Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ০৫ জুলাই ২০২০, ২১ আষাঢ় ১৪২৭, ১৩ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

কুড়িগ্রামের উলিপুরে শ্যামলী পরিবহনের কোচের ধাক্কায় অটোরিক্সার ৬ যাত্রী আহত

কুড়িগ্রাম জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৪ জুন, ২০২০, ৫:৪১ পিএম

কুড়িগ্রামের উলিপুরে শ্যামলী পরিবহনের কোচের ধাক্কায় অটোরিক্সার ৬ জন যাত্রী আহত হয়েছেন। আহতরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এদের মধ্যে গুরুতর আহত একজনকে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে, বৃহস্পতিবার (০৪ জুন) দুপুরে কুড়িগ্রাম-চিলমারী সড়কের হ্যালিপ্যাড নামকস্থানে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, চট্রগ্রাম থেকে শ্যামলী পরিবহনের একটি কোচ যাত্রীসহ উলিপুরে আসার পথে কুড়িগ্রাম-চিলমারী সড়কের হ্যালিপ্যাড নামকস্থানে রাস্তার পাশে থাকা যাত্রী বোঝাই অটোরিক্সাতে ধাক্কা দিলে অটোরিক্সাটি দুমড়ে-মুচরে যায়। এ সময় অটোরিক্সার যাত্রীরা গুরুতর আহন হন। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

আহতরা হলেন, উপজেলা পান্ডুল ইউনিয়নের তনুরাম গ্রামের বয়েজ উদ্দিনের পুত্র শফিকুল ইসলাম (৩৫), ধরনিবাড়ী ইউনিয়নের মালতিবাড়ি গ্রামের মোজাফ্ফরের পুত্র শাহিন (২০), আজিজার রহমানের পুত্র আঃ হামিদ (৪০), আব্দুল জব্বাবের পুত্র আবুল হোসেন (৬৫), পৌরসভার শিববাড়ি গ্রামের আঃ গফুরের পুত্র বাবু সরকার (২১) ও দাড়ারপাড় গ্রামের মফিজ উদ্দিনের পুত্র সাইফুল ইসলাম (৫৫)। এ সময় শ্যামলী পরিবহনের ড্রাইভার পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে গাড়িটি উদ্ধার করে নিয়ে আসেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ মাঈদুল ইসলাম জানান, সড়ক দূর্ঘটনায় ৬জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে আঃ হামিদ নামে একজনকে অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুড়িগ্রাম সদর হাতপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। বাকীরা বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
উলিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোয়াজ্জেম হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, শ্যামলী পরিবহনের গাড়িটি আটক করা হয়েছে। ড্রাইভার পলাতক থাকায় তাকে আটক করা সম্ভব হয়নি। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সড়ক দুর্ঘটনা


আরও
আরও পড়ুন