Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২০ জানুয়ারি ২০২১, ০৬ মাঘ ১৪২৭, ০৬ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

নিরাপত্তা পরিষদে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে নিন্দা, এবারও চীনের প্রত্যাখ্যান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ মে, ২০২০, ৪:১৪ পিএম

বৈশ্বিক করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও মিয়ানমার সেনাবাহিনী ও বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মির মধ্যে চলছে বড় ধরনের সংঘাত। এতে মারা যাচ্ছে বহু বেসামরিক নাগরিক। আর এ সহিংসতায় উদ্বেগ জানিয়ে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে নিন্দা প্রস্তাব জানিয়েছে যুক্তরাজ্য এবং ইউরোপের ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলো। তবে কূটনৈতিক সূত্রে বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, নিরাপত্তা পরিষদে চীন এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে।

দেশটির উত্তরপশ্চিম রাজ্যে অধিকতর স্বায়ত্বশাসনের দাবি জানিয়ে আসা জাতিগতভাবে রাখাইন বৌদ্ধ বিদ্রোহীদের সঙ্গে নৃশংস গৃহযুদ্ধে জড়িয়ে পড়ছে মিয়ানমার সেনাবাহিনী।

এক বিবৃতিতে যুক্তরাজ্য জানায়, এই সংঘাত ইতিমধ্যে অভ্যন্তরীণ বাস্তুচ্যুতি, মানবিক সহায়তার ওপর অতিরিক্ত বিধিনিষেধ এবং বেসামরিক হতাহতের সংখ্যা বাড়িয়ে তুলেছে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য বেলজিয়াম, এস্তোনিয়া, ফ্রান্স এবং জার্মানিও একই ধরনের উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তারা মিয়ানমারজুড়ে অতিসত্ত্বর যুদ্ধ বিরতির আহ্বান জানায়।
রোহিঙ্গা মুসলিমদের কথা উল্লেখ করে তারা জানায়, আমরা দেশটিতে মহামারী প্রতিরোধের গুরুত্বের ওপর জোর দিচ্ছি। যাতে ঝুঁকিতে থাকা সব ধরনের শরণার্থী এবং অভ্যন্তরীণভাবে বাস্তচ্যুত সম্প্রদায়ের সুরক্ষা নিশ্চিত করা সম্ভব হয়।
তবে নিরাপত্তা পরিষদে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে এই প্রস্তাবে সমর্থন দেয়নি চীন। এর আগে মিয়ানমার পরিস্থিতি নিয়ে নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয় গত ফেব্রুয়ারিতে। তখন দেশটিতে জাতিসংঘের হস্তক্ষেপের বিষয়ে বিরোধিতা করে চীন এবং ১৫ সদস্যের যৌথ বিবৃতি গ্রহণে বাধা দেয়।



 

Show all comments
  • jack ali ১৫ মে, ২০২০, ৪:৫৪ পিএম says : 0
    Allah [SWT] mentioned that muslim only fear Allah. Now muslim around the world are prosecuted because all the so called muslim countries rulers are Murtard/Munafiq/Taghut/Coward as such millions of Muslims are getting killed/raped/evicted from their dwelling place. Myanmar declared war on us and we are asking help from kafir, kafirs are all united under one banner, they hate muslim and Islam because of these so called muslim countries rulers. We must train Rohingya muslim and send them to fight the barbarian Aung Sun Suchi and her barbarian army. and liberate Arakan from the clutch of Barbarian Myanmar
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নিরাপত্তা পরিষদ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ