Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ৭ কার্তিক ১৪২৭, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

ইংল্যান্ড সফরে পাকিস্তানের বিশাল বহর

যাওয়া হচ্ছে না আমির-সোহেলের

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ জুন, ২০২০, ১২:০০ এএম

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের সফরের মাঝেই খবরটি চাউর হয়েছিল। ইংল্যান্ড সফরে যাচ্ছে পাকিস্তানও। এবার সেই সফরের জন্য ২৯ সদস্যের স্কোয়াড ঘোষণা করেছে এশিয়ার পরাশিক্তিরা। দলে নতুন মুখ একটি। ১৯ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান হায়দার আলি প্রথমবারের মতো ডাক পেয়েছেন জাতীয় দলে। গতকাল ১৪ জন সাপোর্ট স্টাফের নামও ঘোষণা করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। অর্থাৎ সবমিলিয়ে ৪৩ জনের বিশাল বহর নিয়ে ইংল্যান্ডে যাচ্ছে দলটি। তাদের প্রথম ঠিকানা হতে পারে বার্মিংহাম।
তবে সফর নিশ্চিত হলেও প্রথম ম্যাচের কয়েক সপ্তাহ আগে ইংল্যান্ডে যেতে হবে পাকিস্তান দলের। কারণ, বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে এবং অনুশীলনও করতে হবে। কোভিড-১৯ বদলির কথা মাথায় রেখে চার জনের একটি রিজার্ভ তালিকাও দেওয়া হয়েছে। আগামী ২০ ও ২৫ জুন সফরপ‚র্ব কোভিড-১৯ পরীক্ষা করানো হবে দলের সবার। মূল স্কোয়াডের কেউ পরীক্ষায় উতরাতে না পারলে বদলি নেওয়া হবে রিজার্ভ থেকে।
পিসিবির ২০২০-২১ মৌসুমের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে ইমার্জিং ক্যাটাগরিতে স্থান পাওয়া হায়দারের প্রতিভা নিয়ে কোনো সংশয় নেই। গেল বছরটা দুর্দান্ত কেটেছে তার। বাংলাদেশে হয়ে যাওয়া সবশেষ ইমার্জিং কাপ ও অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে ব্যাট হাতে সামর্থ্যরে প্রমাণ রেখেছেন তিনি। মাঝপথে স্থগিত হয়ে যাওয়া পাকিস্তান সুপার লিগে (পিএসএল) তিনি উপহার দেন বিধ্বংসী ব্যাটিং। ৯ ম্যাচে ১৫৮ স্ট্রাইক রেটে করেন ২৩৯ রান।
লম্বা সময় পর দলে ফিরেছেন সোহেল খান। এই ৩৬ বছর বয়সী ডানহাতি পেসার ২০১৬ সালে শেষবার পাকিস্তানের হয়ে খেলেছিলেন। কেন্দ্রীয় চুক্তির বাইরে থাকা খেলোয়াড়দের মধ্যে আরও ডাক পেয়েছেন ফাহিম আশরাফ, ফাওয়াদ আলম, হারিস রউফ, ইমরান খান, খুশদিল শাহ, মোহাম্মদ হাফিজ, মোহাম্মদ হাসনাইন, শোয়েব মালিক ও ওয়াহাব রিয়াজ।
ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে অবশ্য সফর থেকে নিজেদের আগেই সরিয়ে নিয়েছেন বাঁহাতি পেসার মোহাম্মদ আমির ও বাঁহাতি ব্যাটসম্যান হারিস সোহেল। গত বছর টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়া আমির আগামী আগস্টে দ্বিতীয়বারের মতো বাবা হতে যাচ্ছেন। সবশেষ তিনি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন গত বছরের নভেম্বরে; অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে। আর পারিবারিক কারণে নিজেকে সরিয়ে নেওয়া হারিস সবশেষ টেস্ট খেলেছেন গত ফেব্রুয়ারিতে; বাংলাদেশের বিপক্ষে। আর সবশেষ টি-টোয়েন্টি খেলেছেন গত নভেম্বরে; অস্ট্রেলিয়া সফরে।
পাকিস্তানের আগেই আগামী মাসে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ খেলবে ইংল্যান্ড। সিরিজগুলি আয়োজন করা ‘জীবাণুমুক্ত’ পরিবেশে ও দর্শকশূন্য মাঠে।

পাকিস্তানের ২৯ সদস্যের স্কোয়াড
ওপেনার : আবিদ আলি, ফখর জামান, ইমাম উল হক ও শান মাসুদ।
মিডল অর্ডার : আজহার আলি (টেস্ট অধিনায়ক), বাবর আজম (টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক), আসাদ শফিক, ফাওয়াদ আলম, হায়দার আলি, ইফতিখার আহমেদ, খুশদিল শাহ, মোহাম্মদ হাফিজ ও শোয়েব মালিক।
উইকেটরক্ষক : মোহাম্মদ রিজওয়ান ও সরফরাজ আহমেদ।
পেসার : ফাহিম আশরাফ, হারিস রউফ, ইমরান খান, মোহাম্মদ আব্বাস, মোহাম্মদ হাসনাইন, নাসিম শাহ, শাহিন শাহ আফ্রিদি, সোহেল খান, উসমান শিনওয়ারি ও ওয়াহাব রিয়াজ।
স্পিনার : ইমাদ ওয়াসিম, কাশিফ ভাট্টি, শাদাব খান ও ইয়াসির শাহ।
রিজার্ভ : বিলাল আসিফ, মোহাম্মদ নওয়াজ, ইমরান বাট ও মুসা খান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইংল্যান্ড-সফর
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ