Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০, ২৬ আষাঢ় ১৪২৭, ১৮ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

লকডাউন না করলেও কড়া অভিবাসী সতর্কতা সাফল্য এনে দিয়েছে তাইওয়ানকে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ মে, ২০২০, ১১:৩৪ এএম

গণতান্ত্রিক দ্বীপরাষ্ট্র তাইওয়ান সুদক্ষ হাতে দেশে কোভিড–১৯–এর সংক্রমণ মোকাবিলা করেছে। জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য মতে, ২৫ মিলিয়ন জনসংখ্যার এই ছোট্ট দ্বীপে এ পর্যন্ত মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪৪০জন এবং মারা গিয়েছেন ৭ জন। -আল জাজিরা, নিউজ এশিয়া
প্রায় একই জনসংখ্যার আরেক দ্বীপরাষ্ট্র তথা মহাদেশ অস্ট্রেলিয়ায় মোট আক্রান্ত ৭০০০–এর বেশি এবং মারা গিয়েছেন ৯৮ জন। জানা গেছে, করোনা মোকাবিলার প্রাথমিক পদক্ষেপ হিসেবে জানুয়ারিতেই চীনের মূল ভূখণ্ড থেকে যাত্রীদের আনাগোণায় নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল তাইওয়ান। তাইওয়ান বন্দরে পণ্যবাহী বা যাত্রীবাহী, কোনও ধরনের জাহাজ নোঙর করাতেও নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছিল। মার্চের মধ্যেই মাস্ক উৎপাদন সারা দেশে বাড়িয়ে দিয়েছিল দেশটির সরকার। কড়া লকডাউনও অন্যান্য দেশের মতো কখনও জারি হয়নি তাইওয়ানে।
তাইওয়ানের করোনা মোকাবিলার অভিজ্ঞতা অন্যান্য দেশগুলোর সঙ্গে ভাগ করে নেয়ার আশায় আগামী সপ্তাহে হতে চলা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সদস্যদের বার্ষিক সম্মেলন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংগঠন বা ডব্লিওএইচএ–তে যোগ দিতে চাইছে তাইওয়ান।
দ্বীপরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট সাই ইং–ওয়েনও এক টুইট বার্তায় লিখেছেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য নেটওয়ার্কের একটা অংশ তার দেশও। তাই বিশ্বে কোভিড–১৯ মোকাবিলায় নিজেদের অভিজ্ঞতা ভাগ করে নিতে চান তারা। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সদস্য দেশ না হলেও বিশ্ব স্বাস্থ্য সম্মেলনে তাইওয়ানের যোগ দেয়াকে সমর্থন জানিয়েছে জাপান, আমেরিকা, নিউ জিল্যান্ডসহ বেশ কয়েকটি রাষ্ট্র।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ