Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০, ২৬ আষাঢ় ১৪২৭, ১৮ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

নভেম্বরের মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন ও ইতালিতে করোনার সমাপ্তি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ মে, ২০২০, ৬:০৯ পিএম

সংক্রমণের দ্বিতীয় ধাক্কা ছাড়াই করোনা মহামারী নভেম্বরের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন ও ইতালি থেকে বিদায় নিতে পারে বলে ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন সিঙ্গাপুর ইউনিভার্সিটি অফ টেকনোলজি অ্যান্ড ডিজাইনের বিজ্ঞানীরা। তাদের তৈরি জটিল মডেলটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য এবং বিশ্বের অন্যান্য দেশে মহামারীটির সঠিক সমাপ্তি তারিখগুলির পূর্বাভাস দেয়ার কাজ করে। এটি থেকে আরো অনুমাণ করা হচ্ছে যে, দ্বিতীয় দফার সংক্রমণ ছাড়াই মহামারীর হ্রাস অব্যাহত থাকবে। গবেষণার তথ্য অনুসারে, ১১ নভেম্বরের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে, ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে যুক্তরাজ্য এবং ২৪ অক্টোবরের মধ্যে ইতালি থেকে মহামারীটি বিদায় নেবে।

বৈজ্ঞানিক মডেলটি একটি নির্দিষ্ট দেশে প্রতিদিন নতুন নিশ্চিত সংক্রমণের প্রকৃত সংখ্যা খুঁজে বের করার সাথে সাথে ভাইরাসের সংক্রমণের গতিবেগের পূর্বাভাস দেয়। তবে গবেষকরা উল্লেখ করেছেন যে, ভাইরাসটির জটিল বৈশিষ্টের পাশাপাশি কোনো দেশের আরোপিত বিধিনিষেধ ও পরীক্ষার নিয়ম সহ অন্যান্য কারণগুলির জন্য প্রকৃতিকভাবে অনুমানকৃত ফলাফলটি অনিশ্চিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের বিষয়ে পূর্বাভাসের পরিবর্তনগুলি গত ৬ মে থেকে ১২ মে’র মধ্যে মধ্যে নথিবদ্ধ করা হয় এবং এটি তুলনামূলকভাবে স্থিতিশীল বলে মনে হয়, যা মহামারীর তাত্তি¡ক সমাপ্তি ঘটতে দীর্ঘ সময় লাগবে বলে আভাস দিয়েছে। গবেষণায় মে’র প্রথমদিকের দিকে ভবিষ্যদ্বাণী সংক্রান্ত পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে যে, সর্বোচ্চ ক্ষতিগ্রস্থ দেশ যুক্তরাষ্ট্র এবং ব্রাজিলে যদি বর্তমান আরোপিত ব্যবস্থাগুলি বলবৎ থাকে এবং কোনো ভ্যাকসিনের আবির্ভাব না ঘটে, এবছরের বাকি সময়েও তারা ক্ষয়-ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারে।

গবেষণায় দেখা গেছে যে, একসময়ে নিশ্চিত করোনাভাইরাস সংক্রমণে বিশ্বের শীর্ষ থাকা ইতালিতে ২৮ অক্টোবরের মধ্যে মহামারী সমাপ্তির পূর্বাভাস রয়েছে। তবে বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন যে, ভবিষ্যদ্বাণীগুলি কেবলমাত্র অনুমান এবং তা বিবিধ কারণের উপর নির্ভর করে পরিবর্তিত হতে পারে। তাদের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে, মডেলটি এবং তথ্য সময়ের সাথে সাথে বিভিন্ন দেশের পরিবর্তিত, জটিল, বর্ধিত এবং বহুমুখী বাস্তবতার প্রেক্ষাপটে যথার্য নয়। প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, ‘কিছু পূর্বাভাসের উপর ভিত্তি করে অতিরিক্ত আশাবাদ বিপজ্জনক। কারণ এটি আমাদের শৃঙ্খলা এবং নিয়ন্ত্রণকে শিথিল করে দিতে পারে এবং ভাইরাস ও সংক্রমণের ফিয়ে আসার কারণ হতে পারে এবং অবশ্যই এড়িয়ে চলা উচিত।’

বিশ্বের ৫০ টি দেশ কয়েক মাসের লকডাউনের পরে ধীরে ধীরে পুনরায় খোলার এবং বিধিনিষেধকে সহজ করতে শুরু করার পর এসংক্রান্ত গবেষণার তথ্য উপস্থাপন করেন বিজ্ঞানীরা। তবে বিশেষজ্ঞরা এবং স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা প্রথম থেকেই সতর্ক করে আসছেন যে, অতি দ্রæত নিষেধাজ্ঞাগুলি প্রত্যাহার করে নিলে সংক্রমণের হার বৃদ্ধি পেতে পারে। সূত্র: ডেইলি মেইল।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাষ্ট্র


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ