Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ০৫ জুলাই ২০২০, ২১ আষাঢ় ১৪২৭, ১৩ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

কেরানীগঞ্জে মাদক বিক্রিতে বাঁধা দেওয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় সাতজন আহত

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৪ জুন, ২০২০, ৫:৪৭ পিএম

ঢাকার কেরানীগঞ্জে মাদক বিক্রিতে বাঁধা দেওয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় কমপক্ষে সাতজন আহত হয়েছে। আহতরা হচ্ছে মোঃ বাদল,তার দুই ভাই মোঃ সোহেল,মোঃ রুবেল, ভাতিজা মোঃ রুহান ও মোঃ ফরহাদ হোসেনসহ সাতজন। এছাড়া প্রতিপক্ষের হামলাকারী আনছার বাহিনীর সদস্য জেহাদ নামেও একজন আহত হয়েছে। এঘটনাটি ঘটেছে বুধবার রাতে দক্ষিন কেরানীগঞ্জের ইকুরিয়া হাসনাবাদ হাউজিং এলাকায় সুপার মার্কেট রোডের পিছনে জান্নাতুল মাদ্রাসার সামনে।

এলাকাবাসীসুত্রে জানা যায়, স্থানীয় বাড়িওয়ালা বাদল মিয়ার বাড়ির চার পাশে বেশ কিছুদিন ধরে জরিফ বাহিনীর প্রধান কালা জরিফের ভাই মোঃ শরিফ মাদক বিক্রি করে আসছিল। বুধবার রাতেও শরিফ সেখানে মাদক বিক্রি করতে যায়। এসময় বাড়িওয়ালা বাদল মিয়া তাকে মাদক বিক্রিতে বাঁধা দেয়। শরিফ এই ঘটনাটি তার ভাই জরিফকে জানালে সে তার বাহিনীর ২৫/৩০জন সদস্য নিয়ে বাদল এর বাড়িতে হামলা চালায়। এতে বাদল মিয়ার পরিবারের লোকজন ও এলাকাবাসীরা একত্রিত হয়ে জরিফ বাহিনীর হামলার মোকাবেল করতে থাকে। দুই গ্রæপের মধ্যে থেমে থেমে প্রায় ঘন্টাখানেক যাবত এই সংঘর্ষ ঘটে। এতে বাদল মিয়ার গ্রæপের ছয়জন এবং জরিফ বাহিনীর একজন আহত হয়। এক পর্যায়ে এলাকাবাসীদের প্রতিরোধের মুখে জরিফ বাহিনী পিছু হটতে বাধ্য হয়। পরে থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উভয় পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এব্যাপারে দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শাহজামান জানান, এ বিষয়ে তার থানায় কেউ অভিযোগ দায়ের করেনি। এছাড়া ঘটনাটির ব্যাপারে তিনি কিছুই জানেন না।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আহত


আরও
আরও পড়ুন