Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

শেরপুরে সাধারণ মানুষ দিতে চাচ্ছে না নমুনা, ৫০৭ নমুনা পেন্ডিং ময়মনসিংহ মেডিক্যালে

আক্রান্তদের প্রায় সবাই পুলিশ ও স্বাস্থ বিভাগের লোক

শেরপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৬ মে, ২০২০, ১২:৫৬ পিএম

শেরপুর জেলায় গত এক সপ্তাহে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৯ জন। এদের সবাই পুলিশ ও স্বাস্থ্য বিভাগে কর্মরত কর্মকর্তা কর্মচারী এবং তাদের পরিবারে লোকজন। এতে সঙ্কা প্রকাশ করা হচ্ছে সাধারণ মানুষের মধ্য থেকেই এদের মধ্যে করোনা সংক্রমিত হয়েছে।

কিন্তু সাধারণ মানুষও করতে চাচ্ছেনা করোনা পরীক্ষা। তাদের মধ্যে সচেতনতার অভাব ও আতঙ্ক থাকায় মানুষ করোনা পরীক্ষা করানো থেকে পিছিয়ে আছে । এতে করোনা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এদিকে নমুনা জটের কারণে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজে শেরপুর জেলার করোনার নমুনা গুলো পরীক্ষা করা হচ্ছেনা। গত ৩দিনে পরীক্ষা করা হয়নি শেরপুরের নমুনা। গতকাল পর্যন্ত ৫শ৭টি নমুনা জমা হয়েছে।

এসব কারণে বুঝা যাচ্ছেনা, শেরপুরের করোনার পরিস্থিতি।

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা শেরপুরে করোনা দ্রতি ছড়িয়ে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন।

সর্বশেষ শেরপুর জেলায় ৪১জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এরপর থেকেই শেরপুর জেলায় ধীরগতিতে নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। আর ৩দিন থেকেই পরীক্ষা করাই হচ্ছে না। ফলে দিনের পর দিন পরে আছে নুমনা।



 

Show all comments
  • শওকত আকবর ১৬ মে, ২০২০, ১:৪০ পিএম says : 0
    কিছুটা উপসর্গ দেখা না গেলে তার নমুনা পরিখ্খা দরকার?এমনিতেই হাল্কা উপসর্গ থাকলে বাসায় নিরাপদে স্বাস্থবিধি মেনে চললেই নাকি ভালো হয়ে যায়।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ