Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০, ২২ আষাঢ় ১৪২৭, ১৪ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

ওয়াইন থেকে কিম জং উনের খাদ্য তলিকায় থাকে হাঙরও

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ মে, ২০২০, ৪:৫৭ পিএম

উত্তর কোরিয়ার একনায়ক কিম জং উন যথেষ্ট ভোজনরসিক বলে জানেন সবাই। এবার জানা গেল, দামি ওয়াইন, চিজ, এমনকি বাচ্চা হাঙরের স্যুপ খেতে ভালবাসেন তিনি। এক আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে দেয়া সাক্ষাতকারে এই তথ্য জানিয়েছেন কিমের সাবেক শেফ কেঞ্জি ফুজিমোতো।

কিমের ডায়েট সম্পর্কে ফুজিমোতো জানান, সবসময় দামি ওয়াইন পান করেন কিম। এছাড়াও, চিজ খেতে খুবই ভালোবাসেন তিনি। আরও চমক দিয়ে ফুজিমোতো জানান, বাচ্চা হাঙরের স্যুপ নাকি খুবই পছন্দ কিম জং উনের। এবং প্রায়ই নিজের শেফ-টিমের কাছে ´স্যুপের আবদার´ও করে থাকেন ৩৬ বছরের রাষ্ট্রনেতা।

প্রসঙ্গত, অত্যধিক ধূমপান, স্থূলতা-সহ বেশ কিছু সমস্যা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই ভুগছিলেন কিম জং উন। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলিতে দাবি, এর জেরেই হৃদযন্ত্রে অস্ত্রোপচার এবং তারপর থেকেই গুরুতর অসুস্থ ছিলেন তিনি। যদিও কিমের অস্ত্রোপচার সম্পর্কিত দাবি সত্যি না মিথ্যা, তা নিয়ে কোনও বিবৃতি আসেনি পিয়ংইয়ং থেকে। তবে মার্কিন ওষুধ সংস্থা ‘জন হপকিন্স’-এর তরফে দাবি, কিমের যে ধরনের স্থূলতা রয়েছে, তাতে হৃদযন্ত্রে অস্ত্রোপচার স্বাভাবিক।

সম্প্রতি, অজ্ঞাতবাস কাটিয়ে ফিরলেও বিতর্ক পিছু ছাড়ছে না উত্তর কোরিয়ার দাপুটে শাসক কিম জং উনের। কখনও পরমাণু বিতর্ক, কখনও বা একাধিক স্বৈরাচারী সিদ্ধান্ত- ঘুরে ফিরে খবরেই থেকে গিয়েছেন কোরিয়ার কিম। এমনকী ডামি দাবির জেরে সোশ্যাল মিডিয়ায় ফের মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে ‘মৃত্যুশয্যায় কিম’ জল্পনা। আর এরমধ্যেই আলোচনায় কিম জং উনের ডায়েট।

জাতিসংঘের রিপোর্ট অনুযায়ী, খাদ্য সংকট রয়েছে উত্তর কোরিয়ায়। অপুষ্টির শিকার সে দেশের শিশুরা। এমতাবস্থায় খাদ্যরসিক শাসকের ভোজন-বাজেট অস্বাভাবিকই বলা যায়। সূত্র: দ্য সান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: উত্তর কোরিয়া


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ