Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬ আশ্বিন ১৪২৭, ০৩ সফর ১৪৪২ হিজরী

প্রধানমন্ত্রীকে সরিয়ে দিলেন প্রেসিডেন্ট আসাদ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ জুন, ২০২০, ১২:০৯ পিএম

সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের নির্দেশেই প্রধানমন্ত্রী ইমাদ খামিসকে পদচ্যুত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে আনাদলু। এ পদে বসানো হয়েছে সিরিয়ার পানি সম্পদ মন্ত্রী হুসেন আরনসকে। করোনাভাইরাস মহামারি চলাকালীন সিরিয়ার অর্থনীতি মারাত্মকভাবে হোচট খায়। আর এর দায় নিয়েই পদ থেকে সরে দাঁড়াতে বাধ্য হয়েছেন ইমাদ খামিস। দেশটিতে হঠাত করেই ডলারের বিপরীতে মুদ্রা লিরার মূল্য কমতে শুরু করেছে। গত বছরের শেষ দিকে এক ডলারে পাওয়া যেত ১০০০ লিরা। কিন্তু সেটির মান কমতে কমতে এখন দাঁড়িয়েছে ডলার প্রতি ২৫০০ লিরায়।

প্রধানমন্ত্রীকে সরানোর পেছনে সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমে প্রাথমিকভাবে কোনো কারণের কথা উল্লেখ করা হয়নি। ২০১৬ সাল থেকে ক্ষমতায় ছিলেন খামিস। শুধু জানানো হয়েছে, পানিসম্পদ মন্ত্রী হুসেন আর্নুস নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেবেন।

রয়টার্স-সহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, যুদ্ধকবলিত সিরিয়ার অর্থনৈতিক পরিস্থিতি গত কয়েক মাসে আশঙ্কাজনকভাবে খারাপ হতে থাকে। বেড়েছে মুদ্রাস্ফীতি। বিষয়টি নিয়ে আসাদের সঙ্গে খামিসের মতবিরোধ সৃষ্টি হয়। নতুন প্রধানমন্ত্রী হতে যাওয়া ৬৭ বছর বয়সী আর্নুস ইদলিবে জন্মগ্রহণ করেন। দীর্ঘদিন ধরে তিনি বিভিন্ন সরকারি পদে কাজ করেছেন।

প্রায় এক দশক আগে সিরিয়ায় সংঘাতের শুরু। প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদকে উৎখাতে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বে পশ্চিমা দেশগুলো অনেক চেষ্টা করে। কিন্তু এই যুদ্ধে আসাদের পক্ষে রাশিয়া যুক্ত হওয়ার পর পরিস্থিতি দ্রুত বদলে এক সর্বাত্মক গৃহযুদ্ধে পড়ে দেশটি।

আর এ যুদ্ধে নিহত হয়েছে আড়াই লাখের বেশি মানুষ। বাস্তুচ্যুত হয়েছে ১ কোটি ৩৫ লাখ। ইতিমধ্যে গৃহযুদ্ধ থেকে বাঁচতে সিরিয়া থেকে ইউরোপে পাড়ি জমিয়েছে হাজারো শরণার্থী।

সিরিয়া যুদ্ধে দেশজুড়ে টানা জয় পেয়ে যাচ্ছেন প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদ। চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন সিরিয়ার পুনর্গঠনের। তবে এরইমধ্যে অর্থনীতির এ বেহাল দশা। তাই দেরি না করে প্রধানমন্ত্রীকে সরিয়ে দিয়ে অবস্থা নিয়ন্ত্রণে রাখতে চাইছেন বাশার আল-আসাদ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সিরিয়া


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ