Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট ২০২০, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ২২ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

কুষ্টিয়ায় করোনায় একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্ত ৩৭ জন

কুষ্টিয়া থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ জুন, ২০২০, ১১:২৫ এএম

কুষ্টিয়ায় ব্যাংকার, পুলিশ, বিজিবিসহ করোনায় একদিনে সর্বচ্চ নতুন করে ৩৭ জন আক্রান্ত হয়েছে। এই নিয়ে কুষ্টিয়ায় এখন পর্যন্ত ৩৮৪ জন কোভিড রোগী সনাক্ত হল। ২১ জুন রবিবার রাতে কুষ্টিয়া সিভিল সার্জন অফিস থেকে কোভিড ১৯ আপডেটে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়। কোভিড ১৯ আপডেট থেকে জানাগেছে, কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে রবিবার মোট ২২১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে কুষ্টিয়া জেলার ১৮২টি নমুনা ছিল। এতে কুষ্টিয়া জেলায় ২১ জুন নতুন করে ৩৭ জনকে আক্রান্ত বলে সনাক্ত করা হয়েছে। এছাড়াও আরো ৫ জনের রিপোর্ট ফলোআপে পজেটিভ হয়েছে। নতুন আক্রান্তের মধ্যে কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুরে ৬ জন, ভেড়ামারায় ৬ জন, মিরপুরে ৫ জন, সদর উপজেলায় ১৪ জন ও কুমারখালীতে ৬ জন। কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় আক্রান্ত ১৪ জনের ঠিকানা সদর হসপিটাল কোয়ার্টার ১ জন, মোল্লাতেঘরিয়া ১ জন, আড়ুয়াপাড়া ৩ জন, সোনালী ব্যাংক কুষ্টিয়া শাখা ১ জন, হাউজিং সি ব্লক ২ জন, পুলিশ লাইন ২ জন, কোর্টস্টেশন রোড ১ জন, কলেজপাড়া ১ জন ও ঠিকানা উল্লেখ নাই ২ জনের।

কুমারখালী উপজেলায় আক্রান্ত ৬ জনের ঠিকানা বাখই ১ জন, পান্টি ১ জন, নগরসাওতা ২ জন, কুন্ডুপাড়া ১ জন, দক্ষিণ ভবানিপুর ১ জন।

ভেড়ামারা উপজেলায় আক্রান্ত ৬ জনের ঠিকানা বামুনপাড়া ১ জন, ১৬ দাগ উত্তরপাড়া ১ জন, নওদাপাড়া ১ জন, সোনালি ব্যাংক ৩ জন।

দৌলতপুর উপজেলায় আক্রান্ত ৬ জনের ঠিকানা সালেমপুর ১ জন, কৈপাল ৩ জন, ফিলিপনগর ১ জন, দৌলতপুর ১ জন।

মিরপুর উপজেলায় আক্রান্ত ৫ জনের ঠিকানা মিরপুর ৩ জন ও বিজিবি ২ জন। নতুন আক্রান্তের মধ্যে পুরুষ ২৩ জন, মহিলা ১৪ জন। এই নিয়ে কুষ্টিয়ায় এখন পর্যন্ত ৩৮৪ জন কোভিড রোগী সনাক্ত হল। (বহিরাগত বাদে)।

উপজেলা ভিত্তিক রোগী সনাক্তের মধ্যে, দৌলতপুর ৫৩, ভেড়ামারা ৫৭, মিরপুর ৩০, সদর ১৭৮, কুমারখালী ৪৯, খোকসা ১৭ জন। মোট পুরুষ রোগী ২৮৬, নারী ৯৮ জন। সুস্থ হয়ে ছাড় পেয়েছেন মোট ৯৭ জন। বর্তমানে হোম আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন ২৭০ জন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ১৪ জন। মৃত- ৩ জন (কুমারখালী -১, দৌলতপুর-১, ভেড়ামারা-১)। সর্বসাধারণের প্রতি অনুরোধ করে কুষ্টিয়া সিভিল সার্জন ডাঃ এইচ এম আনোয়ারুল ইসলাম বলেন- আপনারা আতংকিত না হয়ে সতর্কতা অবলম্বন করুন, ঘরে থাকুন, বিনা প্রয়োজনে ঘরের বাইরে বের হবেন না। বার বার সাবান দিয়ে হাত ধৌত করুন। যত্রতত্র কফ, থুতু ফেলবেন না। হাঁচি, কাশি দেয়ার সময় টিস্যু পেপার, রুমাল, বাহুর ভাঁজ ব্যবহার করুন ও ব্যাবহৃত টিস্যু ঢাকনাযুক্ত বিনে ফেলুন। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন। একে অপরের থেকে কমপক্ষে ৬ ফুট দূরত্ব বজায় রাখুন ও মাস্ক ব্যবহার করুন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ