Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

যুক্তরাষ্ট্র টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আয়োজক হতে চায়

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ জুন, ২০২০, ৯:১৯ এএম

ভারত-পাকিস্তানসহ এশিয়া-আফ্রিকার প্রচুর মানুষ আমেরিকায় বসবাস তাদের কথা চিন্তা করেই ২০২৩ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন করতে চায় দেশটি।
তবে আইসিসি সব টি-টোয়েন্টি ম্যাচকেই আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি দেওয়ায় অ্যাসোসিয়েট দেশ হলেও যুক্তরাষ্ট্রে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট হয়েছে খবুই কম। প্রথম সারির টেস্ট খেলুড়ে দেশ হিসেবে ভারত ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যে টি-টোয়েন্টি ম্যাচ হয়েছে ফ্লোরিডায়। ক্যাবিরীয়দের বিপক্ষে ফ্লোরিডায় খেলেছে বাংলাদেশ দলও। বড় কোনো ক্রিকেট টুর্নামেন্ট হয়নি মার্কিন মুলুকে। মার্কিন ক্রিকেট সংস্থার চিফ এক্সিকিউটিভ ইয়ান হিগিংস জানিয়ে দেন, তারা অদূর ভবিষ্যতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজনের দাবি জানাবেন।

শিরোনাম দেখে অবাক হতে পারেন অনেকে। একে তো করোনাভাইরাস পরিস্থিতি সামাল দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রকে। পরিস্থিতি এমন যে ইউএস ওপেনের মতো গ্র্যান্ড স্ল্যাম টুর্নামেন্ট নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছে। এর মধ্যে কিনা অ্যাসোসিয়েট দেশ হিসেবে বিশ্বকাপ ক্রিকেটের মতো আসর আয়োজন করতে চাচ্ছে দেশটি।

চিত্রটা আসলে একটু অন্যরকম। চলতি বছরের বা ২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নয়। মার্কিন ক্রিকেট সংস্থা ২০২৩ পরবর্তী আইসিসি সাইকেলে কোনো এক সময় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন করতে আগ্রহী।

অতীতে ফিফা বিশ্বকাপের মতো ফুটবলের মহাযজ্ঞ সফলভাবে আয়োজন করেছে যুক্তরাষ্ট্র। যেহেতু দেশটিতে দক্ষিণ এশিয়ার প্রচুর মানুষ রয়েছেন, তাই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হলে দর্শক সমাগমের অসুবিধা হবে না বলেই ধারণা দেশটির ক্রিকেট সংস্থার।

এ প্রসঙ্গে হিগিংস বলেন, ‘ধরুন যুক্তরাষ্ট্রের মাটিতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান মুখোমুখি হলো। যত বড়ই স্টেডিয়াম তৈরি করুন না কেন, দর্শকদের জায়গা করে দেওয়া সম্ভব হবে না।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: টি-টোয়েন্টি

১১ সেপ্টেম্বর, ২০২০
২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন