Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭, ২০ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

সাবেক নারী ফুটবলার সুইনু নতুন ভূমিকায়

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ জুন, ২০২০, ৭:০৫ পিএম | আপডেট : ৭:০৭ পিএম, ১৮ জুন, ২০২০

সুইনু প্রু মারমা ও মাইনু মারমা নামে রাঙামাটির কাউখালির দুই বোন এক সময় দাপিয়ে বেড়িয়েছেন ফুটবল মাঠ। ২০০৫ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত টানা ৯ বছর বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলের মাঝমাঠের চালিকা শক্তি ছিলেন সুইনু ও মাইনু। তাই দেশের ফুটবলপ্রেমীদের কাছে পরিচিত মুখ তারা। এক সঙ্গে খেললেও মাইনুর চেয়ে দুই বছরের বড় ছিলেন সুইনু। খেলা ছেড়ে দিলেও ফুটবলের টানে ঠিকই মাঠে ফিরেছেন বড় বোন সুইনু প্রু মারমা। তবে এবার খেলোয়াড় হিসেবে নয়, নতুন ভূমিকায় জাতীয় নারী দলের সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন তিনি। গত ১ এপ্রিল হেড অব উইমেন্স ফুটবল উইংস হিসেবে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনে (বাফুফে) চাকরি নিয়েছেন সুইনু। অবশ্য জাতীয় দল ও বাংলাদেশ আনসারের হয়ে দীর্ঘদিন খেলা এই মিডফিল্ডার বাফুফেতে চাকরি নেয়ার পরপরই বেকার হয়ে পড়েন। কারণ মার্চের মাঝামাঝি থেকেই করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্বব্যাপী সব খেলাধুলা বন্ধ হয়ে যায়। এ ধরাবাহিকতায় স্থগিত করা হয় বাংলাদেশ ফুটবলের সব কার্যক্রম। ফলে বর্তমানে গাজীপুরে স্বামী ও সন্তান নিয়ে অবসর সময় কাটাচ্ছেন সুইনু। ২০১৪ সালে জাতীয় দল থেকে অবসর নেয়ার পরপরই সংসার জীবন শুরু করেন সুইনু প্রু মারমা। তিনি বিয়ে করেছেন দেশের ক্রীড়াঙ্গনের পরিচিত মুখ আরচ্যারি কোচ মো. সাজ্জাদ হোসেনকে। বছর পাঁচেক আগে এক কন্যা সন্তানের মা হয়েছেন সুইনু। কন্যা আসফিয়া বিনতে সাজ্জাদকে নিয়েই করোনাকালের সময়টা কাটাচ্ছেন এই ক্রীড়াবিদ দম্পতি।

জাতীয় নারী দলের এই সাবেক তারকা ফুটবলার সুইনু মারমারা চার ভাই-বোন। এর মধ্যে সুইনু ও মাইনুই খেলাধুলার সঙ্গে জড়িত। জাতীয় দলে নতুন দায়িত্ব পাওয়া প্রসঙ্গে সুইনু বলেন, ‘আমি দীর্ঘদিন জাতীয় দলে খেলেছি। এখন সেই জাতীয় দলের সঙ্গেই কাজ করব। যখন খেলেছি তখন দায়িত্ব ছিল মাঠে, এখন মাঠের বাইরে। ফুটবলের সঙ্গে জড়িয়ে থাকার ইচ্ছে থেকেই দায়িত্বটা নিয়েছি। এটা আমার জন্য নতুন চ্যালেঞ্জ। আশা করি, সবার সহযোগিতা নিয়ে নতুন দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করতে পারব।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নারী ফুটবলার
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ