Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারি ২০২১, ০৭ মাঘ ১৪২৭, ০৭ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

করোনায় স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষিত

রাজধানীতে কোরবানির পশুর হাট ইজারা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৯ জুন, ২০২০, ১২:০১ এএম

ডিএসসিসি দিয়েছে ১৪টির দরপত্র : ডিএনসিসি দেবে ১০ হাটের

করোনাভাইরাস কতদিন থাকবে কেউ জানেন না। এই ভাইরাসের মধ্যেই রমজানের পর ঈদুল ফিতর উদযাপিত হয়েছে। এখন প্রতিদিন করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যের সংখ্যা বাড়ছে। তবুও সামনে উদযাপন করতে হবে মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আজহা। এখনই ঈদুল আজহায় কোরবানীর পশু কেনাবেচার জন্য রাজধানী ঢাকায় হাট বসানোর প্রস্তুতি শুরু হয়ে গেছে। ঢাকা দক্ষিণ সিটি ১৪টি হাটের দরপত্র দিয়েছে। কিন্তু সেখানে করোনা স্বাস্থ্যবিধি সংক্রান্ত কোনো নির্দেশনার উল্লেখ নেই। স্থানীয় প্রশাসন তথা সিটি কর্পোরেশন সাধারণত কোরবানির পশুর হাট বসানোর অনুমতি দেন। এবার পবিত্র ঈদুল আজহায় ঢাকার দুই সিটির ২৪ স্থানে বসবে কোরবানির পশু বেচাকেনার অস্থায়ী হাট। এর মধ্যে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) এলাকায় ১৪টি ও ঢাকা উত্তর সিটি (ডিএনসিসি) এলাকায় ১০টি হাট বসবে। হাট ইজারা দিতে দুই সিটি করপোরেশন প্রক্রিয়া শুরু করেছে। তবে এ সব অস্থায়ী হাটে করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি কীরকম হবে সে বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি।

জানতে চাইলে ডিএসসিসির প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা মো. রাসেল সাবরিন বলেন, ডিএসসিসি এলাকার অস্থায়ী কোরবানীর পশুর হাটের দরপত্র প্রকাশ করে ইজারার জন্য বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়েছে। ইজারা চুড়ান্ত হলে করোনা সংক্রান্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে কীভাবে হাট পরিচালনা করা হবে সে বিষয়ে পরে ইজারাপ্রাপ্তদের নির্দেশনা দেওয়া হবে।
জানা গেছে পশুর হাট ইজারা চূড়ান্ত করতে এরইমধ্যে দরপত্র আহŸান করেছে ডিএসসিসি। তবে ডিএনসিসি এখনও পশুর হাট ইজারার দরপত্র চূড়ান্ত করতে পারেনি। প্রস্তুতি চলছে। আগামী ২১ জুন উন্মুক্ত দরপত্র আহŸান করা হতে পারে বলে জানা গেছে।

ডিএসসিসি সূত্রে জানা গেছে, গত ১৪ জুন ১৪টি হাটের অস্থায়ী ইজারার জন্য দরপত্র আহŸান করা হয়েছে। আগামী ২৮ জুন প্রথম পর্যায়ে দরপত্র কেনার শেষ সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। দরপত্র জমা দিতে হবে ২৯ জুন। দ্বিতীয় পর্যায়ে দরপত্র কেনার শেষ সময় নির্ধারণ করা হয়েছে ৮ জুলাই। আর জমা দেওয়ার শেষ সময় ৯ জুলাই। তৃতীয় পর্যায়ে দরপত্র কেনার শেষ সময় ১৯ জুলাই এবং জমা দেওয়ার শেষ সময় ২০ জুলাই। দরপত্র আহŸান করা অস্থায়ী পশুর হাটগুলো হলো-উত্তর শাহজাহান পুরের মৈত্রী সংঘ মাঠ এলাকার খালী জায়গা, হাজারীবাগের ইনস্টিটিউট অফ লেদার টেকনোলোজি মাঠ সংলগ্ন খালি জায়গা, কামরাঙ্গীরচরের ইসলাম চেয়ারম্যান বাড়ি থেকে দক্ষিণ বুড়িগঙ্গা বাঁধ পর্যন্ত খালি জায়গা, পোস্তাগোলা শ্মশান ঘাটের খালি জায়গা, শ্যামপুর বালুর মাঠ, খিলগাঁও মেরাদিয়া বাজার, আরমানিটোলা মাঠ, গোপীবাগে বালুর মাঠ ও কমলাপুর স্টেডিয়াম সংলগ্ন খালি জায়গা, যাত্রাবাড়ির দনিয়া কলেজ সংলগ্ন আশপাশের খালি জায়গা, ধূপখোলা মাঠ, সাদেক হোসেন খোকা মাঠ সংলগ্ন ধোলাইখাল ট্রাকস্ট্যান্ড এলাকা, ডিএসসিসির আফতাফ নগরের (ইস্টার্ন হাউজিং) বøক ই, এফ, জি ও এইচ এবং শেকশন ১ ও ২ এর খালি জায়গা, আমুলিয়া মডেল টাউনের খালি জায়গা এবং লালবাগের রহমতগঞ্জ খেলার মাঠ।

দরপত্রে উত্তর শাহজাহান পুরের মৈত্রী সংঘ মাঠ ইজারা মূল্য ৮ লাখ ৬৯ হাজার ৫৫৫ টাকা, হাজারীবাগের ইনস্টিটিউট অব লেদার টেকনোলোজি মাঠ সংলগ্ন খালি জায়গার ইজারা মূল্য ১ কোটি ৭ লাখ ৬ হাজার টাকা, কামরাঙ্গীরচরের ইসলাম চেয়ারম্যান বাড়ি ৫ লাখ ৭২ হাজার ৪০০ টাকা। পোস্তগোলা শ্মশান ঘাট ৩১ লাখ ৬৯ হাজার ৪০০ টাকা, শ্যামপুর বালুর মাঠ ১ কোটি ২ লাখ ১১ হাজার ৩৩৫ টাকা, খিলগাঁও মেরাদিয়া বাজার ১ কোটি ৯ লাখ ৩৯ হাজার ৮০০ টাকা, আরমানিটোলা মাঠ ১ কোটি ৬৫ লাখ ২৮ হাজার ৫৪ টাকা, গোপীবাগ বালুর মাঠ ও কমলাপুর স্টেডিয়াম সংলগ্ন খালি জায়গা ৮৭ লাখ ২০ হাজার ৬৮৫ টাকা, দনিয়া কলেজ সংলগ্ন খালি জায়গা ১ কোটি ৫৪ লাখ ৪০ হাজার ৬৬৭ টাকা, ধূপখোলা মাঠ সংলগ্ন খালি জায়গা ৪৬ লাখ ৮১ হাজার ৩৩৪ টাকা, সাদেক হোসেন খোকা মাঠ সংলগ্ন ধোলাইখাল ট্রাকস্ট্যান্ড ২৬ লাখ ৮৭ হাজার ৮০৭ টাকা, ডিএসসিসির (ইস্টার্ন হাউজিং) বøক ই, এফ, জি ও এইচ এবং সেকশন ১ ও ২ এর খালি জায়গা ৬৬ লাখ ২৫ হাজার টাকা, আমুলিয়া মডেল টাউন ১১ লাখ ১৫ হাজার ৬৫০ টাকা এবং লালবাগের রহমতগঞ্জ খেলার মাঠ ১১ লাখ ৭৩ হাজার ৩৫০ টাকা ইজারা মূল্য ধরা হয়েছে। তবে প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে করোনাকালে পশুর হাটে কী ধরনের নিয়ম অনুসরণ করা হবে সে বিষয়ে কোনো তথ্য উল্লেখ করা হয়নি।

এদিকে ডিএনসিসির সম্পত্তি বিভাগ সূত্রে জানা যায়, এ বছর ডিএনসিসি এলাকায় ১০টি অস্থায়ী পশুর হাট ইজারা দেওয়া হবে। হাটগুলো এখনও চূড়ান্ত করা হয়নি। আগামী রোববার এ ব্যাপারে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে।
ডিএনসিসি সূত্রে জানা গেছে, এবারও উত্তরা ১৫ নম্বর সেক্টরের ১ নম্বর ব্রিজের পশ্চিম অংশে ও ২ নম্বর ব্রিজের পশ্চিমে গোলচত্বর পর্যন্ত সড়ক, মোহাম্মদপুর বুদ্ধিজীবী সড়কসংলগ্ন (বছিলা), মিরপুর পুলিশ লাইনস, মিরপুর সেকশন-৬, ওয়ার্ড-৬-এর (ইস্টার্ন হাউজিং), ভাটারা (সাঈদনগর) পশুর হাট, মিরপুর ডিওএইচএসের উত্তর পাশের সেতু প্রপার্টি, ঢাকা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট খেলার মাঠ, বাড্ডার ইস্টার্ন হাউজিং (আফতাবনগর) বøক-ই, আফতাবনগর সেকশন-৩-এর খালি জায়গা, কাওলা-শিয়ালডাঙ্গাসংলগ্ন খালি জায়গা ও মিরপুরের ভাষানটেক মাঠে অস্থায়ী পশুর হাট ইজারা দিতে পারে ডিএনসিসি।

হাটগুলোর স্বাস্থ্যবিধি কী রকম হতে পারে জানতে চাইলে ডিএনসিসি’র প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা মো. মোজাম্মেল হক বলেন, করোনাভাইরাস পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করছে স্বাস্থ্যবিধি কী রকম হবে। তবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর যে সব নির্দেশনা দেবে সেগুলো মেনে চলা হবে। নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রাখা হবে। তবে হাটের জায়গা আগের মতোই থাকবে।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনা

২১ জানুয়ারি, ২০২১
২১ জানুয়ারি, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ