Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ আগস্ট ২০২০, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৩ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া ও দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌ-রুট

ফেরি চলাচল বন্ধ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ মে, ২০২০, ১২:০১ এএম

দেশে করোনাভাইরাসের ফলে গত ২৬ মার্চ থেকে সাধারণ ছুটি ঘোষণার পর গণপরিবহন বন্ধ রয়েছে। এতেও থামানো যাচ্ছে না মানুষের যাতায়াত। প্রতিদিন ভোর থেকে কোনো ধরনের সামাজিক দূরত্ব ছাড়াই গাদাগাদি করে ফেরিতে পদ্মা পার হচ্ছিল যাত্রীরা। তাই গতকাল সোমবার ফেরি চলাচল বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে বিআইডব্লিউটিসি। এ বিষয়ে আমাদের সংবাদদাতাদের পাঠানো প্রতিবেদন-
মুন্সিগঞ্জ জেলা সংবাদদাতা জানান, মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া ও মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ি নৌপথে গতকাল সোমবার বিকেলে ৪টা থেকে পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত ফেরি চলাচল বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে বিআইডব্লিউটিসি। সোমবার বিকেল সাড়ে ৫টায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বিআইডব্লিউটিসি কাঁঠালবাড়ি ঘাটের ব্যবস্থাপক মো. আব্দুল আলিম।

বিআইডব্লিউটিসি কাঁঠালবাড়ি ফেরিঘাট সূত্র জানায়, সোমবার ভোর থেকে কোনো ধরনের সামাজিক দূরত্ব ছাড়াই গাদাগাদি করে ফেরিতে পদ্মা পার হচ্ছিল যাত্রীরা। যাত্রীদের অতিরিক্ত চাপ সোমবার ভোর থেকে বেলা একটা পর্যন্ত ছিল। এরপরে ঘাট অনেকটাই ফাঁকা হয়ে এলেও ঢাকা থেকে যাত্রীদের আসা থামছিল না। অপর দিকে ঢাকামুখী মানুষ অ্যাম্বুলেন্স, পণ্যবাহী ট্রাক ও ব্যক্তিগত গাড়ি ব্যবহার করে নানা কৌশলে কাঁঠালবাড়ি ঘাটে আসে ঢাকায় যাওয়ার জন্য। এ অবস্থায় করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি বেড়ে যাওয়ায় আশঙ্কায় নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সোমবার বিকেল ৪টা থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সব কয়টি ফেরি চলাচল বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়।

গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) উপজেলা সংবাদদাতা জানান, কোন প্রকার সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি না মেনেই পারাপার হচ্ছে এসকল ঘরমুখো মানুষ। ভোর থেকেই দেখা গেছে পাটুরিয়া ফেরি ঘাট থেকে ছেড়ে আসা প্রতিটি ফেরিতে উপচে পড়া ভিড়। এমতাবস্থায় যাত্রী পারাপার ঠেকাতে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া-মানিকগজ্ঞের পাটুরিয়া নৌ-রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে বিআইডব্লিউটিসি কতৃপক্ষ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ