Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০, ২৬ আষাঢ় ১৪২৭, ১৮ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

নোয়াখালীতে করোনায় আক্রান্ত আরও ২২, জেলায় মোট ১১৯, জনমনে আতঙ্ক

নোয়াখালী ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৬ মে, ২০২০, ৩:১৫ পিএম

স্বাস্থ্যকর্মী, ওষধ কোম্পানীর কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ নোয়াখালীতে আরও ২২জনে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এনিয়ে এ জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১১৯জন।

শনিবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন নোয়াখালীর সিভিল সার্জন ডা. মো. মোমিনুর রহমান। তিনি বলেন, নতুন আক্রান্তদের মধ্যে নোয়াখালী বেগমগঞ্জে ১০, কবিরহাটে ৬ ও চাটখিলে ৬জন রয়েছেন। করোনা মুক্ত হয়েছেন সোনাইমুড়ীতে ১, বেগমগঞ্জে ৪, সদরে ২ ও চাটখিল উপজেলায় ৪জন। আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ১০৫জন।

কবিরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. ফজলুল হক বাকের অপু বলেন, নতুন করে আক্রান্তদের মধ্যে রয়েছেন উপজেলার বাটইয়া ইউনিয়নের আশ্রাফপুর গ্রামের বাসিন্দা ও কমিউনিটি ক্লিনিকের হেলথ্ প্রোভাইডার একজন, বাটইয়া গ্রামের ৪জন, নরোত্তমপুর ইউনিয়নের মনিনগর গ্রামের এক যুবক। আক্রান্তদের বাড়ী লকডাউন করে তাদের সংস্পর্শে আসা বাকীদের নমুনা সংগ্রহ করা হবে। তাদের শারীরিক অবস্থার প্রেক্ষিতে আইসোলেশনের ব্যবস্থা করা হবে। উপজেলায় মোট আক্রান্ত ১২জন।

চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. খন্দকার মোশতাক আহমেদ জানান, উপজেলায় নতুন করে আরও ৬জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। যার মধ্যে চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একজন অফিস সহকারি, মিজি বাড়ীর সাঈদ ম্যানশনের এক কিশোর, একই বাসার বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস এর একজন মেডিকেল রিপ্রেজেন্টেটিভ, ইউরো ফার্মাসিটিক্যালসের একজন এরিয়া ম্যানেজার, কামাল ম্যানশনের গ্লোব ফার্মাসিউটিক্যালসের একজন এমপিও ও একজন সেলস রিপ্রেজেন্টেটিভ রয়েছেন। উপজেলায় মোট আক্রান্ত ১১জন।

বেগমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. অসীম কুমার দাস বলেন, নতুন করে উপজেলায় আরও ১০জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এদের মধ্যে রয়েছেন চৌমুহনী পৌরসভার ৪জন, জীরতলি ইউনিয়নের ৪জন, হাজীপুর এলাকার একজন ও ঘাটলা এলাকার একজন। আক্রান্তদের বাড়ীগুলো লকডাউন ঘোষনা করে তাদের আইসোলেশনের ব্যবস্থা করা হবে। উপজেলায় এপর্যন্ত মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৬১জন।

উল্লেখ্য, জেলায় মোট করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১১৯জন। যার মধ্যে জেলার বেগমগঞ্জে ৬১জন, সদরে ১৬জন, কবিরহাটে ১২, চাটখিলে ১১, সোনাইমুড়ীতে ১১জন, হাতিয়ায় ৫জন, সেনবাগে ১জন, কোম্পানীগঞ্জ ১ ও সুবর্ণচর উপজেলায় ১জন রয়েছেন। এদের মধ্যে মারা গেছেন সোনাইমুড়ীতে মোরশেদ আলম (৪৫) নামে এক ইতালি প্রবাসী, সেনবাগে এক রাজমিস্ত্রী মো. আক্কাস (৪৮) ও বেগমগঞ্জে তারেক হোসেন (৩০) নামের এক ব্যবসায়ী।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ