Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ০৭ আগস্ট ২০২০, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৬ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

শাক-সবজির অগ্নিমূল্য দক্ষিণাঞ্চলে

আম্পানের প্রভাবে বাজারে সরবরাহে ঘাটতি

বরিশাল ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ১০ জুন, ২০২০, ১২:০০ এএম

ঘূর্ণিঝড় আম্পানের ক্ষতির প্রভাবে পনের দিনের ব্যবধানে দক্ষিণাঞ্চলে সব ধরনের শাক-সবজির অগ্নিমূল্য সাধারণ মানুষের দুর্ভোগকে অনেকগুন বাড়িয়েছে। আম্পানে দেশের দক্ষিণাঞ্চলসহ সবজির মূল উৎস দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের সবজি বাগানের ব্যাপক ক্ষতি হওয়ায় সপ্তাহখানেক ধরে সরবরাহ ঘাটতিও বেড়েছে। ফলে গত কয়েকদিনে গ্রীষ্মকালীন সব ধরণের শাক-সবজির দামও বেড়েছে দ্বিগুন থেকে ৩ গুন পর্যন্ত। খুচরা সবজি বিক্রেতাদের দাবি তারা রাত ৩টায় আড়তে গিয়েও সবজি কিনতে পারছেন না। যাও মিলছে তা পাইকারি ৫০ টাকা কেজির নিচে নয়।

ফলে বরিশালসহ দক্ষিণাঞ্চলের খুচরা বাজারে এখন ৬৫-৭০ টাকা কেজির নিচে কোন সবজি মিলছে না। পটল, করলা, কাঁকরোলের কেজি খুচরা ৬৫-৭০ টাকা। দিন কয়েক আগেও এসব সবজি ছিল ২৫-৩০ টাকা কেজি। কাঁচা পেঁপেও ৬৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। তবে এসব সবজিরই ঘাটতি বেশি। আম্পানে যশোর, কুষ্টিয়া ও মেহেরপুর এলাকায় সবজি বাগানের মারাত্মক ক্ষতির কথা জানিয়ে বরিশালের পাইকারী বাজারের আড়তদাররা বলছেন, ঐসব এলাকা থেকে সরবরাহ ঘাটতির কারণে প্রতিদিনই দাম বাড়ছে। আম্পানে দক্ষিণাঞ্চলের ১১টি জেলায় কৃষি খাতে ক্ষতির পরিমান প্রায় ৫শ’ কোটি টাকা।

সব মিলিয়ে দক্ষিণাঞ্চলের বাজারে সবজির যোগানে ঘাটতির কারণে দামও বেড়েছে লাগামছাড়াভাবে। এমনকি লাউসহ বেশকিছু সবজির সরবরাহ বন্ধই হয়ে গেছে। সবজির সাথে শাকের দামও আকাশ চুম্বি। দিন-দশেক আগে যে লাল শাকের আঁটি ছিল ১২-১৫ টাকা, এখন তা ৩০-৩৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। লাউ শাক, কলমি শাক থেকে শুরু করে সব ধরনের শাকের দামও আকাশচুম্বি।

এর ফলে নিম্নবিত্ত ও নিম্নমধ্যবিত্ত পরিবারগুলোর দুর্দশা আরো এক ধাপ বেড়েছে। ইতোমধ্যে বর্ষা দক্ষিণাঞ্চলের দরজায় কড়া নাড়তে শুরু করেছে। বর্ষা মাথায় নিয়ে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু দেশের দক্ষিণ-পূর্ব উপকূলে পৌঁছে গেছে। সপ্তাহখানেকের মধ্যে তা দক্ষিণাঞ্চলে পৌঁছে বর্ষার স্বাভাবিক বিস্তার ঘটাবে।
ফলে সামনের দিনগুলোতে আর গ্রীষ্মকালীন সবজির স্বাভাবিক যোগান আশা করা যাবে না বলে জানিয়ে আড়তদারগণ বলছেন, ‘বাজারে সবজির দাম স্বাভাবিক হতে অনেক সময় অপেক্ষা করতে হতে পারে’।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ঘূর্ণিঝড়


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ