Inqilab Logo

শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৭ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

গুলি করে মানুষ হত্যার অন্ধ আকর্ষণ ছিল হামলাকারীর

প্রকাশের সময় : ২৫ জুলাই, ২০১৬, ১২:০০ এএম

মিউনিখ হামলাকারী সম্পর্কে নতুন তথ্য দিচ্ছে পুলিশ
ইনকিলাব ডেস্ক : মিউনিখের মানুষ গত শুক্রবারের হামলার ভয়াবহতা যখন কাটিয়ে উঠেছে তখন পুলিশ হামলাকারী সম্পর্কে নতুন তথ্য দিচ্ছে। জার্মান পুলিশ বলছে, মিউনিখের হামলাকারী ছিল একজন ছাত্র এবং গুলি করে গণহারে হত্যাকা- ঘটানোর প্রতি তার একটা অন্ধ আকর্ষণ ছিল বলে তথ্য প্রমাণও তারা পেয়েছে। গত শুক্রবার বিকেলে যে বন্দুকধারী মিউনিখ শহরের একটি শপিং সেন্টারে গুলি চালিয়ে ৯ জনকে হত্যা করেছে তার সাথে ইসলামিক স্টেট গোষ্ঠী বা সন্ত্রাসবাদের কোন সম্পর্ক নেই।
জানা যাচ্ছে, ১৮ বছর বয়স্ক ওই তরুণ ইরানি বংশোদ্ভূত এবং তার জার্মানি ও ইরান দুদেশেরই পাসপোর্ট ছিল। তার নাম এখনও পুলিশ প্রকাশ করেনি। আরো জানা গেছে তরুণটির মানসিক অবসাদের জন্য চিকিৎসা চলছিল। পুলিশ বলছে গুলি চলার সময় হামলাকারী চেঁচিয়ে কিছু বলেছিল- তবে সেটা কী তা এখনও তারা উদ্ধার করতে পারেনি। তার বাসাবাড়ি তল্লাশি করে পুলিশ যেসব কাগজপত্র পেয়েছে তার মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন পত্রিকায় বেরনো হামলা সংক্রান্ত নানা খবরের কাটিং এবং ছাত্ররা কেন হত্যা করে এই শিরোনামে একটি নিবন্ধ। পুলিশ বলছে গুলি চালানোর আগে ওই তরুণ কিছু একটা বলে চিৎকার করছিল কিন্তু তদন্তকারীরা এখনও পর্যন্ত বের করতে পারেনি ওই তরুণ আসলে কি বলেছিল। প্রথম দিকে এই হত্যাকা-ের জন্য ইসলামী জঙ্গীবাদকে দায়ী করা হলেও মিউনিখ পুলিশ এখন জানিয়েছে ওই তরুণের সঙ্গে কোনো জঙ্গী গোষ্ঠির যোগাযোগ ছিল না। তবে মোবাইল ফোনে তোলা ভিডিও ছবিতে আমি জার্মান কথাটি কাউকে বলতে শোনার পর এমন ধারণার কথাও শোনা যাচ্ছে যে উগ্র ডানপন্থী মতাদর্শের কোনো সমর্থক এই হত্যাকা- ঘটিয়ে থাকতে পারে। পুলিশ বলছে নরওয়ের গণহত্যাকারী অ্যান্ডার্স বেরিং ব্রেইভিক যে ২০১১ সালে ৭৭ জনকে হত্যা করেছিল তার সঙ্গে এই যুবকের যোগাযোগের প্রমাণও তারা পেয়েছে। তদন্তকারী পুলিশ এমন সন্দেহও করছে যে ওই তরুণ একজন মেয়ের ছদ্মনামে ফেসবুকে ভুয়া অ্যাকাউন্ট খুলে খুন করার জন্য লোকজনকে ম্যাকডোনাল্ডের দোকানে ডেকে এনেছিল। ঘটনার পরপরই আক্রমণকারী আত্মহত্যা করে। শপিং সেন্টারের ভেতর একজন প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয় একটি টিভি চ্যানেলকে জানিয়েছে হামলাকারী সেনা স্টাইলের বুট পরেছিল এবং তার পিঠে ব্যাগ ছিল। হামলায় নিহত নয়জন ছাড়াও ২৭ জন আহত হয়েছে যাদের মধ্যে ১০ জনের আঘাত গুরুতর। হামলার ঘটনায় ৯ জন নিহত হওয়া ছাড়াও শিশুসহ ২৭ জন আহত হয়েছে। বিবিসি, রয়টার্স, ডিডব্লিও।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গুলি করে মানুষ হত্যার অন্ধ আকর্ষণ ছিল হামলাকারীর
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ