Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ২১ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

ভারতকে হুঁশিয়ারি চীনের

সীমান্তে শক্তি প্রদর্শন ২ মেজরসহ ১০ ভারতীয় সেনার মুক্তি চীনা পণ্য বর্জনে ক্ষতি হবে ১৭ বিলিয়ন ডলার ২৩ জুন রাশিয়ার সাথে ত্রিপাক্ষিক বৈঠক

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ জুন, ২০২০, ১২:০১ এএম

চীন যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত এবং তারা ভারতের যে কোনও আগ্রাসন প্রতিহত করবে। গতকাল ভারতকে হুঁশিয়ারি দিয়ে চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমে এই কথা বলা হয়েছে। লাদাখ সীমান্তে সংঘর্ষ নিয়ে এদিন সর্বদলীয় বৈঠকে বসেছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এর আগে, আটক ১০ ভারতীয় সেনাকে বৃহস্পতিবার রাতে ফেরত দিয়েছে চীন। এদিকে, ভারতজুড়ে চীনা পণ্য বর্জনের ডাক দেয়া হয়েছে। তবে দেশটির অর্থনীতিবিদরা জানিয়েছেন, এতে ভারতের অন্তত ১৭ বিলিয়ন ডলার ক্ষতি হবে। এমন পরিস্থিতির মধ্যেই আগামী ২৩ জুন ত্রিপাক্ষিক বৈঠকে বসছে রাশিয়া, চীন ও ভারত।

লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় চীনের সাথে সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন ভারতীয় সৈন্য নিহত হওয়ার পরে দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা চলছে। এর মধ্যেই গতকাল চীনের ক্ষমতাসীন কম্যুনিস্ট পার্টির সংবাদপত্র গ্লোবাল টাইমস - যার সঞ্চালন প্রায় ১৫ লাখ, ভারতকে ‘হুমকি’ হিসাবে চিহ্নিত করে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। এতে তিব্বতে উচুঁ পাহাড়ি এলাকায় ট্যাঙ্ক, সৈন্য এবং আর্টিলারি নিয়ে চীনের সাম্প্রতিক বিশাল মহড়ার চিত্র তুলে ধরা হয়। চীনা রাষ্ট্রীয় টিভিতে হিমালয়ের পর্বতশ্রেণীর সামনে সামরিক ড্রিলের ফুটেজ প্রকাশ করেছিল। জুনের শুরুতে এই মহড়া করা হয়েছিল বলে মনে করা হচ্ছে। নিজেদের অবস্থান সুরক্ষিত ও সামরিক সক্ষমতা প্রদর্শনে পিপলস লিবারেশন আর্মির (পিএলএ) প্রায় ৭ হাজার সেনা এই মহড়ায় অংশ নিয়েছিল। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, বেইজিং ‘যে কোনও আগ্রাসন কাটিয়ে উঠতে’ প্রস্তুত। এই মহড়ার মাধ্যমে চীন বুঝিয়ে দিল যে, তারা প্রস্তুত।

এদিন লাদাখ ইস্যুতে ভারতের পদক্ষেপ নির্ধারণে সর্বদলীয় বৈঠক করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ভার্চুয়াল বৈঠকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উপস্থিত ছিলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীসহ প্রায় সব বিরোধী দলেন প্রধানরাই। তবে, দুটি গুরুত্বপূর্ণ দল দিল্লির ক্ষমতাসীন আম আদমি পার্টি ও লালু প্রসাদ যাদবের আরজেডি-কে বৈঠকে আমন্ত্রণ না-জানানোয় অসন্তোষ তৈরি হয়। এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে সংঘর্ষে আটক ২ মেজর সহ ১০ ভারতীয় সেনার মুক্তি দিয়েছে চীন। দুই পক্ষের সামরিক পর্যায়ে দফায় দফায় বৈঠকের পরে তাদেরকে মুক্তি দেয়া হয়। প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়াসহ অন্যান্য সংবাদমাধ্যম এই তথ্য জানায়। এই বিষয়ে ভারতীয় সরকারের পক্ষ থেকে কোন মন্তব্য করা হয়নি।

এদিকে, লাদাখে চীনের সাথে সংঘর্ষে ২০ জন ভারতীয় সেনার মৃত্যু নিয়ে ক্ষুব্ধ ভারতীয়রা। এ কারণে সমগ্র ভারতজুড়ে ডাক উঠেছে চীনা পণ্য বয়কটের। তবে চীনা পণ্য বয়কট করলে বিপুল পরিমাণ আর্থিক ক্ষতি হতে পারে ভারতের বলে জানিয়েছেন দেশটির অর্থনীতিবিদরা। ভারতের খুচরা বাজার মূলত চীনা পণ্যেরই দখলে। ভারত বছরে প্রায় ৭৪ বিলিয়ন ডলারের পণ্য আমদানি করে চীন থেকে। এর মধ্যে খুচরা ব্যবসায়ীরা বিক্রি করেন প্রায় ১৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের মূল্যের পণ্য। চীনা পণ্য বর্জন করা হলে তাদের এই পরিমাণ অর্থ লোকসান হবে।

এমন পরিস্থিতিতেই আগামী ২৩ জুন ভার্চুয়াল কনফারেন্সের মাধ্যমে ত্রিপাক্ষিক বৈঠকে বসছে রাশিয়া, চীন ও ভারত। আগে থেকে নির্ধারিত থাকলেও পূর্ব লাদাখে গালওয়ান উপত্যকায় চীনের সঙ্গে ভারতের সংঘর্ষের প্রেক্ষাপটে এই বৈঠক নিয়ে অনিশ্চয়তার সৃষ্টি হয়েছিল। তবে নির্ধারিত সময়েই বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হবে বলে বৃহস্পতিবার নিশ্চিত করেছে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়। পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব জানিয়েছেন, তিনি দেশের ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হবে। বর্তমান প্রেক্ষাপটে এই বৈঠক খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। সূত্র : দ্য সান, এএফপি,ইকনোমিক টাইমস, হিন্দুস্থান টাইমস।



 

Show all comments
  • Md Alamin ২০ জুন, ২০২০, ১:২৯ এএম says : 0
    শিক্ষক: বল্টু বলতো বুদ্ধি কাকে বলে? বল্টু : বুদ্ধি,,,,,, পাইছি, বুদ্ধি হলো চীন যদি ভারতের সীমানা দখল করে তাদের সেনাদের মেরে শহীদও করে দেয় তবু ভারত তাদের সাথে যুদ্ধ করবে না কারণ ভারত শান্তিপ্রিয় ও শান্তি চায়। ভারতে জঙ্গিরা বোমা মেরে আধাসামরিক বাহিনীর কয়েক জনকে শহীদ করলে তার বদলা নেওয়ার জন্য ভারত পাকিস্তানে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক পরিচালনা করে কারণ তারা বীরের জাতি। আর বাংলাদেশ সীমান্তে প্রতিনিয়ত মানুষ হত্যা করে সীমান্তরক্ষীদের প্র্যাকটিসের ব্যবস্থা করা এবং নিজেদের ক্ষমতা জাহির করাই হলো বুদ্ধি। শিক্ষক : বাহ! তুই তো দেখি উদাহরণসহ সংজ্ঞা দিয়ে দিলি। আচ্ছা বলতো দেখি যারা এমন করে তাদের কি বলে?? বল্টু:,,,,,,, ,,, স্যার, শক্তের ভক্ত নরমের জম। শিক্ষক : বল্টু তকে ১০০ তে ১০০ দিলাম।
    Total Reply(1) Reply
  • Towhid Bin Alam ২০ জুন, ২০২০, ১:৩২ এএম says : 0
    ইন্ডিয়া কে বিলুপ্ত রাষ্ট্র হিসাবে ঘোষণা করা হোক ।
    Total Reply(0) Reply
  • Mehedi Masud Baschu ২০ জুন, ২০২০, ১:৩২ এএম says : 0
    #ফেলানী_শুনতে_কি_পাও চীনের সীমান্ত লাদাখে ইন্ডিয়ান আর্মিকে কঠিন মাইর দিয়েছে চীন। কোন গুলি বিনিময় হয়নি । কাটা লাগানো বিশেষ লাঠি দিয়ে ভিতরে ভিতরে জখম করে দিয়েছে জওয়ানদের। ভারতের ২০ জনের উপরে মৃত্যু । হতাহত ১২৩ জন ভারতীয় জওয়ান। চীনের হাতে আটক ৫০ জন ভারতীয় সেনা। #ফেলানী_শুনতে_কি_পাও?
    Total Reply(0) Reply
  • Aminul Mohammad Milon ২০ জুন, ২০২০, ১:৩২ এএম says : 0
    ভারতে হামলা কর। ভারত কে ভেঙ্গে ফেল। আমাদের ফেলানি কে মেরেছিল। আমরা খুনি হতে চাই না। শুধু ভারত ভেঙ্গে গেলেই খুশি।
    Total Reply(0) Reply
  • AB Malek ২০ জুন, ২০২০, ১:৩৪ এএম says : 0
    ভারতীয়রা ফেসবুকে চিনা পন্য বর্জন করার ডাক দেয়ার জন্য যে মোবাইল দিয়ে লেখালেখি করছে সেগুলো প্রতিটিই কোন না কোন চিনা কোম্পানির মোবাইল। মানে চিনা অস্ত্র দিয়ে চিনের বিরুদ্বে যুদ্ব করতে হবে। অাশ্চর্য না?
    Total Reply(0) Reply
  • Md Sirajul Islam ২০ জুন, ২০২০, ১:৩৫ এএম says : 0
    ভারতের বলিউড মুক্তি পাবে কারগিল যুদ্ধে বিজয়ের ছবি।আর কিছু দিন পর মুক্তি পাবে লাদাখ বিজয়ের ছবি। ভারত সিনেমার মধ্য সব কিছু জয় করতে পারে।
    Total Reply(0) Reply
  • Zahangir ২০ জুন, ২০২০, ১০:২৯ এএম says : 1
    ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রীসহ বিভিন্ন সামরিক বেসামরিক পন্ডিতবর্গ, টিভি চ্যানেলসমূহ বিগত ককয়েকদিন যাবত অনবরত বলে যাচ্ছে চীন তাদের ৫০-৬০ বর্গ কিলোমিটার ভূমি দখল করে বসে আছে। তারা বলছে তারা চীনের ৪০-৫০ জন সেনাকে খতম করেছে।অথচ তারাই আবার সারাক্ষণ কান্নাকাটি করছে চীন নাকি তাদেরকে গাবুর মার দিয়েছে। আর ভারতের মিডিয়াতো রীতিমতো স্বর্গ-মর্ত্যে তোলপাড় করে যুদ্ধের দামামা বাজিয়েছে। এরই মধ্যে চীন ভারতের কয়েকজন অফিসারসহ ১০ জন সেনাকে মুক্তি দিয়েছে। কিন্তু মোদিজ বলছেন ভিন্ন কথা। বলছেন চীন ভারতের এক ইঞ্চি ভূমিও দখল করে নি। কোনো তাবু গাড়েনি, কোনো তাবু দেখল করেনি। তাহলেতো সব দিক থেকে লাভ ভারতেরই। তবে এতো চিল্লা- পাল্লা কেনো। আসলে ভারতের নেতা নেত্রী ও মিডিয়ার কথা বিশ্বাস করা বড্ড কঠিন। তাদের গলার আওয়াজটা খুব বেশি। তারা শুধু পারে দুর্বল প্রতিবেশীদের উপর দাদাগিরি দেখাতে।
    Total Reply(0) Reply
  • Kamruzzaman ২০ জুন, ২০২০, ৭:৪৪ এএম says : 0
    Kashmir dokhol NRC dilli nidon babri mosq.. without cause govt. Attack muslim.. so result is galwan fight
    Total Reply(0) Reply
  • habib ২০ জুন, ২০২০, ১০:৩০ এএম says : 0
    India and Israel is a hypocrite country in the world. they did not have any sympathy to their neighbor and Muslim nations.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ