Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৫ জুলাই ২০২০, ৩১ আষাঢ় ১৪২৭, ২৩ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

মরিয়া মার্সেলো, আশাবাদী ভিদাল

আজ থেকে দলীয় অনুশীলন শুরু

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১ জুন, ২০২০, ১২:১১ এএম

দলের সবাইকে নিয়ে পুরোদমে অনুশীলন করার অনুমতি পেয়েছে লা লিগার ক্লাবগুলো। প্রতিযোগিতাটি মাঠে ফেরাতে স্প্যানিশ সরকারের বেঁধে দেওয়া চার ধাপের প্রস্তুতি পর্বের শেষ ধাপ এটি। গতপরশু এক বিবৃতিতে লা লিগা কর্তৃপক্ষ পুরো দলের একসঙ্গে অনুশীলনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। তারা বলেছে, ‘(করোনাভাইরাসের কারণে গৃহীত) বিধিনিষেধ শিথিলের পর সরকারের সর্বশেষ স্বাস্থ্য বিষয়ক আদেশের প্রেক্ষিতে ক্লাবগুলো আগামী ১ জুন (আজ) থেকে সম্মিলিত প্রশিক্ষণ শুরু করবে।’

প্রস্তুতি পর্বের প্রথম ধাপে ছিল লা লিগার ২০টি ক্লাবের সব খেলোয়াড় ও কোচিং স্টাফদের করোনাভাইরাস পরীক্ষা করানো। এরপর গেল ৪ মে থেকে ফুটবলাররা একক পর্যায়ে অনুশীলন করার অনুমতি পান। তৃতীয় ধাপে গেল ১৮ মে থেকে দলীয় অনুশীলন শুরু করেছে ক্লাবগুলো। প্রথম দফায় একসঙ্গে সর্বোচ্চ দশ জনকে অনুশীলন করার অনুমতি দেওয়া হয়। আর গেল সোমবার থেকে ১৪ জনের দল বানিয়ে অনুশীলন করছেন খেলোয়াড়রা।

গেল মার্চ থেকে স্থগিত থাকা লা লিগার ২০১৯-২০ মৌসুম আগামী ১১ জুন ফের শুরু হবে। ২৭ ম্যাচে ৫৮ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার শীর্ষে আছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনা। সমান ম্যাচে দুই পয়েন্ট কম নিয়ে তাদের ঠিক পেছনেই আছে চিরপ্রতিদ্ব›দ্বী রিয়াল মাদ্রিদ। লিগের এখনও ১১ রাউন্ডের খেলা বাকি। সবক’টি ম্যাচই হবে দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে।

তবুও তো মাঠে ফুটবল ফিরছে! দুই মাসের অনাকাক্সিক্ষত বিরতির পর খেলায় ফেরার সুসংবাদ পেয়ে আর তর সইছে না মার্সেলোর। লা লিগা পুনরায় শুরুর দিন যত ঘনিয়ে আসছে মাঠে নামার ইচ্ছা ততই প্রবল হচ্ছে রিয়াল মাদ্রিদের এই লেফট-ব্যাকের। দলের সঙ্গে গত ১১ মে থেকে অনুশীলন শুরু করেছেন মার্সেলো। রিয়াল মাদ্রিদ টিভিকে জানান, এখন দিন গুণছেন মাঠে ফেরার, ‘মাঠে অনুশীলন ছাড়া আমরা কখনও এতো দিন ছিলাম না। যখন থেকে আমরা খেলা বন্ধ করেছি, ফুটবল খেলার ইচ্ছা আরও বেড়ে গেছে। এখন পুনরায় শুরু করার খুব কাছে আছি আমরা এবং ইচ্ছা কেবল বাড়ছে। সবকিছুর ইতিবাচক দিকগুলো আমাদের নিতে হবে। আমরা ইতোমধ্যে রুটিনের সঙ্গে মানিয়ে নিয়েছি।’

লম্বা বিরতির পর প্রতিযোগিতাম‚লক ফুটবলে ফিরতে ব্যাকুল বার্সেলোনার আর্তুরো ভিদালও। ক্লাবের ওয়েবসাইটে শনিবার প্রকাশিত সাক্ষাৎকারে কভিড-১৯ মহামারীর কারণে বন্ধ থাকা মৌসুম, অনুশীলনে ফেরা, দল ও মৌসুমে নিজেদের লক্ষ্যসহ নানা দিক নিয়ে কথা বলেন এক সময়ে জুভেন্টাসে খেলা এই ফুটবলার, ‘অনুশীলনে ফিরতে পারা ছিল অসাধারণ ভালো লাগার, আবদ্ধ ওই দুই মাস ছিল লম্বা সময়। সতীর্থদের সঙ্গে মাঠে থাকাটা অনেক বেশি উপভোগ্য, এটা দারুণ এক অভিজ্ঞতা। এখন আমরা ফিরেছি এবং অনুশীলনে ভালো করছি। তবে সামনে আমাদের গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি মাস অপেক্ষা করছে।’

চিলিয়ান এই মিডফিল্ডার দৃঢ়প্রতিজ্ঞ নিজের টানা নবম লিগ শিরোপা জয়ের ব্যাপারে। এজন্য ক্যাম্প ন্যু’য়ের দলটির সামনে ‘১১টি ফাইনাল’ অপেক্ষা করছে বলে মনে করেন তিনি। গুরুত্ব বোঝাতে বাকি ১১ ম্যাচের প্রতিটিকে ফাইনাল ম্যাচের সঙ্গে তুলনা করেছেন ২০১৮ সালে বায়ার্ন মিউনিখ থেকে কাতালান দলটিতে যোগ দেওয়া ভিদাল, ‘এই ১১ ম্যাচ হতে যাচ্ছে ১১টি ফাইনাল, এ বিষয়ে আমরা সবাই নিশ্চিত এবং ম্যাচগুলো হবে খুব কঠিন। আমাদের নিজেদের ওপর আস্থা রাখতে হবে। আমাদের জয়ের ব্যাপারে ভাবতে হবে এবং এটা করতে হবে সবচেয়ে ভালো উপায়ে।’

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: লা লিগা


আরও
আরও পড়ুন