Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৫ জুলাই ২০২০, ৩১ আষাঢ় ১৪২৭, ২৩ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

বেহাল চিকিৎসায় মৃত্যু বাড়ছে

চট্টগ্রামে করোনা শয্যা প্রস্তুতে ধীরগতি

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১ জুন, ২০২০, ১২:১১ এএম

চট্টগ্রামে বেহাল চিকিৎসা ব্যবস্থায় মৃত্যু বেড়েই চলেছে। হাসপাতালে শয্যা এবং আইসিইউ সুবিধা না থাকায় করোনায় এবং উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু বাড়ছে। গতকাল রোববার চট্টগ্রাম বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষকসহ পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। এদের তিনজনই মারা গেছেন উপসর্গ নিয়ে। এমন অনেক মৃত্যুর খবর নেই স্বাস্থ্যবিভাগের কাছে।
সিভিল সার্জনের হিসাবে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা ৮০ জনের কাছাকাছি। আর আক্রান্ত প্রায় তিন হাজার। ব্যাপক হারে সংক্রমণ এবং মৃত্যুর সংখ্যা দ্রুত বেড়ে যাওয়ার মধ্যেই লকডাউন তুলে নেওয়ায় নতুন করে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। জনমনে বাড়ছে উদ্বেগ-শঙ্কা।

গতকাল জেনারেল হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত গণি মিয়া (৮০) মারা যান। এরপর বিকালে সিদ্দিকুর রহমান নামে আরো একজন করোনার রোগী মারা যান। একই হাসপতালে সকালে উপসর্গ নিয়ে আহমেদ সাবিত নামে নগরীর আসকার দীঘির পাড়ের এক বাসিন্দা মারা যান। চমেক হাসপাতাল ও একটি বেসরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন আরও দুই জন।

উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়াদের স্বজনদের অভিযোগ তারা বিনা চিকিৎসায় মারা যাচ্ছেন। বেশিরভাগ রোগীই হাসপাতালে নেওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে মারা গেছেন। হাসপাতাল থেকে হাসপাতালে ঘুরেও শয্যা মিলছে না।
সঙ্কট কাটাতে আরও কয়েকটি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে করোনা চিকিৎসার উদ্যোগ নেওয়া হলেও প্রস্তুতিতে ধীরগতির কারণে বেসামাল অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। সঙ্কটাপন্ন রোগীরাও শয্যা পাচ্ছেন না। শনিবার সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের উপস্থিতিতে এক সভায় সব বেসরকারি হাসপাতালে করোনা ইউনিট খোলার সিদ্ধান্ত হয়। তবে তা কবে বাস্তাবায়ন হবে অনিশ্চিত। চমেক হাসপাতাল ও জেনারেল হাসপাতালে শয্যা বাড়ানোর সিদ্ধান্তও বাস্তবায়ন হয়নি পুরোপুরি। তবে আজ থেকে সিআরবি রেলওয়ে হাসপাতালে রোগী ভর্তি শুরু হচ্ছে বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের কর্মকর্তারা।

এদিকে মহানগর এবং জেলায় সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। সর্বশেষ শনিবার সর্বোচ্চ সংখ্যক নমুনা পরীক্ষায় ২৭৯ জনের সংক্রমণ শনাক্ত হয়। এক হাজার ২১৯ জনের নমুনায় ২৭৯ জনের করোনা পজেটিভ পাওয়া যায়। এ নিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দুই হাজার ৮৬৭ জন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মৃত্যু


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ