Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ০৪ জুলাই ২০২০, ২০ আষাঢ় ১৪২৭, ১২ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

ঋণ নেয়া ব্যবসায়ীদের জন্য ২ হাজার কোটি টাকা প্রণোদনা

ধাপে ধাপে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এখনই খোলা হবে না : প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২ জুন, ২০২০, ১২:১২ এএম

করোনাভাইরাসের পরিস্থিতি উন্নতি হলে ধাপে ধাপে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হবে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, শিক্ষার্থীরা যাতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত না হয় সেজন্য এখনই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো খোলা হবে না। করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে না আসা পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের জীবন ঝুঁকিতে ফেলা যাবে না। পরিস্থিতি দেখে তারপর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হবে।

গতকাল গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে এবারের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশকালে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। এসময় শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি ও শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের নেতৃত্বে বিভিন্ন শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানরা গণভবনে ভিডিও কনফারেন্সে সংযুক্ত ছিলেন। পরে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি সেগুনবাগিচার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট থেকে ফেসবুক লাইভে প্রধানমন্ত্রীর কাছে ফলাফলের বিস্তারিত তুলে ধরেন।

ফল প্রকাশকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, হয়তো এখন আমরা কলেজ খুলব না। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আমরা খুলতে পারছি না। আমরা ধাপে ধাপে এগোতে চাচ্ছি। যাতে করে এই করোনাভাইরাস দ্বারা শিক্ষার্থীরা আক্রান্ত না হয়, কারণ এরা আমাদের ভবিষ্যৎ। ভবিষ্যৎ তো আমি ঝুঁকিতে ফেলতে পারি না। সেই কারণে আমরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো উন্মুক্ত করব না। আমরা দেখি এই অবস্থা থেকে উত্তরণ ঘটাতে পারলে পর্যায়ক্রমে আমরা তখন উন্মুক্ত করব। শিক্ষার্থীদের সময় নষ্ট না করে ঘরে বসে পড়াশোনা করার অনুরোধ জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, সবাইকে অনুরোধ করব সবাই যেন ঘরে বসে পড়াশোনা করে। এটা একটা পড়াশোনার ভালো সুযোগও। আমদের নিজেদেরও এখন বেশি কাজ নেই-অনেক কিছু জানার ও পড়ার সুযোগ পাচ্ছি। সেটাও কম কথা না। এখানে আমি বলব সবাই মনযোগ দিয়ে পড়াশোনা করবে।

শেখ হাসিনা আরও বলেন, আমি ছাত্রছাত্রীদের অনুরোধ করব তারা লেখাপড়া শিখবে, মানুষের মতো মানুষ হবে। শিক্ষকদের বলব তাদের সেই শিক্ষাই দেবেন, এই শিক্ষাটা হচ্ছে শুধু নিজে ভালো থাকা না, দেশের কল্যাণে কাজ করা, মানুষের কল্যাণে কাজ করা।

২ হাজার কোটি টাকা প্রণোদনা
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, গত দুই মাসে করোনাভাইরাসে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের জন্য দুই হাজার কোটি টাকা ভর্ভুকি দেবে সরকার। ব্যবসায়ীরা যে ঋণ নিয়েছে, সেই ঋণের ১৬ হাজার ৫৪৯ কোটি টাকার যে সুদ হয়েছে। সেই সুদ পরিশোধ বাবদ সরকার এই টাকা দিচ্ছে ব্যবসায়ীদের। সুদের অবশিষ্ট অর্থ ব্যবসায়ীরা যাতে ১২ মাসের কিস্তিতে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে পরিশোধ করতে পারেন, সরকার সেই উদ্যোগ নেবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দুই হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দেয়ার ফলে আনুমানিক এক কোটি ৩৮ লাখ ঋণগ্রহীতা সরাসরি উপকৃত হবেন। কোভিড-১৯ এর কারণে তাদের ব্যবসা-বাণিজ্য সব বন্ধ ছিল। সেই কারণেই তাদেরকে এই সুযোগটা আমরা দিচ্ছি, যাতে তারা তাদের ব্যবসা বাণিজ্য বা কার্যক্রমগুলো সব চালাতে পারেন।

তিনি বলেন, দুই মাসে ঋণের স্থগিত সুদের পরিমাণ প্রায় ১৬ হাজার ৫৪৯ কোটি টাকা। এর মধ্য থেকে ২ হাজার কোটি টাকা সরকার বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে ভর্ভুকি হিসেবে দেবে, যার ফলে ঋণগ্রহীতাদের আনুপাতিক হারে নির্দিষ্ট পরিমাণ সুদ আর পরিশোধ করতে হবে না। তাদেরকে এইটুকু আমরা মুক্ত করে দিচ্ছি।

শেখ হাসিনা বলেন, সুদের অবশিষ্ট অর্থ ব্যবসায়ীরা যাতে ১২ মাসের কিস্তিতে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে পরিশোধ করতে পারেন, সরকার সেই উদ্যোগ নেবে। অর্থাৎ যেটা প্রতি মাসে দিতে হতো সেটা এই দুই মাসে যেহেতু দিতে পারেনি, এটাকে আমরা ১২ মাসের একটা সময় দিয়ে দিচ্ছি। এই ১২ মাসে ধীরে ধীরে তারা বাকিটা শোধ করতে পারবেন।

সর্বস্তরের মানুষের জন্যই বিশেষ প্রণোদনা দিয়েছেন উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি জানি না, পৃথিবীর অন্য কোনো দেশ এভাবে দিয়েছে কি না। কিন্তু আমরা সুযোগটা দিচ্ছি। আমাদের জিডিপির ৩ দশমিক ৭ শতাংশই আমরা প্রণোদনা দিচ্ছি। এত প্রণোদনা পৃথিবীর অন্য কোনো দেশ দিয়েছে কি না জানি না। তিনি বলেন, অর্থমন্ত্রী, অর্থসচিব, ব্যাংকের গভর্নর সবার সঙ্গে বসে আমরা নতুন একটা প্যাকেজ দিয়েছি। আমরা ইতিমধ্যে ১৮টি প্যাকেজ দিয়েছি। এটা হলো ১৯ নম্বর প্যাকেজ। ১৯টি প্যাকেজ আমরা দিচ্ছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রণোদনা প্যাকেজের বাইরে কওমি মাদরাসা, মসজিদের ইমাম-মুয়াজ্জিনদের বিশেষ অর্থ সহায়তা এবং বিভিন্ন সামাজিক সুরক্ষা সহযোগিতা ও ভাতা দিয়েছি।

এ সময় গণভবন প্রান্তে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন।###



 

Show all comments
  • Zahid Hasan ১ জুন, ২০২০, ১২:৫৯ এএম says : 0
    পরিবহণ সেকক্টরে প্রনোধনা দিলে দেশের আটকুটি মানুষ উপকৃত হবে এবং পরিবহণ ভাড়া আগের মত ঠিক থাকবে আমিন
    Total Reply(0) Reply
  • JD Khan ১ জুন, ২০২০, ১২:৫৯ এএম says : 0
    বাংলাদেশ করোনাকে হাল্কাভাবে নিয়ে বড় ভুল করেছে ভয় হয় কারণ আমরা গণবসতি দেশে বাসকরি
    Total Reply(0) Reply
  • Omar Faruque ১ জুন, ২০২০, ১:০৩ এএম says : 0
    অনেক সাহসী সিদ্ধান্ত। আশা করি উদ্যেশ্য সফল হবেই ইনশাআল্লাহ।
    Total Reply(0) Reply
  • Kamal Pasha Jafree ১ জুন, ২০২০, ১:০৩ এএম says : 0
    ধাপে ধাপে খুলে দেওয়ার কি দরকার একেবারেই খুলে দেওয়া হোক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ছোট তাদের জীবনের ঝুকি বাড়ানো ছাড়া আর কিছুই না আশা করি সবাই ভালো থাকবে
    Total Reply(0) Reply
  • Zahidul Takib ১ জুন, ২০২০, ১:০৫ এএম says : 0
    আরো কিছুদিন স্কুল বন্ধ রাখা দরকার।সবার কাছে তার নিজের সন্তান অমূল্য সম্পদ। দয়া করে তাদের বাঁচতে দিন।এক বছর মিস হলে কিছু হবে না।পরে তা পুরণ করা যাবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Farhana Sharmin Shathi ১ জুন, ২০২০, ১:০৫ এএম says : 0
    এখন এই মুহূর্তে স্কুল খোলা মানে বাচ্চাদের কে মরন ফাঁদে ফেলে দেওয়া।স্কুল খোলার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয় নাই। আমাদের বাচ্চারা বেঁচে থাকলে পড়াশোনা করতে পারবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Atik Rahman ১ জুন, ২০২০, ১:০৬ এএম says : 0
    কোন দিন, কখনো, কোন ভাবেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা ঠিক হবে না পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পযর্ন্ত।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Shah Alam Khan ১ জুন, ২০২০, ৮:৪৪ পিএম says : 0
    এখানে বিষয়টা প্রধানমন্ত্রী পরিষ্কার করে বলেছেন তিনি এই ভর্তুকির টাকা ব্যাংকগুলোকে দিবেন এবং ব্যাংক কর্তৃপক্ষ তাদের গ্রাহকদের সুদ ঐ টাকা থেকে পরিশোধ করবেন। এখন কথা হচ্ছে এটা কতটা ব্যাংক কর্তৃপক্ষ মান্য করবে...... এই বিষয়টা এখানে আনার কারন আমরা যারা প্রবাসে থেকে পুঁজিবাজারে টাক খাটাই এবং ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে শেয়ারের ব্যাবসা করছি তারা গত ২০১০ সালের ডিসেম্বরের ধ্বসে নিঃস্ব হয়ে গেছি। সরকার আমাদেরকে এই কায়দায় সাহায্য করেছিলেন কিন্তু আমি প্রবাসে থাকায় ব্রাকবাংক আমাকে সেই সুযোগ থেকে বঞ্চিত করেছিল। আমি ঢাকায় গিয়ে বললে তারা এটা সেটা বলে আমাকে আমার একাউন্ট পুঁজি শূন্য দেখিয়ে দেয়। সেখানে আমি নগদ দিয়েছিলাম ৮ লক্ষ টাকা বাকী ওরা দিয়েছিল। এখন আমাকে বলেদিল আপানার ক্রয় কৃত শেয়ারের মূল্য পতন হওয়ায় কর্তৃপক্ষ আমার বিনা অনুমতিতে বিক্রয় করে দিয়েছে এখন আমি তাদের কাছে কোন টাকা পাই না। এরপর সরকার যখন ক্ষতিপূরন দেয় তখন আমি আবার কানাডায় ছিলাম দেশে ফিরে জানতে চাইলে ওরা বলেদেয় আমি পাইনি। এটাই হচ্ছে ব্যংকের কারসাজী তারা সরকার থেকে টাকা নিয়ে তাদের পছন্দমত লোকদের লোকশান ১০০% মেটাবে আর আমারমত প্রবাসী ও দেশের অসহায় অল্প পূজির ব্যাবসায়িদেরকে এক পয়সাও দিবেনা। এবারও সরকার সরাসরি ব্যাংক কর্তৃপক্ষকেই প্রনোদনার টাকা দিচ্ছে, সেজন্যেই আমি নিশ্চিত এবারও ব্যংকের মালিকেরা এই টাকা তাদের পছন্দমত লোকদেরকেই দিবে। আমারমত প্রবাসীরা ও দেশের অসহায় অল্প পূজির ব্যাবসায়ীরা এবারও সরকারের এই প্রণোদনা থেকে বঞ্চিত হবে এটাই মহাসত্য। আমি প্রবাস থেকে ইনকিলাব পত্রিকার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট অনুরোধ করছি এই বিষয়টার উপর একটু নজর দিয়ে প্রবাসীদের পূজি যাতে নষ্ট না হয় সেদিকে নজর দিবেন। আল্লাহ্‌ আমাদের দেশের ব্যাংক মালিকদেরকে সত্য বলা ও সততার সাথে চলার ক্ষমতা দান করুন। সাথে সাথে সরকারকেও ব্যংক মালিকদের লাগাম টেনে ধরার যোগ্যতা দান করুন। আমিন
    Total Reply(0) Reply
  • D.Ashraf Ali chowdhury ১ জুন, ২০২০, ৫:১৫ পিএম says : 0
    Hon,ble Prime Minister,You again prove That our Economy,Development,Society,Culture,Trade and commerce,our National Problems,National happyness are the integral part of your soul.You can always read and understand the necessities of our people and Nation on Time.
    Total Reply(0) Reply
  • জিহাদ ১ জুন, ২০২০, ১০:১২ এএম says : 0
    কিস্তি আদায় বন্ধ করা হোক
    Total Reply(0) Reply
  • শওকত আকবর ১ জুন, ২০২০, ৯:৪৬ এএম says : 0
    মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনার ঘোষিত আড়াই হাজার টাকা এখনও পায় নাই তালিকা ভুক্তরা।পটুয়াখালী জেলায় খোঁজ নিলেই এর সত্যতা পাওয়া যাবে।
    Total Reply(0) Reply
  • সাইফ ১ জুন, ২০২০, ৯:৫৩ এএম says : 0
    মাননীয়া প্রধান মন্ত্রীকে ধন্যবাদ ব্যবসা টিকিয়ে রাখার জন্য কিছু সময় উপযোগি সিদ্ধান্তের জন্যে। পাশা পাশি আপনার সমিপে অনুরোদ করিতে ছাই যে, কেবল তেলে মাথায় তেল তো দিলেন গরিব কৃষক এর দিকে ও তাকান, যারা আওনার খাদ্যে স্বয়ং সম্পুর্ন হওয়ার শপ্নকে পুরন করতে সেই সব ব্যবসায়ীদের ছেয়ে অধিক ভুমিকা রাখছে।
    Total Reply(0) Reply
  • Noyan ১ জুন, ২০২০, ১২:৪১ পিএম says : 0
    আমি একজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী এক্ষেত্রে আমি কিভাবে লোন পাব
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রধানমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন