Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ৮ কার্তিক ১৪২৭, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

আন্তর্জাতিক অধিকার ও ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় ইরান-রাশিয়ার গুরুত্বারোপ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ জুন, ২০২০, ২:৪২ পিএম

আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক সমস্যাগুলোর জরুরি সমাধানের লক্ষ্যে ন্যায্য ও বহুমুখি সমাধানের ব্যাপারে সম্মত হয়েছে ইরান-রাশিয়া। প্রচলিত আন্তর্জাতিক আইনের ভিত্তিতে এ লক্ষ্যে এগিয়ে যেতে দেশদুটো ঐকমত্য পোষণ করেছে।

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাওয়াদ জারিফ এবং তার রুশ সমপক্ষ সের্গেই ল্যাভরভ গতকাল মস্কোয় এক যৌথ বিবৃতিতে ওই সিদ্ধান্তের কথা জানান। দুদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীই নিজেদের অভ্যন্তরীণ কিংবা পররাষ্ট্র বিষয়ে বিশেষ করে বৈধ সরকার পরিবর্তনের জন্য অন্য দেশ বা সরকারগুলোর যে-কোনো রকমের হস্তক্ষেপের নিন্দা জানান।

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাওয়াদ জারিপ তুরস্ক সফরের পর রাশিয়া সফর করেন। আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে চলমান পরিস্থিতিতে জারিপের কূটনৈতিক এই সফর শেষে প্রকাশিত যৌথ বিবৃতিতে গুরুত্বপূর্ণ কিছু দিক রয়েছে। আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সমঝোতা ও বিশ্ব সংস্থা বিশেষ করে জাতিসংঘের নির্বাহী পরিষদ ও নিরাপত্তা পরিষদের বিভিন্ন ইশতেহার থেকে আমেরিকা একের পর এক নিজেকে প্রত্যাহার করে নিয়েছে। এই ঘটনা আন্তর্জাতিক রীতিনীতি ও শৃঙ্ক্ষলার ওপর মারাত্মক নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে। ইরানের ওপর আরোপিত অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের বিষয়টিও জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের তেমনি একটি প্রস্তাবের অন্তর্ভুক্ত। এ বিষয়টি নিয়েও রুশ-ইরান পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের আলোচনায় স্থান পেয়েছে।

চলতি বছরের ১৮ অক্টোবরে অস্ত্র নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হতে যাচ্ছে। মার্কিন অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ সংস্থার অস্ত্র বিস্তার রোধ বিভাগের পরিচালক কেলসি ডেভেনপোর্ট বলেছেন: পম্পেও যদি ইরানের ওপর নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করে তাহলে পরমাণু সমঝোতার কবর রচিত হবে। কেননা পরমাণু সমঝোতায় দেওয়া অঙ্গিকারগুলো ইরান পুঙ্খানুপুঙ্খ বাস্তবায়ন করেছে যদিও বহুমুখি এই অঙ্গিকারগুলো সমঝোতার সকল পক্ষকেই সমানভাবে মেনে চলার কথা ছিল।  আমেরিকা নিরাপত্তা পরিষদের ২২৩১ নম্বর প্রস্তাবের ২৫ নম্বর অনুচ্ছেদ লঙ্ঘন করেছে। এখন পরমাণু সমঝোতাকে পুরোপুরি ধ্বংস করে দেওয়ার পথে রয়েছে। এ বিষয়টি আইএইএ'র মহাসচিবের প্রতিবেদনে উল্লেখ করার জন্য নিরাপত্তা পরিষদে নিযুক্ত ইরানের প্রতিনিধি কাজেম গারিবাবাদি নির্বাহী পরিষদের মৌসুমি বৈঠকে আহ্বান জানিয়েছেন।

জারিপের মস্কো সফরকালে জানানো তাঁর ওই আহ্বান গুরুত্বের দাবি রাখে। গারিবাবাদি বলেন: সমঝোতার অপর পক্ষগুলো বিশেষ করে ইউরোপীয় তিনটি দেশসহ আন্তর্জাতিক সমাজের উচিত দেরি না করে পরমাণু সমঝোতায় দেওয়া নিজেদের অঙ্গিকারগুলো বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে আস্থা ও বিশ্বাসযোগ্যতা দৃঢ় করা। তা না হলে ইরান বিরোধী কোনো প্রস্তাব গৃহীত হলে ইরানও নিরুপায় হয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হবে। তার পরিণতি সম্পর্কে অঙ্গিকার বাস্তবায়ন করতে অক্ষম ইউরোপীয় পক্ষগুলোকেও উপলব্ধি করা উচিত। গারিবাবাদি তাই ইউরোপীয় পক্ষগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন পরমাণু সমঝোতা রক্ষায় তারা যদি কোনো পদক্ষেপ নিতে নাই পারে অন্তত পরিস্থতিকে যেন জটিলতর না করে।

সূত্র: পার্সটুডে



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ