Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ০৪ জুলাই ২০২০, ২০ আষাঢ় ১৪২৭, ১২ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

তৎপরতা বাড়াবে চীনের ড্রোন আসাম সীমান্তে ভারতের চিনুক

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩১ মে, ২০২০, ১২:০২ এএম

মালভ‚মি এলাকায় অভিযানের জন্য চীন নিজস্বভাবে যে মনুষ্যবিহীন ড্রোন হেলিকপ্টার তৈরি করেছে, সেটা স¤প্রতি প্রথমবারের মতো আকাশে উড়েছে। এই বহুমুখী এবং সহজে পরিচালনাযোগ্য কপ্টারগুলো মহড়া, যোগাযোগ স¤প্রচার, ইলেকট্রনিক বাধা সৃষ্টি করা, উচ্চ অক্ষাংশ এলাকায় হামলা চালানোর মতো বিভিন্ন অভিযানে অংশ নিতে পারে। বিশ্লেষকরা বলেছেন যে, এই ড্রোন কপ্টারগুলো ভারত সীমান্ত এলাকার নিরাপত্তায় ভ‚মিকা রাখবে। এআর৫০০সি মনুষ্যবিহীন হেলিকপ্টারটি তৈরি করেছে রাষ্ট্রায়ত্ত অ্যাভিয়েশান ইন্ডাস্ট্রি কর্পোরেশান অব চায়না (এভিআইসি)। বুধবার চীনের প‚র্বাঞ্চলের জিয়াংশি প্রদেশের পোইয়াং এভিআইসি বিমান ঘাঁটিতে এই কপ্টার সফলভাবে প্রথম উড্ডয়ন সম্পন্ন করে। প্রথম এই ফ্লাইটকালে ড্রোন কপ্টারটি আকাশে ভেসে থাকা, আড়াআড়ি ও লম্বালম্বি চলাচলসহ বিভিন্ন সক্ষমতার প্রদর্শনী করেছে বলে চায়না সেন্ট্রাল টেলিভিশন (সিসিটিভি) শনিবার জানিয়েছে। এভিআইসি’র এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে যে, এই কপ্টারের প্রধান মিশন যদিও মহড়া এবং যোগাযোগ স¤প্রচার, তবে এতে বাড়তি সরঞ্জামাদি যুক্ত করলে এটা একই সাথে ইলেক্ট্রনিক বাধা সৃষ্টি করা, টার্গেট চিহ্নিত করা, আঘাত হানা, কার্গো বহন এবং পারমানবিক রেডিয়েশান এবং রাসায়নিক দ‚ষণ সম্পর্কিত তথ্যাদিও দিতে পারবে। চীনের প্রথম এই মনুষ্যহীন হেলিকপ্টারটি যেহেতু মালভ‚মি এলাকায় উড়ার জন্য ডিজাইন করা হয়েছে, সে কারণে এআর৫০০সি কপ্টারটি ৫০০০ মিটার পর্যন্ত উঁচুতে উঠতে পারে এবং ৬,৭০০ মিটার পর্যন্ত এর সক্ষমতা রয়েছে। এটার পাঁচ ঘন্টা সক্ষম থাকার শক্তি রয়েছে, এটা সর্বোচ্চ ১৭০ কিলোমিটার গতিতে ছুটতে পারে এবং সর্বোচ্চ ৫০০ কেজি পর্যন্ত ওজন বহনে সক্ষম। অপরদিকে, চীনের সঙ্গে সীমান্তসহ প্রত্যন্ত অঞ্চলে দ্রæত সেনা ও রসদ পৌঁছাতে ভারতীয় বিমান বাহিনী আসামের মোহনবাড়ি বিমানঘাঁটিতে যুক্তরাষ্ট্র থেকে কেনা চিনুক হেভি-লিফট হেলিকপ্টার মোতায়েন করেছে। বৃহস্পতিবার প্রথমবারের মতো চিনুকগুলো অরুনাচল প্রদেশের বিজয়নগরে অপারেশনে যায়। ওই দিন হেলিকপ্টারগুলো প্রত্যন্ত এলাকাটিতে ৮.৩ টন জরুরি সামগ্রী নিয়ে যায়। এলাকাটির তিন দিকে মিয়ানমার। অরুনাচল প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী প্রেমা খান্ডু টুইটারে একটি ভিডিও শেয়ার করেন। তাতে দেখা যায় যে পণসামগ্রী নিয়ে একটি চিনুক বিজয়নগরের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিয়েছে। চিনুকগুলো সম্প্রতি আসামের মোহনবাড়ি বিমানঘাঁটিতে সংযুক্ত করা হয়। এগুলো শিগগিরই সিকিম, অরুনাচল প্রদেশ ও কাছাকাছি অন্যান্য এলাকায় অপারেশন চালানোর জন্য মোতায়েন করা হবে। যুদ্ধ পরিস্থিতিতে দুর্গম এলাকায় সেনা ও রসদ পরিবহনের জন্য চিনুককে সেরা যান বিবেচনার করা হয়। এগুলো ২০,০০০ ফুট উচ্চতায় উঠতে পারে। এগুলো দিয়ে ভারি কামান ও দুর্গম সীমান্তে সড়ক নির্মাণের জন্য ভারি সরঞ্জাম বয়ে নিয়ে যাওয়া যায়। দুর্যোগের সময় দুর্গম এলাকায় ত্রাণ সামগ্রীও বহন করতে পারবে এগুলো। এএনআই,গে্লাবাল টাইমস, এসএএম।



 

Show all comments
  • ash ৩১ মে, ২০২০, ২:৪৪ এএম says : 0
    ETAI MOKHOM SHOMOY VAROT KE TUKRO TUKRO KORAR
    Total Reply(0) Reply
  • habib ৩১ মে, ২০২০, ৯:৪৭ এএম says : 0
    pm N Modi fail to protect minority Muslim in india. Modi policy biting Muslim in india frequently.
    Total Reply(0) Reply
  • রাগিনী মেয়ে ৩১ মে, ২০২০, ১:১৭ এএম says : 0
    ভারত একটি প্রতিহিংসা মূলক রাষ্ট্র যার থেকে প্রতিবেশি রাষ্ট্র গুলো ভয়ে থাকে তাই তাদের অস্থিথ্য রক্ষা করার জন্য করোনা ভাইরাসের মাঝেও লড়াই করতে হচ্ছে যেমনটা আশা করা যায় না
    Total Reply(0) Reply
  • Shakil Ahnaf ৩১ মে, ২০২০, ১:১৭ এএম says : 0
    আমাদের জনসংখ্যা অনেক বেশি,,তাই,,আমাদের মায়ানমার আর না হয় ভারতের কিছু অঙ্গ রাজ্য দখল করে ফেলে দরকার যত দ্রুত সম্ভব,,আমি বিশ্বাস করি বাঙ্গালীর সেই শক্তি এবং সামর্থ্য আছে,,,শুধু ঝাঁপিয়ে পড়লেই চলবে,,
    Total Reply(0) Reply
  • Yusuf Ahmed ৩১ মে, ২০২০, ১:১৮ এএম says : 0
    আমি শিহরিত সীমান্তে ভারতকে চেপে ধরেছে চীন আর নেপাল! পিছন দিয়ে পাকিস্তান যদি একটু নাড়াছাড়া দেয় খেলা তো ভালোই জমবে আমি আশাবাদী
    Total Reply(0) Reply
  • Md Mahabubur Rahaman ৩১ মে, ২০২০, ১:১৮ এএম says : 0
    চীন এক ভাইরাস হংকং এরজন্য ভারত এক ভাইরাস কাশ্মীরের জন্যে এই দুটো বিশ্বের জন্য অসহিষ্ণু
    Total Reply(0) Reply
  • Manik Khan ৩১ মে, ২০২০, ১:১৯ এএম says : 0
    এমনিতেই করোনা ভাইরাস জীবাণুর সাথে মানবজাতির লড়াই চলছে। এই সময় আপনারা দুই দেশ যুদ্ধ করে গোলা বারুদের মিসাইলের জীবাণু চড়িয়ে দেবেন না প্লিজ। মানবজাতি কে বাঁচিয়ে রাখার চেষ্টা করুন
    Total Reply(0) Reply
  • MA Malek ৩১ মে, ২০২০, ১:১৯ এএম says : 0
    ভারত নিশ্চয়ই চীনের | নিকট নিরঙ্কশ ক্ষমা চাইবে যুদ্ধ না করার জন্য। কারন ভারত দূর্বল | যুদ্ধে নির্ঘাত পরাজয়।
    Total Reply(0) Reply
  • asif ৩১ মে, ২০২০, ১২:১৭ পিএম says : 0
    Swopno dekte poysa lagena
    Total Reply(0) Reply
  • Shamim ৩১ মে, ২০২০, ১১:৩২ পিএম says : 0
    ভারতের এমনিতে মোদি ভুল করে রুপি ভেন করে মানুষ মারাছে China দরকার হবেনা
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন