Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ০৪ জুলাই ২০২০, ২০ আষাঢ় ১৪২৭, ১২ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

আইসিইউ মিলেনি মারা গেলেন চট্টগ্রামের ব্যবসায়ী হাজী মোহাম্মদ ইউনুছ

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১ জুন, ২০২০, ৯:২৮ এএম | আপডেট : ৯:৩১ এএম, ১ জুন, ২০২০

করোনা সন্দেহে ভর্তি নেয়নি হাসপাতাল। স্বজনদের আকুতি আর হাসপাতাল থেকে হাসপাতালে ছোটাছুটি করেও মিলেনি আইসিইউ সাপোর্ট। আর এ মধ্যেই মারা গেলেন চট্টগ্রাম বন্দরভিত্তিক বেসরকারি কন্টেইনার ডিপো এছহাক ব্রাদার্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হাজী মোহাম্মদ ইউনুছ।

‘চিকিৎসা না দিয়ে রোগী ফিরিয়ে দিলে’ হাসপাতালের লাইসেন্স বাতিল প্রশাসনের তরফে এমন হুঁশিয়ারির মধ্যে রোববার রাতে ঘটলো এমন ঘটনা।
জানা যায়, হাজী ইউনুছ (৭০) ডায়বেটিস, কিডনি এবং হাঁপানিজনিত সমস্যায় ভুগছিলেন। গত ২৫ মার্চ ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে ফিরেন তিনি।
রোববার সন্ধায় হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে পরিবারের সদস্যরা প্রথমে তাকে নিয়ে যান নগরীর জিইসি মোড়স্থ মেডিকেল সেন্টারে। স্বজনদের অভিযোগ সেখানে দুইঘণ্টা অপেক্ষায় রেখে ভর্তি করা যাবে না জানিয়ে দেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।
পরে রাত ৮টায় তাকে নেয়া হয় মেট্রোপলিটন হাসপাতালে। অনেক আকুতির পর সেখানে ভর্তি নেওয়া হয়। তবে তাৎক্ষণিক আইসিইউ সাপোর্ট না পাওয়ায় তার অবস্থার অবনতি হতে থাকে।

এ অবস্থায় সেখানে অক্সিজেন সাপোর্টের ব্যবস্থা করে নগরীর আইসিইউ সম্বলিত সকল বেসরকারি হাসপাতালে আইসিইউ, সম্ভব না হলে এইচডিও শয্যা চাওয়া হয়।
কিন্তু করোনা সন্দেহে কোনো হাসপাতালই আইসিইউ সাপোর্ট দিতে এগিয়ে আসেনি। এ অবস্থায় স্বজনরা এয়ার এম্বুলেন্সে ঢাকায় নেয়ার প্রস্তুতি নিতে শুরু করেন।
এভাবে তিন ঘণ্টা অপেক্ষার পর শেষ পর্যন্ত আইসিইউ সাপোর্ট না পেয়ে সেখানেই রাত ৯টায় তিনি ইন্তেকাল করেন। নগরীর সল্টগোলা ক্রসিং এলাকায় পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে বলে জানা গেছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস

৪ জুলাই, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন