Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭, ২০ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

নাসিমকে নিয়ে স্ট্যাটাস, ইবি শিক্ষার্থী বহিষ্কার

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ জুন, ২০২০, ৯:৩৪ এএম

সদ্য ইন্তেকাল করা আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ নাসিমকে নিয়ে ফেসবুক স্ট্যাটাসে কটূক্তি করায় সাদিকুল ইসলাম নামে এক শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে কর্তৃপক্ষ। একইসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃঙ্খলা বিধি মোতাবেক তাকে কেন স্থায়ী বহিষ্কার করা হবে না এ মর্মে কারণ দর্শানোর পত্র প্রাপ্তির আগামী সাত দিনের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্টার ই-মেইলে প্রেরণের জন্য বলা হয়েছে।

বহিষ্কৃত সাদিকুল ইসলাম ছাত্র ইউনিয়ন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় সংসদের (ইবি) সাধারণ সম্পাদক

এদিকে এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টাকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি করেছে প্রশাসন। সোমবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্টার এস এম আব্দুল লতিফ স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়েছে, বাংলা বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র সাদিকুল ইসলাম তার ফেসবুক আইডিতে বিভিন্ন বর্ষীয়ান, জাতীয়, রাজনীতিবিদ, বুদ্ধিজীবী ও রাজনৈতিক দল সম্পর্কে অশ্লীল, ব্যঙ্গাত্মক আপত্তিকর, প্রতিহিংসামূলক ও নৈতিক মূল্যবোধ পরিপন্থী বক্তব্য ধারাবাহিকভাবে উপস্থাপন করে চলেছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন দৃঢ় হস্তে করোনা সংকট মোকাবেলা করে চলেছেন এবং মৃত ব্যক্তির জন্য দলমত নির্বিশেষে সবাই গভীরভাবে শোকাহত। এমতাবস্থায় ওই ছাত্রের স্ট্যাটাস বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি বিনষ্ট করেছে। যা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি সৃষ্টির কারণ হতে পারে ধারনা করে এমন ধারাবাহিক কর্মকাণ্ডের জন্য তাকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে সাদিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, আমার কিছু ফেসবুক পোস্টকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীর প্রতিবাদের প্রক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আমি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সিদ্ধান্তের বিষয়ে অবগত হয়েছি। এটা সাময়িক বহিষ্কারাদেশ। আমাকে কারণ দর্শানোর জন্য সাত দিন সময় দেয়া হয়েছে। আমি প্রশাসনের কাছে আমার যৌক্তিক অবস্থান তুলে ধরে কারণ দর্শাবো।



 

Show all comments
  • Mohsin Uddin ১৭ জুন, ২০২০, ২:০০ এএম says : 0
    স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় তো এমনিতেই এখন বন্ধ। সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করলেই কি আর না করলেই কি। হাস্যকর ব্যাপার।
    Total Reply(0) Reply
  • এক পথিক ১৭ জুন, ২০২০, ৯:৫১ এএম says : 0
    যারা সামাজিক মাধ্যমে আবোল-তাবোল লিখে তারা যেমন বোকা; যারা এসব নিয়ে তিলকে তাল করে তারাও তেমনি বোকা। আমেরিকার প্রেসিডেন্ট বা কানাডার প্রধানমন্ত্রীকে ব্যাঙ্গ করে আপনি টুইট দিন, আপনার কিচ্ছু হবে না; ওসব দেশের সরকারি কর্মকর্তাদের এসব তুচ্ছ বিষয় নিয়ে মাথা ঘামানোর সময় নেই; ওরা জনগণের সেবা নিয়েই বেশি ব্যস্ত।
    Total Reply(0) Reply
  • বিবেগ ১৭ জুন, ২০২০, ১:১৯ পিএম says : 0
    আমেরিকাতে জনগন ডোনাল্ডট্রাম্পের বিশালকার মুর্তি বানিয়ে পিছনে লাথি মারার পরেও তাদের সরকার বা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কেউ সাধারন জনগনকে হেনস্তা করলোনা। আর আমাদের দেশে বিতর্কিত দুর্নীতি পরায়ন সকল ব্যাক্তিদের নিয়ে সাধারন জনগনের কেউ একটু টু শব্দ করলেই গ্রেফতার হামলা নির্যাতন। এর পরেও কি করে সরকার বলে দেশে জনগনের ফ্রীডম স্পীচ আছে???
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বহিষ্কার


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ