Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

সিলেটে আপন চাচী ও পরকিয়া প্রেমিকের হাতে ৩ বছরের শিশু সায়েল খুন

সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৮ জুন, ২০২০, ৭:২১ পিএম

আপন চাচী ও তার পরকিয়া প্রেমিকের গোপন অভিসার দেখে ফেলায় খুন করা হলো শিশু সায়েলকে। রবিবার (৭ জুন) সন্ধ্যায় সিলেট বিয়ানীবাজারের কুড়ারবাজার ইউনিয়নের উত্তর আকাখাজনা গ্রামে নির্মম এ ঘটনা ঘটে। চাচীর ঘরের চালের ড্রাম থেকে ৩ বছর বয়সী শিশু সাহেদ আহমদ সায়েলের লাশ উদ্ধার করে থানা পুলিশ। ঘটনায় জড়িত থাকার দায়ে চাচী সুরমা বেগম (৩৮) ও তার পরকিয়া প্রেমিক নাহিদুল ইসলাম (২৬) কে আটক করতে সমর্থ হয়েছে পুলিশ। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে খুনের বিষয়ে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয় চাচী ও তার পরকিয়া। জবানবন্দিতে জানায়, রবিবার সকাল ৬ টার দিকে ভিকটিম সায়েল ও তার ভাই আরিফ আম কুড়াঁনোর জন্য চাচী সুরমা বেগমের বসতঘরের সামনে যায়। আম কুড়াঁনো শেষে সে চাচীর বসতঘরের ভিতরে প্রবেশ করলে নাহিদুল ও সুরমা বেগমের অনৈতিক মেলামেশা দেখে শুরু করে চিৎকার। তখন নাহিদুলের নির্দেশে চাচী সুরমা বেগম গাছের ডাল দিয়ে ওই শিশুর মাথায় আঘাত করলে সে অজ্ঞান হয়ে লুটিয়ে পড়ে মাঠিতে। তখন চাচী ও তার প্রেমিক ওই শিশুর নাক-মুখ চেপে ধরে শ্বাসরুদ্ধ করে গোসলখানায় ব্যবহৃত একটি প্লাষ্টিকের ড্রামে ঢুকিয়ে কম্বল দিয়ে ঢেকে রাখে। পুলিশ জানায়, দিনভর সায়েলকে খোঁজা হলেও কোথাও পাওয়া যায়নি তাকে। মসজিদের মাইকেও প্রচারণা চালানো হয় তার খোঁজে। এ সময় চাচী সুরমা বেগম তার বসতঘরের দরজা-জানালা বন্ধ রাখা সহ রহস্যজনক আচরণ করতে থাকে। এতে নিহত শিশুর পিতা সহ এলাকার সচেতন লোকজনের সন্দেহ হয়। এক পর্যায়ে তারা ওই চাচীর বসতঘরে প্রবেশ করে শুরু করেন তল্লাশি। একপর্যায়ে রাত ৮টার দিকে গোসলখানায় রাখা ড্রামের ভিতর কম্বল দিয়ে মোড়ানো শিশু সায়েলের মৃত্যু দেহ দেখা যায়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ