Inqilab Logo

শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ০৭ কার্তিক ১৪২৮, ১৫ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

লোনা পানিতে ভাসছে আট গ্রামের মানুষ

মোস্তফা শফিক, কয়রা (খুলনা) থেকে : | প্রকাশের সময় : ১৪ জুন, ২০২০, ১২:০০ এএম

ঘূর্ণিঝড় আম্পানে বিধবস্ত কয়রা উপজেলার উত্তর বেদকাশী ইউনিয়নের ৮টি গ্রাম এখনো লোনা পানিতে ভাসছে। ২২ দিন অতিবাহিত হলেও আজও লোনা পানি মুক্ত হতে পারেনি ৮ গ্রামের মানুষ।

জানা যায়, গত ২০ মে ঘূর্ণিঝড় আম্পানের আঘাতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ১৭টি স্থানে বাঁধ ভেঙে লন্ডভন্ড হয়ে যায় উপজেলার ৪টি ইউনিয়ন। এর মধ্যে কয়রা, মহারাজপুর ও দক্ষিণ বেদকাশী ইউনিয়নের ১৪টি স্থানে ভেঙে যাওয়া বেড়িবাঁধ স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে আটকানো হলেও উত্তর বেদকাশী ইউনিয়ানের ৩টি স্থানে ভেঙে যাওয়া বেড়িবাঁধ আটকানো সম্ভব হয়নি।

ফলে এলাকার মানুষ ২২ দিন পানিবন্ধি অবস্থায় মানবেতর জীবন যাপন করছে। জোয়ার-ভাটার পানি আসা যাওয়া করছে, নিদারুন কষ্টে দিনাতিপাত করতে হচ্ছে তাদের। লোনা পানিতে ডুবে থাকা ঘরবাড়িতে কেউ ফিরতে পারছে না। যোগাযোগ ব্যবস্থা বিছিন্ন হয়ে যাওয়ায় এাণ সামগ্রী বিতরণ কষ্টসাধ্য হয়ে ওঠেছে। উত্তর বেদকাশী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আলহাজ সরদার নুরুল ইসলাম বলেন, বাঁধের কাজ চলমান রয়েছে। আশা করি দ্রুত সময়ের মধ্যে ভেঙে যাওয়া বেড়িবাঁধ মেরামত সম্ভব হবে।
উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ এসএম শফিকুল ইসলাম বলেন, আম্পানের আঘাতে ভেঙে যাওয়া বেড়িবাঁধ সংস্কার চলমান রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ঘূর্ণিঝড়

৩ অক্টোবর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন