Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ০৭ আগস্ট ২০২০, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৬ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

চট্টগ্রামে সংক্রমণ বাড়ছেই

চিকিৎসায় সঙ্কট অব্যাহত

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২২ জুন, ২০২০, ১২:০০ এএম

চট্টগ্রামে ব্যাপকহারে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়লেও চিকিৎসাসেবা এখনও অপ্রতুল। বিশেষ করে জরুরি চিকিৎসায় সঙ্কট চলছে। সরকারি বেসরকারি হাসপাতালে করোনা রোগীদের জন্য আইসোলেশন শয্যা বাড়লেও সঙ্কটাপন্ন রোগীদের চিকিৎসায় এখনও পর্যাপ্ত সুযোগ সুবিবধা নিশ্চিত হয়নি। এতে রোগী মৃত্যুর হার বাড়ছে।

হাসপাতালগুলোর করোনা ইউনিটে এখন পর্যন্ত মাত্র ২৯টি আইসিইউ চালু আছে। সবকটিতে রোগী আছেন। নতুন কোন রোগী আসলে আইসিইউ সাপোর্ট দেয়া যাচ্ছে না। আবার অক্সিজেনেরও সঙ্কট আছে। সিলিন্ডারের সরবরাহ বেড়েছে। অনেকে হাসপাতালগুলোতে সিলিন্ডার সরবরাহ দিচ্ছেন। কিন্তু সঙ্কটাপন্ন রোগীদের জন্য প্রয়োজন হাই ফ্লো ন্যাসাল ক্যানেলা। এ পর্যন্ত করোনা ইউনিটে এই ক্যানেলার সংখ্যা মাত্র বিশটি।

চিকিৎসকেরা বলছেন, রোগী অনুপাতে অন্তত ৫০টি ক্যানেলা প্রয়োজন। আবার এই ক্যানেলা দিয়ে রোগীকে অক্সিজেন দিতে হলে হাসপাতালে কেন্দ্রীয় অক্সিজেন সরবরাহ ব্যবস্থা থাকতে হয়। জেনারেল হাসপাতালসহ করোনা চিকিৎসা হচ্ছে এমন অনেক হাসপাতালে সেই সুবিধাও নেই। ফলে জরুরি প্রয়োজনে রোগীদের আইসিইউর মতো অক্সিজেন সাপোর্টও দেওয়া যাচ্ছে না।

এতে প্রতিদিনই করোনা এবং উপসর্গ নিয়ে অনেক রোগীর মৃত্যু হচ্ছে। চিকিৎসকেরা বলছেন, যেসব রোগীর দ্রুত অক্সিজেন দেয়া প্রয়োজন হয় তাদের এই হাই ফ্লো ন্যাসাল ক্যানেলা দিয়ে অক্সিজেন সাপের্ট দিতে হয়। যথাসময়ে এটি দিতে পারলে রোগীর মৃত্যু কমিয়ে আনা সম্ভব। করোনা আক্রান্তদের মধ্যে সর্বোচ্চ তিন থেকে চার শতাংশ রোগীর জন্য এই সুবিধা প্রয়োজন হতে পারে। অথচ তার ব্যবস্থাও নেই চট্টগ্রামে।

চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি বলেন, জেনারেল হাসপাতাল ও হলি ক্রিসেন্ট হাসপাতালে কেন্দ্রীয় অক্সিজেন সরবরাহ ব্যবস্থা চালু হচ্ছে। সেবরকারি হাসপাতালেও এ ব্যবস্থা আছে এবং তারা আইসিইউ এবং অক্সিজেন সাপোর্ট দিতে পারছে।
এদিকে করোনা আক্রান্ত গতকাল আরও দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা এখন পর্যন্ত ১৪১ জন। গতকাল হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন আরো ৫০ জন। এনিয়ে হাসপাতাল ও বাসায় থেকে সুস্থ হয়েছেন ৩০০৮ জন। বর্তমানে হাসপাতালে আছেন ৩৬৩ জন এবং বাসায় চিকিৎসাধীন ৬০৬ জন। মোট আক্রান্ত ৬ হাজার ২৮৮ জন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চট্টগ্রাম


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ