Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৫ জুলাই ২০২০, ৩১ আষাঢ় ১৪২৭, ২৩ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

করোনা জয় করে বাসায় ক্রিকেট কোচ আশিক

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ মে, ২০২০, ১২:০১ এএম

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১৭ দিন হাসপাতালে কাটিয়ে অবশেষে করোনা জয় করে গতকাল নিজ বাসায় ফিরেছেন সাবেক ক্রিকেটার ও কোচ আশিকুর রহমান মজুমদার। করোনা পজিটিভ হওয়ার পর দুই সপ্তাহেরও বেশি সময় চিকিৎসাধীন থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন তিনি। কাল দুপুর ১২টায় মুগদা হাসপাতাল থেকে ছুটি মিলেছে আশিকের। আল্লাহর ওপর বিশ্বাস ও আস্থা প্রথম থেকেই ছিল সাবেক এই ক্রিকেটারের। তাই তো করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর বারবার বলেছেন, ‘আল্লাহ যেন আমাকে সুস্থ করে দেন। আমি সুস্থ হয়ে মানুষের সেবা করতে চাই। অসহায় ও দুঃস্থ মানুষের পাশে দাঁড়াতে চাই।’
সৃষ্টিকর্তার প্রতি অগাধ বিশ্বাস ও আস্থার মূল্য পেলেন আশিকুর রহমান মজুমদার। মহান আল্লাহর ইচ্ছায় এবং চিকিৎসদের চেষ্টায় প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস থেকে মুক্ত হলেন তিনি। করোনামুক্ত হয়ে সৃষ্টিকর্তার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন আশিক। মুঠোফোনে তিনি বলেন,‘গত কয়েকদিনে দুইটি টেস্ট করানো হয়েছে। দুটিই নেগেটিভ এসেছে। আমি মহান আল্লাহর কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। উনার দয়া ও কৃপায় সুস্থ হয়ে উঠেছি। এখন আর তেমন সমস্যা হচ্ছেনা। জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নেই। তবে কাশিটা পুরোপুরি সাড়েনি। আছে এখনো। এর বাইরে অন্য কোন সমস্যা নেই।’
গত ১২ মে করোনা পজিটিভ হওয়ার পর মুগদা হাসপাতালে ভর্তি হন আশিক। শুরুতে জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্ট থাকলেও ধীরে ধীরে জ্বর ও শ্বাসকষ্ট মুক্ত হয়েছেন আশিক। তবে কাশিটা এখনো পুরোপুরি সাড়েনি। তাই তো ১৮ দিনের মাথায় বাড়ি ফিরে যাওয়া আশিক জানান, চিকিৎসকরা তাকে কাশির জন্য বুকের এমআরআই করাতে বলেছেন। সেটা মুগদা হাসপাতালে নয়, বাইরে ভাল কোন ল্যাব থেকে করানোর ইচ্ছে আছে তার।
আশিকের চিকিৎসায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) এবং ক্রিকেটার্স ওয়েলফেয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন (কোয়াব) প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে সাহায্য সহযোগিতা করেছে। বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের হয়ে ২০০২ সালের যুব বিশ্বকাপ খেলা আশিকুর রহমান মজুমদার ছিলেন সম্ভাবনাময় পেসার। ক্যারিয়ারের শুরুতে ঢাকা মোহামেডানের হয়ে কয়েকবছর বেশ সুনামের সঙ্গে খেলেছেন। তবে খেলাটা শেষ পর্যন্ত চালিয়ে যেতে পারেননি। পিঠের ব্যথার কারণে একটু আগেই খেলোয়াড় হিসেবে ক্যারিয়ার শেষ করতে হয় আশিককে। খেলা ছেড়ে নাম লেখান কোচিংয়ে। প্রায় পাঁচ বছর ধরে প্রাইম ব্যাংকের সহকারী কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন। মাঝে দু’বছরের কাছাকাছি সময় বাংলাদেশ নারী দলের সহকারী কোচ ছিলেন আশিক।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রাণঘাতি
আরও পড়ুন