামলা করতে আসে। এবিষয়ে থানা পুলিশ তদন্তে গেলে সিরাজের অপকর্মের বিষয়টি উঠে আসে। ধর্ষণের একটি ভিডিও ফুটেজও উদ্ধার করা হয়েছে। পরে সিরাজ বেপারীকে আটক করে শ্রীনগর থানা নিয়ে আসা হয়। ধর্ষণের স্বীকার ওই কন্যার মাতা সূর্যবান বলেন, এঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করবো।
এব্যাপারে শ্রীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. হেদায়াতুল ইসলাম ভূঞা বলেন, ধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দিতে সিরাজ বেপারী নামে এক ব্যক্তি কয়েকজনের বিরুদ্ধে ৫ লাখ টাকার চাঁদাবাজির মামলা করতে আসে। বিষয়টি আমার সন্দেহ হলে তদন্ত শুরু করি। পরে জানাযায় ওই এলাকার একটি পরিবারের সাথে তার সুস্পর্ক গড়ে উঠেছে। এই সুযোগে ওই পরিবারের ৭ বছরের শিশু কন্যাকে সে ধর্ষণ করে। স্থানীয়রা ঘটনাটি তের পেলে কয়েকজনের বিরুদ্ধে সে থানায় চাঁদাবাজির মামলা করতে আসে। সিরাজ বেপারীর কাছ থেকে ধারনকৃত ধর্ষণের একটি ভিডিও উদ্ধার করা হয়েছে। এঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চাঁদাবাজি

১১ এপ্রিল, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ