Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ০৪ জুলাই ২০২০, ২০ আষাঢ় ১৪২৭, ১২ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

ইংল্যান্ড যেতে আপত্তি ব্রাভো-হেটমায়ারদের

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ জুন, ২০২০, ১২:০০ এএম

ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজের সূচি নিশ্চিত করেছে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। গতপরশু এক বিবৃতিতে সংস্থাটি বলেছে, আগামী জুলাইতে অনুষ্ঠিত হবে স্থগিত হয়ে যাওয়া সিরিজটি। প‚র্ব নির্ধারিত সূচি অনুসারে, চলতি মাসে টেস্ট ম্যাচগুলো মাঠে গড়ানোর কথা ছিল।
চ‚ড়ান্ত ঘোষণা দেওয়ার জন্য অবশ্য ইসিবিকে অপেক্ষায় থাকতে হচ্ছে। কারণ, সিরিজ আয়োজন করতে এখন প্রয়োজন সরকারের অনুমোদন। তবে সেটা নিছকই আনুষ্ঠানিকতা মাত্র। ইসিবির ডিরেক্টর অব ইভেন্টস স্টিভ এলওয়ার্দি বলেছেন, ‘সরকার ও আমাদের চিকিৎসক দলের সঙ্গে আমরা নিয়মিত আলোচনা করছি। তারা এই সময়টাতে অবিশ্বাস্যভাবে আমাদের সমর্থন করে গিয়েছে। আমরা প্রস্তাবিত তারিখগুলো জানিয়েছি এবং এটা (সিরিজ) নির্ভর করছে সরকারের অনুমোদনের ওপর।’
সূচি অনুযায়ী, তিন সপ্তাহে তিনটি টেস্ট খেলবে দুদল। সিরিজের প্রথম টেস্ট শুরু হবে আগামী ৮ জুলাই। ভেন্যু সাউথ্যাম্পটন। পরের ম্যাচ দুটি হবে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে। দ্বিতীয় টেস্ট শুরু হবে ১৬ জুলাই। তৃতীয় টেস্ট মাঠে গড়াবে ২৪ জুলাই থেকে। প্রতিটি ম্যাচই হবে দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে ও জৈব-সুরক্ষিত পরিবেশে। অনেক চিন্তা-ভাবনা করে ভেন্যু চ‚ড়ান্ত করেছে ইসিবি। স্টেডিয়াম সংলগ্ন হোটেল, চিকিৎসা সুবিধা যেমন জীবাণুমুক্ত পরিবেশ, মেডিকেল স্ক্রিনিং ও সামাজিক দ‚রত্ব নিশ্চিত করার ক্ষমতাসহ আনুষঙ্গিক অন্যান্য বিষয়গুলো বিবেচনায় নেওয়া হয়েছে।
সাদা পোশাকের ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল ইংল্যান্ডে পা রাখবে আগামী ৯ জুন। সেখানে পৌঁছে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে দুই সপ্তাহ কোয়ারেন্টিনে থাকবে তারা। এরপর এক সপ্তাহের অনুশীলন শেষে প্রথম টেস্ট খেলতে দলটি যাবে সাউথ্যাম্পটনে।
করোনাভাইরাসের কারণে গেল মার্চ থেকে বন্ধ হয়ে আছে মাঠের ক্রিকেট। সবকিছু যদি পরিকল্পনামাফিক সম্পন্ন হয় তবে লম্বা বিরতির পর এই সিরিজ দিয়েই মাঠে ফিরবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। কিন্তু খেলা হবে না অধিনায়ক জো রুটের। ইংল্যান্ড অধিনায়ক দ্বিতীয় সন্তানের বাবা হতে যাচ্ছেন। ঘরে সন্তানসম্ভবা স্ত্রীকে রেখে করোনার সময় ক্রিকেট খেলতে চান না রুট। সেজন্য ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের একটি ম্যাচেও রুটের না খেলার সম্ভাবনা বেশি।
২০১৭ সালে অধিনায়ক হওয়ার পর ইংল্যান্ডের হয়ে প্রতিটি টেস্টে খেলেছেন রুট। তিনি জানিয়েছেন, এবার খেলা ও পরিবারের মধ্যে পরিবারকে বেছে নিতে চান, ‘হ্যাঁ, দিনক্ষণ হিসেব করা একটু কঠিন। গর্ভাবস্থার এই সময়টা সবসময়ই পরিবর্তনশীল। আমাদের স্বাস্থ্যকর্মীদের সঙ্গে আলাপ হচ্ছে। সময় ও পরিস্থিতি বিবেচনা করা হচ্ছে। দেখা যাক কী হয়।’
গতপরশুই ইংল্যান্ডের ৫৫ জন ক্রিকেটারদের সঙ্গে অনুশীলনে ফিরেছেন রুটও। ট্রেন্ট ব্রিজে আইসিসির নিয়ম মেনে অনুশীলন করেছেন তিনি। সাবেক ইংল্যান্ড কোচ পিটার মুরস ছিলেন রুটের নেট সেশনে। দীর্ঘদিন পর নেটে ফেরার অনুভ‚তি নিয়ে রুট বলেন, ‘শুরুর দিকে কিছু কিছু ক্ষেত্রে জড়তা কাজ করছিল। কিছু সময় পর আবার নিজেকে ফিরে পাই। ভালো লাগছিল। অনেকদিন পর ব্যাটিং উপভোগ করলাম। এই মুহ‚র্তে একা একা কাজ করা হচ্ছে। পরবর্তীতে সবাই এক সঙ্গে অনুশীলন করব।’
রুটের অবর্তমানে ইংল্যান্ড দলের নেতৃত্ব দেবেন সহকারি অধিনায়ক বন্ধু বেন স্টোকস। অধিনায়ক হিসেবে প্রিয় বন্ধু স্টোকসে সম্প‚র্ণ আস্থা আছে রুটের, ‘সে অধিনায়ক হিসেবে দারুণ হবে। তার বড় গুনগুলোর মধ্যে একটি হচ্ছে, সে উদাহরণ সৃষ্টি করে নেতৃত্ব দেয়। নেট থেকে শুরু করে সবখানে, কঠিন মুহ‚র্তে নিজেকে সবার আগে নিংড়ে দেয়। সবাইকে নিয়ে এক সঙ্গে নিয়ে এগিয়ে যায়, সবার সেরাটা বের করে আনে। নেতা হিসেবে এটা স্টোকসের সেরা গুন। আমি দেখতে পাচ্ছি সে ভালোই করবে।’
এদিকে সফরকে সামনে রেখে শিমরন হেটমায়ার, ডারেন ব্রাভো আর কিমো পলকে অন্তর্ভূক্ত করে গতকালই ১৭ জনের স্কোয়াড ঘোষনা করে ডব্লিউসিবি। তবে এখনই ইংল্যান্ড যেতে অস্বীকৃতি জানানোয় এই ত্রয়ীকে বাদ দিয়ে দলটিকে ১৪ জনে নামিয়ে আনেন নির্বাচকরা। পাশাপাশি এই না জাবার ব্যপারে তাদের সিদ্ধান্তকেও সম্মান জানিয়েছে বোর্ড।
উইন্ডিজ টেস্ট দল
জ্যাসন হোল্ডার (অধিনায়ক), জামরেইন ব্ল্যাযাড, এনকুমাহ বোনার, ক্রেইগ ব্রাফেট, সামারাহ ব্রুকস, জন কেম্পবেল, রোস্টন চেজ, রাহকিম কর্নওয়েল, শেন ডরিচ (উইকেটরক্ষক), শিমার হোল্ডার, শাই হোপ, আলজারি জোসেফ, রেইমন রেইফার ও কেমার রোচ।
এছাড়া করোনাভাইরাসের কথা মাথায় রেখে অতিরিক্ত সচেতনতা হিসেবে গোটা সিরিজের জন্য আরো ১১ জনকে রিজার্ভ হিসেবে রেখেছেন নির্বাচকেরা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ব্রাভো-হেটমায়ার
আরও পড়ুন