Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ২১ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

ব্রাজিলে করোনা ঠেকাতে ‘স্ট্রিট প্রেসিডেন্ট’ নিয়োগ করছে বাসিন্দারা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ জুন, ২০২০, ৪:০৪ পিএম

ব্রাজিলের সবচেয়ে জনবহুল শহর সাও পাওলোর বৃহত্তম বস্তির নাম ‘পারাইসোপোলিস’। করোনা সংক্রমণ মোকাবেলায় সেখানে ৪০০ ‘স্ট্রিট প্রেসিডেন্ট’ নিয়োগ করেছেন স্থানীয় মানুষ। প্রশাসনের ব্যর্থতার কারণে ব্রাজিলের যে অঞ্চলগুলিতে করোনা সংক্রমণ সবচেয়ে বেশি, সেখানে স্থানীয় মানুষ নিজেদের উদ্যোগে ভাড়া করেছেন অ্যাম্বুলেন্স, তৈরি করেছেন আনএমপ্লয়মেন্ট ফান্ড, নিজেরাই করোনা আক্রান্ত ও মৃতদের সংখ্যার হিসাব রাখছেন।

পারাইসোপোলিসের একটা অঞ্চলের নাম ভিয়েলা ডা হারমোনিয়া। সেখানকার ‘প্রেসিডেন্ট’ ২৪ বছর বয়সী সিঙ্গল মাদার ল্যারিসা ডা সিলভা। কয়েকদিন আগেও খুবই অভাবের মধ্যে ছিলেন। এখন তিনি বস্তির ৭০ টি পরিবারকে দেখভাল করেন। নিয়মিত বস্তি অঞ্চল পরিদর্শনে যান তিনি। তার কাছে নানা অভাব-অভিযোগের কথা তুলে ধরেন স্থানীয় মানুষ। কেউ বলেন, করোনা মহামারীর সময় তার ঘরের সব জিনিসপত্র ফুরিয়ে গিয়েছে। মুদির দোকান থেকে কেউ কয়েকটা জিনিস কিনে এনে দিলে ভাল হয়। এক শিশুর বলেছেন, তার কয়েকটি ডায়াপার দরকার। একটি পরিবার চাইল সাবান। বস্তিবাসীদের বক্তব্য, করোনা ঠেকাতে প্রশাসন ব্যর্থ। তাই সাধারণ মানুষকেই উদ্যোগ নিতে হবে যাতে মহামারীর সঙ্গে মোকাবিলা করা যায়।

এশিয়া, ইউরোপ ও আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্র ক্রমশ লকডাউন থেকে বেরিয়ে আসার চেষ্টা করছে। একটু একটু করে সচল হচ্ছে অর্থনীতি। এমন সময় করোনা রোগীর সংখ্যা হু হু করে বাড়ছে লাতিন আমেরিকায়। লাতিন আমেরিকাকে বলা হচ্ছে, মহামারীর নতুন হট স্পট। ব্রাজিলে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৭ লাখের বেশি মানুষ। মারা গিয়েছেন ৩৭ হাজার। আক্রান্তের সংখ্যার বিচারে আমেরিকার পরেই আছে ব্রাজিল। এপিডেমোলজিস্টদের মতে, ব্রাজিলে আক্রান্তের সংখ্যা অনেক কমিয়ে বলা হচ্ছে। সূত্র: ওয়াশিংটন পোস্ট।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ব্রাজিল


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ