Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০ আশ্বিন ১৪২৭, ০৭ সফর ১৪৪২ হিজরী

সন্তান বাঁচিয়ে ডুবলেন

দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস | প্রকাশের সময় : ২২ মে, ২০২০, ১২:০৪ এএম

‘আমার ছেলেকে বাঁচান’। এটাই ছিল সাবেক রেসলার শাড গ্যাসপার্ডের শেষ কথা। গত রোববার সমুদ্রে ভেসে গেছেন ডবøু ডবøুইর সাবেক তারকা গ্যাসপার্ড (৩৯)।
তিনদিন ধরে পরিবার আশায় ছিল, লড়াকু গ্যাসপার্ড হয়তো কোনো না কোনোভাবে টিকে রয়েছেন। কোনো আশ্রয় খুঁজে নিয়ে ঠিকই ফিরে আসবেন পরিবারের কাছে। কিন্তু সে আশাও শেষ হয়ে গেছে গত বুধবার সকালে সমুদ্র তীরে তার মৃতদেহ খুঁজে পাওয়ার মধ্যদিয়ে।

ক্যালিফোর্নিয়ার ভেনিস সমুদ্র সৈকতে গত রোববার দুর্ঘটনায় পড়েন গ্যাসপার্ড ও তার ছেলে আরিয়েহ (১০)। লকডাউনের পর এই প্রথম আবার সৈকত উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছিল। গ্যাসপার্ড ও তার ছেলে কোমর পানিতে সাতার কাটছিলেন।

কিন্তু হঠাৎ তীব্র এক ঢেউ এসে দুজনকে ভাসিয়ে নিয়ে যায়। তীর থেকে প্রায় ৭৫ গজ দূরে তাদেরকে দেখে একজন লাইফগার্ড বাঁচানোর জন্য ছুটে যান। লাইফগার্ডকে দেখে গ্যাসপার্ড অনুরোধ করছিলেন ছেলেকে বাঁচানোর জন্য। তার কথায় আরিয়েহকে পারে রেখে আসেন সেই লাইফগার্ড।
মাত্র এক মিনিটের মধ্যেই তিনি ফিরে যান গ্যাসপার্ডের কাছে। কিন্তু বড় এক ঢেউ এসে তলিয়ে নিয়ে যায় গ্যাসপার্ডকে। পরে তাকে আর দেখা যায়নি। তলিয়ে যাওয়ার আগে বাবা গ্যাসপার্ডের আকুতি ছিল ‘আমার ছেলেকে বাঁচাও, আমার ছেলেকে বাঁচাও।’

তিনদিন ধরে প্রায় ৭০ নটিক্যাল মাইল এরাকা খুঁজেও হদিস মেরেনি গ্যাসপার্ডের। গত বুধবার সকালে সমুদ্র থেকে সৈকতে ভেসে আসে একটি মরদেহ। পুলিশ ও দমকল বাহিনীর কর্মীরা মরদেহ গ্যাসপার্ডের হিসেবে শনাক্ত করেছে।



 

Show all comments
  • D. Enayet Hossain ২২ মে, ২০২০, ১১:২৩ এএম says : 0
    জীবন-মৃত্যু আল্লাহর হাতে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জীবন

২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০
১১ সেপ্টেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন