Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০ আশ্বিন ১৪২৭, ০৭ সফর ১৪৪২ হিজরী

আইসিসি ইভেন্ট চায় আয়ারল্যান্ড-স্কটল্যান্ড

দ্য টেলিগ্রাফ | প্রকাশের সময় : ১৮ মে, ২০২০, ১২:০১ এএম

দীর্ঘ প্রায় দুই মাস ‘কোয়ারিন্টিন’ থেকে বেরিয়েছে ক্রীড়াঙ্গণ। তা-ও সেটি ফুটবল। এখনও ঘরবন্দী ক্রিকেটসহ অন্যান্য খেলাধূলা। কারনটি সবারই জানা, কোভিড-১৯। মহামারি করোনাভাইরাসের প্রাদূর্ভাবে এরই মধ্যে একে একে পিছিয়ে গেছে কিংবা বাতিল হয়েছে অলিম্পিকসহ বেশ কিছু মেগা ইভেন্ট। তবে এর মাঝে এখনও কিঞ্চিত আশার সলতে বাঁচিয়ে রেখেছে টি-২০ বিশ^কাপ। যদিও পরিস্থিতি যেদিকে গড়াচ্ছে তাতে করে আগামী অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে সেটিও মাঠে গড়ানো নিয়ে আছে ঘোর শঙ্কা।
ক্রিকেটের এই দুর্দিনে আলোর রোশনাই ছোটাতে চায় দুই মিনোজ আয়ারল্যান্ড আর স্কটল্যান্ড। এমন সঙ্কট ভবিষ্যতেও দেখা দিতে পারে ভেবে আইসিসি ইভেন্টগুলোর আয়োজনে আশা প্রকাশ করেছে দেশ দু’টি। এমনই এক সংবাদ ছেপেছে প্রভাবশালী ইংলিশ পত্রিকা ‘দ্য টেলিগ্রাফ’।

যদিও মেগা ইভেন্টের খুব একটা অভিজ্ঞতা নেই ক্রিকেটের চমক জাগানো দেশ দুটির। এর আগে কেবলমাত্র বিশ^কাপের দুটি ম্যাচ আয়োহন করেছে স্কটল্যান্ড। তাও সেটি ১৯৯৯ সালে। সেবছরই আরেক সহযোগী দেশ আয়ারল্যান্ড পায় একটি ম্যাচ আয়োজনের সুযোগ। এর পর কেটে গেছে দুই দশকেরও বেশি সময়। আইসিসির কোনো ইভেন্টের স্বপ্নের আয়োজক হতে পারেনি আইরিশ কিংবা স্কটিশরা। এবার তাই উঠে পড়ে লেগেছে দেশ দু’টি। বিশেষকরে ২০২৩ থেকে ২০৩১ সালের মধ্যে নিজেদের ভেন্যুগুলোকে সংস্কার করে আন্তর্জাতিক মানে রূপান্তরিত করেই আইসিসি ইভেন্টের ম্যাচ আয়োজনে আগ্রহী দেশটি বলে জানিয়েছে ‘দ্য টেলিগ্রাফ’।

স্কটল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী গাস ম্যাককে সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘আমরা আমাদের নাম আগ্রহী তালিকায় দিয়েছি। পর্যায়ক্রমে আইসিসি ইভেন্টগুলো পাওয়ার ব্যপারে সবরকমের চেষ্টা করছি।’ একই সুর শোনা গেল আয়ারল্যান্ড ক্রিকেটের সিইও ওয়ারেন ডিউট্রমের কণ্ঠেও, ‘আমরা যৌথভাবে (স্টল্যান্ডকে সাথে নিয়ে) আইসিসি ইভেন্ট আয়োজনের আশা প্রকাশ করে সংস্থাকে চিঠি দিয়েছি।’ যদিও তারা আশা দেখছে আয়ারল্যান্ড এবং ইয়ল্যান্ডের সঙ্গে আসর আয়োজনের।

আগামী ২০২৩-৩১ সালের এফটিপিতে (ফিউচার ট্যুর প্রোগ্রাম) প্রায় ২৮টি ইভেন্ট আয়োজনের পরিকল্পনা আছে আইসিসির।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আইসিসি


আরও
আরও পড়ুন